রাজ্যসভায় কীভাবে পাশ তাৎক্ষণিক তিন তালাক বিল?

কিছু না জানিয়েই টিডিপি, টিআরএস ও বিএসপির সাংসদরা সভা ছাড়েন বলে অভিযোগ৷

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 31, 2019 11:41 AM IST
রাজ্যসভায় কীভাবে পাশ তাৎক্ষণিক তিন তালাক বিল?
photo: Tripple Talaq
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jul 31, 2019 11:41 AM IST

#নয়াদিল্লি: দ্বিতীয় দফায় মোদি সরকারের বাজিমাত। রাজ্যসভায় পাস হয়ে গেল তাৎক্ষণিক তিন তালাক বিল। বিলের পক্ষে ৯৯ টি ভোট। বিরুদ্ধে ৮৪টি।  ভোটাভুটির সময় অধিবেশনেই ছিলেন না টিআরএস, টিডিপি ও বিএসপির সাংসদরা। ভোট দেননি কংগ্রেস, এনসিপি ও সমাজবাদী পার্টির কয়েকজন সাংসদ। এতে সুবিধাই হল বিজেপির।

লোকসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা ছিল। তিন তালাক বিল পাসে সমস্যা হওয়ার কথা ছিল না। হয়ওনি। রাজ্যসভাতে আগেও সংখ্যা গরিষ্ঠতা আগে ছিল না। এখনও নেই। তবু রাজ্যসভায় পাস হয়ে গেল তিন তালাক বিল। রাজনৈতিক কৌশল আর ফ্লোর ম্যানেজমেন্টে বাজিমাত করল বিজেপি। বিলের পক্ষে --  ৯৯ ভোট, বিলের বিপক্ষে -- ৮৪ ভোট৷

মঙ্গলবার রাজ্যসভায় কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী যখন বিল উত্থাপন করছেন, তখনও বিল পাস করা নিয়ে সংশয় ছিল৷ রাজ্যসভায় সাংসদ - ২৪২৷ বিল পাসে -- ১২২ জনের সমর্থন প্রয়োজন৷ এনডিএর সাংসদ -- ১১৩ জন৷ বিল ভোটাভুটির জন্য পেশ করার আগেই খেলা ঘুরে যায়৷

অধিবেশন ছেড়ে বেরিয়ে যায় এনডিএ-র দুই শরিক জেডিইউ ও এআইএডিএমকে৷ ম্যাজিক ফিগার দাঁড়ায় ১০৯৷ ভোটাভুটির সময় ছিলেন না টিআরএস, টিডিপি ও বিএসপির সাংসদরা৷ বিলের পক্ষে ভোট দেয় বিজু জনতা দলের ৭ সাংসদ৷ অনুপস্থিত ছিলেন কংগ্রেস, এনসিপি, কংগ্রেস, বহুজন সমাজ পার্টির কয়েকজন সাংসদ৷ এই পরিস্থিতিতে বিলের পক্ষে ৯৯টি ভোট পড়ে। শেষ ধাপও পরিয়ে যায় তিন-তালাক বিল।  ভোটাভুটিতেই স্পষ্ট, তিন তালাক নিয়ে বিরোধী ঐক্য তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে।

সব বিরোধী সাংসদ হাজির থাকলে বিজেপির জয়ের সম্ভাবনা ছিল না৷ কিছু না জানিয়েই টিডিপি, টিআরএস ও বিএসপির সাংসদরা সভা ছাড়েন বলে অভিযোগ৷ কংগ্রেসের কয়েকজন সাংসদও গরহাজির ছিলেন৷ তাই সংখ্যায় অনেক কম হয়েও বিল পাস হয়৷

Loading...

প্রথম দফায় চেষ্টা করেও রাজ্যসভায় বিল পাস করাতে পারেনি বিজেপি। তাই এবার তৈরি হয়েই নামেন রবি শংকর প্রসাদরা তিন তালাক বিল পাসকে ঐতিহাসিক সাফল্য হিসাবে তুলে ধরছে বিজেপি।  প্রধানমন্ত্রীর টুইটেও সেই বার্তা।

তিন তালাকের কারণে বহুদিন বহু মুসলিম মহিলাকে অবিচার ও বঞ্চনার শিকার হতে হয়েছে। এই প্রথার অবসান হওয়ায় মহিলাদের ক্ষমতায়ন হবে। মহিলারা

প্রাপ্য অধিকার পাবেন, যা থেকে তাঁরা বহু বছর ধরে বঞ্চিত। মুসলিম ওমেন প্রটেকশন অফ রাইট অন ম্যারেজ, ২০১৯ বিলে সমর্থনের জন্য সব রাজনৈতিক দল ও সাংসদকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি

তিন তালাক দিলে প্রস্তাবিত বিলে ফৌজদারি মামলার মুখে পড়তে হবে স্বামীকে। সবোর্চ্চ ৩ বছরের জেল হতে পারে। বিলের এই ধারাটি নিয়েই আপত্তি তোলে অধিকাংশ দল। তবে পর্যন্ত বিরোধীদের আপত্তি অগ্রাহ্য করেই বিল পাস করিয়ে নিল মোদি সরকার। রাষ্ট্রপতি সম্মতি বিলেই তা আইনে পরিণত হবে।

First published: 11:41:44 AM Jul 31, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर