Home /News /national /
Chhattisgarh Election 2nd Phase: কংগ্রেসের মাথাব্যথা সেই যোগী, কেন?

Chhattisgarh Election 2nd Phase: কংগ্রেসের মাথাব্যথা সেই যোগী, কেন?

ছত্তীসগড়ে রমন সিং সরকারের দুর্নীতি নিয়ে সরব হয়ে যতই কংগ্রেস সরকারে ফেরার বিষয়ে আশাবাদী হোক, অঙ্ক বলছে, ভোট শেয়ারে সরকার গড়ার ক্ষেত্রে বাধা হতে পারেন অজিত যোগী৷ ঠিক এই জায়গায় ফের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন অত্যন্ত গরিব ঘর থেকে আসা মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র যোগী৷

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    #রায়পুর: কর্নাটকে যেমন কিং মেকার ছিল জনতা দল (সেক্যুলার) বা জেডিএস, ছত্তীসগড়ে খানিকটা সেই পর্যায়েই আলোচনার কেন্দ্রে একসময়ের কংগ্রেস নেতা ও ছত্তীসগড় গঠনের পর প্রথম মুখ্যমন্ত্রী অজিত যোগী৷ কংগ্রেস থেকে বেরিয়েছেন আগেই৷ যোগীর এখন দল ছত্তীসগড় জনতা কংগ্রেস৷

    ছত্তীসগড়ে রমন সিং সরকারের দুর্নীতি নিয়ে সরব হয়ে যতই কংগ্রেস সরকারে ফেরার বিষয়ে আশাবাদী হোক, অঙ্ক বলছে, ভোট শেয়ারে সরকার গড়ার ক্ষেত্রে বাধা হতে পারেন অজিত যোগী৷ ঠিক এই জায়গায় ফের মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন অত্যন্ত গরিব ঘর থেকে আসা মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্র যোগী৷

    Creative Creative

    বিশেষ করে, ছত্তীসগড়ের আদিবাসী অধ্যুষিত এলাকায় যোগীর জনপ্রিয়তা রয়েছে৷ তাই ১০ শতাংশ ভোটও যদি যোগীর দল ভাগাভাগী করে, তা হলেও কিং মেকারের ভূমিকায় চলে আসবেন তিনি৷ যোগীর কথায়, 'আমরা কোনও প্রচার না-করে বাড়িতে বসে থাকলেও জিতব৷'

    ফেরা যাক ৫ বছর আগে৷ নক্সাল অধ্যুষিত বস্তারে যে বার কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বের নেতারা মাওবাদী হামলায় মারা গেলেন, কংগ্রেসের ঘরে-বাইরে চলছিল কাদা ছোড়াছুড়ি৷ তখন রাজীব গান্ধির প্রিয় পাত্র অজিত যোগী কংগ্রেসেই৷ হাইকম্যান্ড তাঁকে খুব একটা পাত্তা দেয়নি৷

    কাট টু ২০১৮৷ ছত্তীসগড়ের প্রথম মুখ্যমন্ত্রী অজিত যোগী লড়ছেন নির্বাচনে একা৷ কংগ্রেস থেকে আলাদা৷ সিভিল সার্ভিসের উচ্চপদ ছেড়ে রাজনীতিতে এসেছিলেন ছাত্রাবস্থায়৷ তত্‍কালীন প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধির চোখে পড়ে যান অচিরেই৷ তারপর উত্থান৷

    মঙ্গলবার ৭২টি আসনে ভোট হতে চলেছে ছত্তীসগড়ে৷ অজিত যোগী সতনামী সমাজের মানুষ৷ ভিলাই, দূর্গ ও রায়পুরের বিস্তীর্ণ অংশ সতনামী বেল্ট৷ বাকিটা বুঝে নিন৷ অজিত যোগী হাত ধরেছেন বহুজন সমাজ পার্টি সুপ্রিমো মায়াবতীর৷ অর্থাত্‍‌, টার্গেট দলিত ভোট৷

    শহরাঞ্চলেও যোগীর পোলারাইজিং ব্যক্তিত্ব বেশ জনপ্রিয়৷ কংগ্রেস ও বিজেপি-- এটা ভালোই বুঝতে পারছে৷ যোগী জানিয়ে দিয়েছেন ইতিমধ্যেই, তিনি আর যাই করুক, বিজেপি-র সঙ্গে জোটে যাবেন না৷ কিন্ত‌ু তাত্‍‌পর্যপূর্ণ ভাবে, দ্বিতীয় দফার ভোটের আগে একটি সাক্ষাত্‍‌কারে অজিত যোগী বলছেন, 'ভোটের পরে কারওরই হাত ধরতে তাঁর ছুঁত্‍‌মার্গ নেই৷'

    কংগ্রেসের বিক্ষুব্ধ ভোটারদের ভোট যোগীর দলেই পড়তে পারে৷ আবার বিজেপি সরকারের উপর ক্ষুব্ধদের ভোটও পেতে পারে জনতা কংগ্রেস৷ অতএব, সেই কিং মেকার৷

    First published:

    Tags: Ajit Jogi, Chhattisgarh, India Assembly Election 2018

    পরবর্তী খবর