Home /News /national /

নোট বাতিলের জেরে দিল্লির কোটিপতি খুচরোর জন্য ভিক্ষা করলেন বেঙ্গালুরুতে !

নোট বাতিলের জেরে দিল্লির কোটিপতি খুচরোর জন্য ভিক্ষা করলেন বেঙ্গালুরুতে !

কেন্দ্রীয় সরকারের নোট বদলের চক্করে এখন কোটিপতিদেরও ভিখারির দশা !

  • CNN-News18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #বেঙ্গালুরু: কেন্দ্রীয় সরকারের নোট বদলের চক্করে এখন কোটিপতিদেরও ভিখারির দশা ! দিল্লির জিমখানা, ডিডিসিএ এবং গলফ ক্লাবের সম্ভ্রান্ত ক্লাবগুলির যে সদস্য, সেই ব্যক্তিকেই কি না অন্য শহরে গিয়ে ভিক্ষা করে বেড়াতে হল ! কারণ এখন কোটি কোটি টাকা নয়, ৫০-১০০ টাকা যাদের হাতে যতো বেশি রয়েছে তাঁরাই এদেশের সবচেয়ে ধনী ৷ খুচরো সমস্যায় এক বিলিয়ওনেয়ারকেও ভিক্ষা করে বেড়াতে হল বেঙ্গালুরুর রাস্তায় !

    ঘটনাটা ঠিক কী ঘটেছিল এদিন ? লেসি হল ইউরোপের অন্যতম বৃহৎ এমএনসি ৷ শুক্রবারের মধ্যে কারখানার কর্মীদের টাকা দিতে হবে এমন কথা দেওয়ার পর সংস্থার মালিককেই প্রায় রাস্তায় টাকা জোগাড়ে বেরোতে হল ৷ কারণ দরকার ছিল ৯০ হাজার টাকা ৷ সেটাও মাত্র দু’দিনের মধ্যে ৷ শহরের কোনও ব্যাঙ্কে যেটা পাওয়া যাচ্ছে না ৷ সেটা অবশেষে পাওয়া গেল শহরের ভিখারিদের একটা আস্তানায় গিয়ে ৷

    এক বন্ধুর সাহায্যেই এই আস্তানার খোঁজ পান এই কোটিপতি ৷ সেটাও ১০ কিমি পায়ে হেঁটে ৷ কারণ কোনও ট্যাক্সি বা অ্যাপ ক্যাবও খুচরো ছাড়া যেতে রাজী ছিল না ৷ নিজে কর্মীদের কথা যখন দিয়েছেন, তখন সেটা পূরণ করবেনই ৷ তাই যে কোনও ভাবেই ওই ভিখারিদের আস্তানায় পৌঁছনোটা প্রয়োজন ছিল ওই ব্যক্তির ৷ বেঙ্গালুরু রেল স্টেশন এবং বাস স্ট্যান্ডের পাশেই রয়েছে একটি সাবওয়ে ৷ সেখানেই এই ভিখারিদের আস্তানা ৷ সেখানে ভিখারিদের সর্দারদের কাছে যেতে তাঁর একেবারেই ভাল যে লাগছিল না, সেটা বলাই বাহুল্য ৷ কিন্তু কোনও উপায় না দেখে এই কাজটাও সেদিন করে ফেললেন ওই কোটিপতি ব্যবসায়ী ৷ ভিখারিদের সর্দারও এক কথায় টাকা দিতে রাজী হননি ৷ কারণ এই ক্রাইসিসে তিনিও ৫০-১০০ টাকার নোটের মূল্য খুব ভালভাবেই বোঝেন ৷ অনেক কষ্টে শেষে তাকে রাজী করাতে সফল হলেন ওই ব্যক্তি ৷ শেষপর্যন্ত আড়াই লক্ষ টাকার বিনিময় ৯০ হাজার টাকার খুচরো দিতে রাজী হয় ভিখারিদের প্রধান ৷

    News 18-এর রিপোর্ট অনুযায়ী ভিখারিদের প্রধান ওই ব্যক্তিকে অনেক পুরোনো এবং জীর্ণ নোট দিলেও ৯০ হাজার টাকা দেন ৫, ১০, ২০, ৫০ এবং ১০০ টাকার নোটে ৷  এই দুঃসময় সেটা পেয়েই নিজেকে ধন্য মনে করছেন ওই কোটিপতি !

    Story By: DP Satish 

    First published:

    পরবর্তী খবর