সন্দেশখালি নিয়ে রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jun 09, 2019 08:18 PM IST
সন্দেশখালি নিয়ে রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Jun 09, 2019 08:18 PM IST

#নয়াদিল্লি: সন্দেশখালির ঘটনাকে সামনে রেখে রাজ্যের উপর চাপ বাড়াচ্ছে কেন্দ্র। রাজ্যের কাছ থেকে রিপোর্ট চেয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। সেই রিপোর্ট হাতে পাওয়ার আগেই অমিত শাহের দফতর রাজ্যকে কড়া বার্তা দিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছে সন্দেশখালির ঘটনা থেকে রাজনৈতিক ফয়দা তুলতে মরিয়া গেরুয়া শিবির।

সন্দেশখালির ন্যাজাটের ভাঙিপাড়ায় বিজেপি-তৃণমূল রাজনৈতিক সংঘর্ষ। খুন-গুলি-বোমাবাজি। তাকে অস্ত্র করেই আইনশৃঙ্খলা নিয়ে রাজ্যের উপর চাপ বাড়াচ্ছে কেন্দ্র। সন্দেশখালির ঘটনা নিয়ে রাজ্যের থেকে রিপোর্ট চেয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ৷

তবে কেন্দ্রীয় সরকারকে এই রিপোর্ট দিতে বাধ্য নয় রাজ্য। কারণ, যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোয় রাজ্যের হাতেই রয়েছে আইনশৃঙ্খলা ব্যবস্থা। রাজ্য কেন্দ্রকে রিপোর্ট দেবে কিনা, সে ব্যাপারে কিছু জানায়নি। তবে তার আগেই রাজ্যকে কড়া বার্তা দিয়েছে অমিত শাহের মন্ত্রক। কেন্দ্রের তরফে পাঠানো বার্তায় বলা হয়েছে, সন্দেশখালির ঘটনায় উদ্বিগ্ন কেন্দ্রীয় সরকার ৷ রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে কেন্দ্র ৷ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে ৷ দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ অফিসারদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থার সুপারিশ করেছে কেন্দ্র ৷

লোকসভা ভোটে রাজ্যে ভাল ফল বিজেপির। কিন্তু, ফল ঘোষণার পরেও, জায়গায় জায়গায় সংঘর্ষ জারি। এর পিছনে গেরুয়া শিবিরেরই কৌশল দেখছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের একাংশ। তাদের মতে, সাংবিধানিক অচলাবস্থা তৈরি হতে পারে ৷ সেরকম পরিস্থিতি হলে ৩৫৬ ধারা জারি হতে পারে ৷ কারণ, একদফায় ১৫০ বিধায়ক দখল সম্ভব নয়

শনিবারের সেই বীভৎস দৃশ্য এখনও ভুলতে পারছে না সন্দেশখালির ভাঙিপাড়া। এখন থমথমে ভাঙিপাড়া-সহ আশপাশের এলাকা। আর তা নিয়েই জোর কদমে চলছে রাজনৈতিক ফায়দা লোটার খেলা।

First published: 08:17:04 PM Jun 09, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर