• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক সহযোগীর আত্মহত্যা! ঝুলন্ত অবস্থায় মিলল দেহ

হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক সহযোগীর আত্মহত্যা! ঝুলন্ত অবস্থায় মিলল দেহ

মুখ্যমন্ত্রীর এই সহযোগী, কাজ করতেন রোহতক-এর ডেপুটি কমিশনারের অফিসে। প্রাথমিক তদন্তের পর, পুলিশ এই মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলেই মনে করছে।

মুখ্যমন্ত্রীর এই সহযোগী, কাজ করতেন রোহতক-এর ডেপুটি কমিশনারের অফিসে। প্রাথমিক তদন্তের পর, পুলিশ এই মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলেই মনে করছে।

মুখ্যমন্ত্রীর এই সহযোগী, কাজ করতেন রোহতক-এর ডেপুটি কমিশনারের অফিসে। প্রাথমিক তদন্তের পর, পুলিশ এই মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলেই মনে করছে।

  • Share this:

    #হরিয়ানা: হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক সহযোগীর ঝুলন্ত দেহ মিলেছে স্থানীয় সার্কিট হাউজের একটি ঘরে। বুধবার পুলিশ জানিয়েছে এই ঘটনার কথা। মুখ্যমন্ত্রীর এই সহযোগী, কাজ করতেন রোহতক-এর ডেপুটি কমিশনারের অফিসে। প্রাথমিক তদন্তের পর, পুলিশ এই মৃত্যুকে আত্মহত্যা বলেই মনে করছে। প্রসঙ্গত, মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক সহযোগীদের নিয়োগ করা হয় জেলায় সুশাসন বজায় রাখতে এবং কেন্দ্র ও রাজ্যের প্রকল্পগুলির বাস্তবায়ন নিশ্চিত করতে।

    ২৫ বছর বয়সি এই প্রশাসনিক সহযোগী, মৃত্যুর আগে একটি চিঠি লিখেছিলেন। সার্কিট হাউজে তাঁর ঘরেই উদ্ধার হয়েছে সেই চিঠি। তিনি লিখেছেন, “আমার মৃত্যুর জন্য অন্য কেউ নয়, আমি নিজেই দায়ী। সকলকে এভাবে হতাশ করার জন্য আমি দুঃখিত।” স্নাতকোত্তর এই যুবক বেশ কিছুদিন ধরেই মুখ্যমন্ত্রীর প্রশাসনিক কাজের সহায়তায় নিযুক্ত ছিলেন। তথ্য মিলেছে, তাঁর বাবা ছিলেন একজন ভারতীয় সেনার কর্মকর্তা। অন্যদিকে, তাঁর মা বস্তিবাসীদের মঙ্গলের জন্য একটি এনজিও চালান।

    পুলিশ বিভাগের ফরেনসিক বিশেষজ্ঞ ডাঃ সরোজ দাহিয়া জানিয়েছেন, সম্ভবত বুধবার দুপুর অথবা বিকেলের দিকে এই চরম পদক্ষেপ নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীর সহযোগী। তিনি বলেন, “মৃত যুবকের বাবা-মা জানিয়েছেন যে তাঁদের সঙ্গে ছেলের শেষ কথা হয়েছিল মঙ্গলবার রাত ১০.৪০ নাগাদ। এরপর তাঁরা যখন সার্কিট হাউজের ওই ঘরে যান, দেখতে পান ঝুলন্ত দেহ।” পুলিশের তরফ থেকে মৃতদেহ পাঠানো হয়েছে ময়না তদন্তের জন্য। পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস-এ করা হবে এই ময়না তদন্ত।

    Published by:Antara Dey
    First published: