corona virus btn
corona virus btn
Loading

আলোচনায় কাজ না হলে সামরিক পথ খোলা, লাদাখ নিয়ে হুঁশিয়ারি বিপিন রাওয়াতের

আলোচনায় কাজ না হলে সামরিক পথ খোলা, লাদাখ নিয়ে হুঁশিয়ারি বিপিন রাওয়াতের
তিন বাহিনীর প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত৷Photo- PTI

পূর্ব লাদাখে সীমান্ত সংক্রান্ত জট কাটাতে গত প্রায় আড়াই মাস ধরে কূটনৈতিক ও সামরিক স্তরে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে ভারত এবং চিন৷ কিন্তু এখনও পর্যন্ত তা পুরোপুরি ফলপ্রসূ হয়নি৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: আলোচনার মাধ্যমে সমাধান না হলে লাদাখে চিনা সেনার অনুপ্রবেশ রুখতে সামরিক পথই অবলম্বন করবে ভারত৷ রাখঢাক না করেই লাদাখ নিয়ে ভারতের কঠোর অবস্থান স্পষ্ট করে দিলেন তিন বাহিনীর প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত৷ সর্বভারতীয় ইংরেজি দৈনিক হিন্দুস্তান টাইমস-কে এমনই জানিয়েছেন ভারতের চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ (CDS)৷

রাওয়াত জানিয়েছেন, কূটনৈতিক স্তরে এবং দু' দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যে যে আলোচনা চলছে, তা যদি শেষ পর্যন্ত ফলপ্রসূ না হয়, সেক্ষেত্রে সামরিক উপায় অবলম্বন করতে দ্বিধা বোধ করবে না ভারত৷ রাওয়াত বলেন, 'শান্তিপূর্ণ আলোচনার মাধ্যমেই এই ধরনের অনুপ্রবেশ রুখতে আগ্রহী সরকার৷ কিন্তু সবরকম চেষ্টার পরও যদিও প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা বরাবর স্থিতাবস্থা ফিরে না আসে, তার জন্য বাহিনীকে সর্বদা প্রস্তুত থাকতে হয়৷' তিনি আরও জানান, লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় স্থিতাবস্থা আগের জায়গায় ফিরছে কিনা, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল তা লাগাতার পর্যবেক্ষণ করছেন৷

পূর্ব লাদাখে সীমান্ত সংক্রান্ত জট কাটাতে গত প্রায় আড়াই মাস ধরে কূটনৈতিক ও সামরিক স্তরে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে ভারত এবং চিন৷ কিন্তু এখনও পর্যন্ত তা পুরোপুরি ফলপ্রসূ হয়নি৷ গত বৃহস্পতিবারও কূটনৈতিক স্তরে আরও এক দফা আলোচনা হয়েছে৷ তার পরে ভারতের বিদেশমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, বর্তমানে দু' দেশের মধ্যে থাকা চুক্তিগুলি মেনেই দ্রুত সমস্ত বিবাদ দূর করতে চায় ভারত৷

সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবারের বৈঠকও সে অর্থে ইতিবাচক হয়নি৷ জুলাই মাসে ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভালের সঙ্গে চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ই-টেলিফোনে দু' ঘণ্টার আলোচনার পর প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা থেকে সেনা পিছোতে শুরু করে দু' পক্ষ৷ কিন্তু জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময় থেকে সেই প্রক্রিয়া থমকে গিয়েছে৷ কেন্দ্রীয় সরকারের এক শীর্ষ সূত্রের দাবি অনুযায়ী, সেনা পিছনোর বিষয়টি আদৌ গুরুত্ব দিয়ে দেখছে না চিনা বাহিনী৷ যার ফলে তাদের ভুগেত হবে৷ কারণ ভারতীয় সেনা কড়া জবাব দিতে তৈরি রয়েছে৷ ভারতের দাবি স্পষ্ট, এপ্রিল মাসের আগের অবস্থানে ফিরে যেতে হবে চিনের সেনাবাহিনীকে৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: August 24, 2020, 1:38 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर