corona virus btn
corona virus btn
Loading

পুলিশকে ধোঁকা দিতে ৫ দিনে ৪ জেলায় চক্কর কেটেছিল বিকাশ, সঙ্গে ছিল প্রচুর ভুয়ো পরিচয়পত্র

পুলিশকে ধোঁকা দিতে ৫ দিনে ৪ জেলায় চক্কর কেটেছিল বিকাশ, সঙ্গে ছিল প্রচুর ভুয়ো পরিচয়পত্র
অবশেষে পুলিশের জালে বিকাশ দুবে।

পুলিশ জানাচ্ছে, বিকাশের সঙ্গে ছিল প্রচুর ভুয়ো পরিচয়পত্র । তাতে নিজের পদবী ‘পাল’ বলে উল্ল্যেখ করেছিল সে ।

  • Share this:

#কানপুর: গত ৫ দিন ধরে ঘোল খাইয়ে ছেড়েছে দুই রাজ্যের পুলিশ’কে । গ্যাংস্টার বিকাশ দুবেকে ধরতে নাভিঃশ্বাস উঠে গিয়েছিল উত্তরপ্রদেশ ও মধ্যপ্রদেশের পদস্থ পুলিশকর্তাদের । তাঁর মাথার দাম ধার্য করা হয়েছিল ১ লাখ টাকা ।

বৃহস্পতিবার অবশেষে মধ্যপ্রদেশের উজ্জয়নীর মহাকাল মন্দির থেকে গ্রেফতার হয় কানপুরে ৮ পুলিশকর্মী খুনের মূল পাণ্ডা বিকাশ । বুধবার বিকাশের ডান হাত অমর দুবে মারা যায় পুলিশের এনকাউন্টারে । এরপর ফরিদাবাদের একটি হোটেলের সিসিটিভি ফুটেজে বিকাশ’কে মাস্কে মুখ ঢেকে পালিয়ে যেতে দেখা যায় ।

প্রায় এক সপ্তাহ ধরে পুলিশকে নাকে দড়ি দিয়ে ঘোরানোর পর অবশেষে বৃহস্পতিবার সকালে ধরা পড়ে বিকাশ। কিন্তু গ্রেফতারের পরেও এতটুকু দমেনি ডন বিকাশ। উল্টে চিৎকার করে তাকে বলতে শোনা যায়, ‘ম্যায় বিকাশ দুবে কানপুরওয়ালা’।

বিকাশকে এ দিন উজ্জয়নীর মহাকাল মন্দিরের কাছ থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আর এখানেই প্রশ্ন, কী করে এত তাড়াতাড়ি উজ্জয়নী পৌঁছে গেল সে? ফরিদাবাদ আর উজ্জয়নীর মধ্যে দূরত্ব ৮০০ কিলোমিটার। কড়া পুলিশি ঘেরাটোপে কেউ কি তাঁকে সাহায্য করেছিল এই পথ পেরোতে?

উত্তরপ্রদেশ পুলিশ জানাচ্ছে, এই কয়েকদিন মোট চারটি রাজ্য ঘুরে ফেলেছে সে । সঙ্গে ছিল প্রচুর ভুয়ো পরিচয়পত্র । তাতে নিজের পদবী ‘পল’ বলে উল্লেখ করেছিল সে ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মহাকাল মন্দিরের বাইরে একজন ফুল বিক্রিতার সঙ্গে মুখের মাস্ক খুলে কথা বলেছিল বিকাশ। তাকে দেখেই সন্দেহজনক মনে হয় ওই ফুল বিক্রেতার। তিনিই খবর দেন পুলিশকে। শুধু তাই নয়, মহাকাল মন্দিরের ভিআইপি লাইনে নিজের আসল নামই নাম নথিভুক্ত করে বিকাশ । সেখান থেকেও খবর যায় পুলিশের কাছে ।

Published by: Simli Raha
First published: July 9, 2020, 7:44 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर