corona virus btn
corona virus btn
Loading

সব অপেক্ষার অবসান, ভারত-চিন যুদ্ধের আবহে আনুষ্ঠানিক আত্মপ্রকাশ রাফালের

সব অপেক্ষার অবসান, ভারত-চিন যুদ্ধের আবহে আনুষ্ঠানিক আত্মপ্রকাশ রাফালের
লাদাঘ সীমান্তে ভারত-চিন সংঘাতের আবহে রাফালের এই আত্মপ্রকাশ।

লাদাঘ সীমান্তে ভারত-চিন সংঘাতের আবহে রাফালের এই আত্মপ্রকাশকে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে কূটনৈতিক মহল।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: প্রথম ধাপে দেশে আসা রাফালের পাঁচটি বিমান আজ আনুষ্ঠানিক ভাবে স্থান পেল আম্বালার এয়ারবেসে। বৃহস্পতিবাব ভারতীয় সময় সকাল দশটায় আম্বালার এয়ার বেসে রাফালের আনুষ্ঠানিক অভিষেক হয়ে গেল। লাদাঘ সীমান্তে ভারত-চিন সংঘাতের আবহে রাফালের এই আত্মপ্রকাশকে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে কূটনৈতিক মহল।

এদিন রাফালের আত্মপ্রকাশ অনুষ্ঠানে একটি সর্বধর্ম পুজো হয়।এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ভারত-ফ্রান্স দুই দেশের এক ঝাঁক অতিথি। প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং, চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ বিপিন রাওয়াত, এয়ার চিফ মার্শাল আরকেএস ভাদৌরিয়া, ডিফেন্স সেক্রেটারি অজয় কুমার থাকবেন, থাকবেন ফরাসি প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরেন্স পারলি।

জুলাই মাসের ২৭ তারিখ ভারতে পা রাখে রাফাল। অনেক আগে থেকেই স্থির ছিল তাকে ১৭ নং স্কোয়াড্রনের অংশ করা হবে। অর্থাৎ 'গোল্ডেন অ্যারো'-র অংশ হবে রাফাল। রাফালকে ঘিরে রাখতে এয়ারফোর্স মিডিয়াম রেঞ্জ মডিউলার এয়ার টু গ্রাউন্ট উইপন সিস্টেম তৈরি করেছে।ফ্রান্সের বিমানবাহিনী ও নৌসেনার নকশায় তৈরি হওয়া এই হ্যামার( হাই অ্যাজাইল মডিউলার মিউনিশন এক্সটেন্ডেড রেঞ্জ) -ও আজ আত্মপ্রকাশ করবে।

ভারত সরকার মোট ৩৬টি রাফালের বরাত দিয়েছে ফ্রান্সকে। এর মধ্যে ৬টি বিমান ব্যবহার করা হবে প্রশিক্ষণের জন্য। যদিও যুদ্ধেও তা ব্যবহার করা যাবে। এই ছটি বিমানে দুটি করে আসন থাকবে। রাফালের প্রথম স্কোয়াড্রন যেমন ঠাঁই পেয়েছে আম্বালায়, তেমন পরের ক্সোয়াড্রনের জায়গা হবে পশ্চিমবঙ্গের হাসিমারায়।

২০১৬ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর এনডিএ সরকার ফ্রান্সের দ্যাসল্ট অ্যাভিয়েশানের সঙ্গে ৩৬টি রাফাল কেনার ব্য়পারে চুক্তিবদ্ধ হয়। এর জন্যে বরাদ্দ হয় ৫৯ হাজার কোটি টাকা।

Published by: Arka Deb
First published: September 10, 2020, 1:42 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर