Corona-র বিরুদ্ধে যুদ্ধ জয়ে আজ থেকে সারা দেশে শুরু 'টিকা উত্সব', চলবে চারদিন

Corona-র বিরুদ্ধে যুদ্ধ জয়ে আজ থেকে সারা দেশে শুরু 'টিকা উত্সব', চলবে চারদিন

১১ থেকে ১৪ এপ্রিল দেশজুড়ে টিকা উত্সব পালিত হবে।

১১ থেকে ১৪ এপ্রিল দেশজুড়ে টিকা উত্সব পালিত হবে।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি:

    এক বছরের বেশি সময় ধরে আমরা পূর্ণ উত্সাহ নিয়ে কোনও উত্সব পালন করিনি। গত এক বছর ধরে হাজারো বিধি মিনে পালিত হয়েছে উত্সব। যেন এই পৃথিবী আর আগের মতো নেই। কোনও উত্সবই যেন আগের মতো খোলামোলা হয়ে পালন করা যাবে না। তবে আজ থেকে তিনদিনব্যাপী যে উত্সব চলবে তা আপনি খোলামেলাভাবেই পালন করতে পারবেন। কারণ এই উত্সব পালন এখন সব থেকে বেশি প্রাসঙ্গিক। বহু মানুষের জীবন বাঁচাতে এখন এই উত্সব পালনের প্রয়োজনীয়তা হয়তো সব থেকে বেশি। আজ থেকে চারদিনের টিকা উত্সব শুরু দেশে। ১১ থেকে ১৪ এপ্রিল দেশজুড়ে এই টিকা উত্সব চলবে। করোনাকে হারাতে এই টিকা উত্সবের প্রাসঙ্গিকতা অনস্বীকার্য।

    বৃহস্পতিবার প্রতিটি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি সেদিনই জানিয়েছিলেন, ১১ থেকে ১৪ এপ্রিল দেশজুড়ে টিকা উত্সব পালিত হবে। দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়েছে। এমন পরিস্থিতিতে টিকাকরণ ও করোনা বিধি মেনে চলা ছাড়া আর কোনো উপায় নেই বলেও জানিয়েছিলেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী সেদিন মুখ্যমন্ত্রীদের বলেছিলেন, এই চারদিন টিকা উত্সবের মাধ্যমে দেশের বেশিরভাগ মানুষকে টিকাকরণের প্রক্রিয়া সেরে ফেলতে হবে। ৪৫ বছরের বেশি বয়সী বেশিরভাগ মানুষকে টিকা দিতে হবে। অভিযানের মাধ্যমে বহু মানুষের টিকাকরণ সম্ভব বলে তিনি জানিয়েছিলেন। তার পর থেকেই প্রতিটি রাজ্য ১১ থেকে ১৪ এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর ডাকে সাড়া দিয়ে টিকা উত্সব পালনের প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছিল।

    কেন্দ্রের তরফে প্রথমে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল, ৬০ বছরের বেশি বয়সী মানুষদের টিকা দেওয়া হবে। কিন্তু করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার পর সিদ্ধান্ত বদল করতে বাধ্য হয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। ঠিক হয়, ৪৫ বছরের বেশি বয়সী মানুষদের টিকাকরণ হবে। তবে ইতিমধ্যে বিরোধী দলগুলি টিকার জোগান নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। কংগ্রেস নেতা রাহুল গন্ধী জানিয়েছিলেন, করোনার প্রকোপ বাড়ার সময় দেশে টিকার জোগানে অভাব রয়েছে। যা কি না চিন্তার কারণ। মহারাষ্ট্র, ছত্তীসগড়, ঝাড়খণ্ডের মতো রাজ্যগুলি আগেই জানিয়েছিল, তাদের হাতে টিকা পর্যাপ্ত পরিমাণে নেই। ফলে টিকা উত্সব পালন সম্ভব নয়। ৮৫ দিনে ১০০ মিলিয়ন টিকার ডোজ দেওয়া হয়েছে দেশে। শুক্রবারই এমন দাবি করেছিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

    Published by:Suman Majumder
    First published: