দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভারতের আপত্তি কানেই নিল না পাকিস্তান, গিলগিট-বালটিস্তান পাক প্রদেশ বলে ঘোষণা ইমরানের

ভারতের আপত্তি কানেই নিল না পাকিস্তান, গিলগিট-বালটিস্তান পাক প্রদেশ বলে ঘোষণা ইমরানের

ভারতের শত বিরোধিতা, ঘরে বাইরে প্রতিবাদ সত্ত্বেও পাক অধিকৃত কাশ্মীরের গিলগিট বালটিস্তানকে রবিবার বিশেষ প্রদেশের মর্যাদা দিলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ৷ বিশেষজ্ঞ মহলের মতে, পাক সেনা ও চিনের চাপেই এমন সিদ্ধান্ত ইমরান খানের সরকারের ৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: পাকিস্তানের সঙ্গে ভারতের সম্পর্কে ফের অশান্তির ঝড় ৷ পাক অধিকৃত গিলগিট-বালটিস্তান নিয়ে নতুন করে শুরু হল বিতর্ক ৷ ভারতের শত বিরোধিতা, ঘরে বাইরে প্রতিবাদ সত্ত্বেও পাক অধিকৃত কাশ্মীরের গিলগিট বালটিস্তানকে রবিবার বিশেষ প্রদেশের মর্যাদা দিলেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ৷ বিশেষজ্ঞ মহলের মতে, পাক সেনা ও চিনের চাপেই এমন সিদ্ধান্ত ইমরান খানের সরকারের ৷

আগেই জানা গিয়েছিল নিজেদের দখলে রাখা গিলগিট ও বালটিস্তানকে বিশেষ প্রদেশের মর্যাদা দিতে চলেছে পাকিস্তান ৷ নয়াদিল্লির কানে খবর পৌঁছাতেই এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করে ভারতের বিদেশ মন্ত্রক ৷ কিন্তু তাতে যে ইসলামাবাদ কর্ণপাতের প্রয়োজনীয়তা বিন্দুমাত্র অনুভব করেনি তা এদিনের সিদ্ধান্তেই স্পষ্ট ৷

রবিবার পাক অধিকৃত ভারতীয় ভূখন্ড গিলগিট-বালটিস্তানকে নয়া প্রদেশ হিসেবে ঘোষণা করল পাকিস্তান ৷ সেই সিদ্ধান্তের ঘোষণায় এদিন গিলগিট-বালটিস্তানে গিয়ে তাপবিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র, নদী বাঁধের মতো একাধিক প্রকল্পের শিলান্যাস করেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ৷ উদ্বোধনের অনুষ্ঠান মঞ্চে পাক প্রধানমন্ত্রীর মুখে ভারতবিরোধী কথা শোনা গিয়েছে বলেও খবর ৷

দেশের পঞ্চম প্রদেশ হিসাবে ভারতীয় ভূখন্ড গিলগিট-বালটিস্তানকে ঘোষণা করার খবর কাঁটাতারের এপারে পৌঁছালে প্রতিবাদ কড়া প্রতিক্রিয়া দেয় বিদেশ মন্ত্রক ৷ ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব এপ্রসঙ্গে জানান, চুক্তি ভঙ্গ করেছে পাকিস্তান ৷ ১৯৪৭ সালে হওয়া চুক্তি অনুযায়ী গিলগিট-বালটিস্তান ভারতের জন্মু ও কাশ্মীরের অংশ এবং এই চুক্তিতে এও স্পষ্ট করা হয়েছে জোর করে দখল করা এই এলাকার কোনও পরিবর্তনই করার কোনও অধিকার নেই ৷ বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্রের মতে, ‘কিভাবে ৭০ বছর ধরে মানবাধিকার লঙ্ঘন করে আসছে পাকিস্তান এবার দেখুক গোটা বিশ্ব ৷’

গিলগিট-বালটিস্তানকে ভারতের আপত্তি সত্ত্বেও চুক্তি ভেঙে প্রদেশ করার সিদ্ধান্তে আরও একবার প্রমানিত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আসলে পাক সেনাবাহিনীর হাতের পুতুল ৷ উল্লেখ্য, পাকিস্তানের ওই অঞ্চলে চিনের বেশ কিছু খনি রয়েছে ৷ অতএব এই সিদ্ধান্তের পিছনে লাল সেনার দেশের বিশেষ ভূমিকা রয়েছে তা বলাই বাহুল্য ৷

Published by: Elina Datta
First published: November 1, 2020, 11:05 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर