• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • কুয়াশায় বিঘ্ন, আজও বিপর্যস্ত রেল ও বিমান পরিষেবা

কুয়াশায় বিঘ্ন, আজও বিপর্যস্ত রেল ও বিমান পরিষেবা

শনিবারের মতো রবিবারও পরিবর্তন ঘটেনি পরিস্থিতিতে৷ কুয়াশার জেরে রবিবারও অব্যাহত ট্রেন-হয়রানি ৷ দিল্লি-সহ গোটা উত্তর ভারত ঢেকে গিয়েছে ঘন কুয়াশার চাদরে ৷

শনিবারের মতো রবিবারও পরিবর্তন ঘটেনি পরিস্থিতিতে৷ কুয়াশার জেরে রবিবারও অব্যাহত ট্রেন-হয়রানি ৷ দিল্লি-সহ গোটা উত্তর ভারত ঢেকে গিয়েছে ঘন কুয়াশার চাদরে ৷

শনিবারের মতো রবিবারও পরিবর্তন ঘটেনি পরিস্থিতিতে৷ কুয়াশার জেরে রবিবারও অব্যাহত ট্রেন-হয়রানি ৷ দিল্লি-সহ গোটা উত্তর ভারত ঢেকে গিয়েছে ঘন কুয়াশার চাদরে ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: শনিবারের মতো রবিবারও পরিবর্তন ঘটেনি পরিস্থিতিতে৷ কুয়াশার জেরে রবিবারও অব্যাহত ট্রেন-হয়রানি ৷ দিল্লি-সহ গোটা উত্তর ভারত ঢেকে গিয়েছে ঘন কুয়াশার চাদরে ৷ দৃশ্যমানতা কমে গিয়েছে ৷ ঘন কুয়াশায় আজও বিমান ও ট্রেন চলাচল বিঘ্নিত ৷ বাতিল বেশ কয়েকটি দূরপাল্লার ট্রেন ৷ দেরিতে চলছে প্রায় ৯০টি ট্রেন ৷ কুয়াশার জেরে ২০টি ট্রেনের সময়সূচিতে পরিবর্তন করা হয়েছে ৷

    এদিন সকাল থেকেই কুয়াশার জেরে দৃশ্যমানতা এতটাই কমে যায় যে চারটি অন্তর্দেশীয় বিমান বাতিল করা হয়েছে ৷ বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক উড়ানের সময় বদল করা হয়েছে ৷ উড়তে দেরি করেছে একটি আন্তর্জাতিক বিমানের ৷ ৭টি আন্তর্দেশীয় বিমান নামতে দেরি ও একটি আন্তর্জাতিক বিমান উড়তে দেরি হয়েছে বলে জানিয়েছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ ৷ এর জেরে চরম হয়রানির মুখে পড়তে হচ্ছে যাত্রীদের ৷

    অন্যদিকে, রেল জানিয়েছে কুয়াশার জন্য কিছু মেল ও এক্সপ্রেস বাতিল করা হয়েছে ৷

    বাতিল ট্রেনের সূচি

    শিয়ালদহ-দিল্লি এক্সপ্রেস বাতিল ১৮ ডিসেম্বর-১৫ জানুয়ারি বাতিল দিল্লি-শিয়ালদহ এক্সপ্রেস বাতিল ২০ ডিসেম্বর-১৭ জানুয়ারি বাতিল হাওড়া-পটনা জনশতাব্দী এক্সপ্রেস বাতিল ২২ ডিসেম্বর-১২ জানুয়ারি প্রতি বৃহস্পতিবার বাতিল শিয়ালদহ-বারাণসী এক্সপ্রেস শিয়ালদহ থেকে বাতিল ২০ ডিসেম্বর-১০ জানুয়ারি প্রতি মঙ্গলবার বাতিল শিয়ালদহ-বারাণসী এক্সপ্রেস বারাণসী থেকে বাতিল ২৩ ডিসেম্বর-১৩ জানুয়ারি প্রতি শুক্রবার বাতিল

    শুক্রবার কুয়াশার জেরে প্রায় ১০৭টি দূরপাল্লার ট্রেন দেরিতে চলছিল ৷ চারটি ট্রেন বাতিল করা হয়েছে ৷ ৩২টি ট্রেনের সময়সূচি বদল করা হয়েছে ৷ শনিবারও কুয়াশার জন্য ১১ ট্রেনের যাত্রা বাতিল করা হয় ৷ ১০১ টির বেশি ট্রেন সময়ে ছাড়া সম্ভব হয়নি ৷ ১৮ টি ট্রেনের সময়সূচি পরিবর্তিত করা হয় বলে রেল কর্তৃপক্ষ সূত্রে খবর ৷

    গত বছর কুয়াশা মোকাবিলায় ট্রেনে থার্মোস্ট্যাট ক্যামেরা লাগানোর পরিকল্পনা নিয়েছিল ভারতীয় রেল। কিন্তু টাকা না থাকায় এ কাজ অসম্পূর্ণ। রেলের আর্থিক ক্ষতির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে যাত্রী দুর্ভোগও অব্যাহত।

    দিল্লি-মোগলসরাই সেকশনে কুয়াশার কারণে সবচেয়ে বেশি সমস্যা তৈরি হয়েছে। সোমবার হাওড়াগামী হিমগিরি এক্সপ্রেস, তুফান এক্সপ্রেস, কাটিহার এক্সপ্রেসের মতো ট্রেনগুলির পাশাপাশি রাজধানী, শতাব্দী, দুরন্তের মতো প্রিমিয়াম ট্রেনগুলিও বেশ খানিকটা দেরিতে চলছে।

    যাত্রী সুরক্ষার কথা মাথায় রেখেই ট্রেন ধীরে চালানো হচ্ছে বলে দাবি রেলের। তবে ট্রেন বাতিল ও দেরিতে চলায় আখেরে সমস্যা পড়ছেন যাত্রীরা। আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে রেলেরও। উন্নত প্রযুক্তিকে হাতিয়ার করে ভিলেন কুয়াশাকে হারিয়ে কবে স্বাভাবিক করা যাবে ট্রেন চলাচল, রেলমন্ত্রকের কাছে এক্ষুনি কোন সদুত্তর নেই।

    First published: