মিলল না এক বিন্দু জল, রাজস্থানের মরুভূমিতে মৃত্যুর কোলে ঢলে পাঁচ বছরের পড়ল শিশুকন্যা

শিশুটির ঠাকুমাকে জল খাওয়াচ্ছেন পুলিশকর্মীরা Photo-ANI

তৃষ্ণায় গলা শুকিয়ে গেলেও তাই এক বিন্দু জল পায়নি পাঁচ বছরের ওই শিশুকন্যা৷ সেই কষ্ট সহ্য করতে না পেরে মরুভূমির মাঝখানেই মৃত্যু হল তার (Rajasthan Desert Child Death)৷

  • Share this:

    #জালোর: যেদিকেই চোখ যায় শুধু বালি আর বালি৷ আর তার সঙ্গে প্রাণান্তকর গরম৷ মরুভমির মাঝখান দিয়ে চড়া রোদে দীর্ঘ পথ হেঁটে পাঁচ বছরের ছোট্ট শরীরটায় আর শক্তি ছিল না৷ সঙ্গে ছিল না একটা জলের বোতলও৷ তৃষ্ণায় গলা শুকিয়ে গেলেও তাই এক বিন্দু জল পায়নি পাঁচ বছরের ওই শিশুকন্যা৷ সেই কষ্ট সহ্য করতে না পেরে মরুভূমির মাঝখানেই মৃত্যু হল তার৷

    মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের জালোর জেলার রানিওয়ারায়৷ মরুভূমির মাঝখানে ওই শিশুকন্যার দেহের পাশেই অচৈতন্য অবস্থায় পড়েছিলেন তার ঠাকুমা৷ প্রবল গরমে শরীর জলশূন্য হয়ে যাওয়ায় নিজের নাতনির মতো তিনিও সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়ে যান৷ মরুভূমির মাঝখানে জল না পেয়ে শিশুকন্যার মৃত্যুর ঘটনায় শুধু রাজস্থান নয়, শিউরে উঠেছে গোটা দেশ৷

    এনডিটিভি-তে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রায় দশ কিলোমিটার দূরে নিজের বোনের বাড়িতে যাওয়ার জন্য নিজের নাতনিকে নিয়ে রওনা দিয়েছিলেন সুখী নামে ওই বৃদ্ধা৷ কিন্তু চড়া রোদে মাঝপথেই হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত হন তাঁরা৷ এক পশুপালকই প্রথম ওই বৃদ্ধা এবং তাঁর নাতনিকে মরুভূমির মাঝখানে পড়ে থাকতে দেখেন৷ তিনিই গিয়ে স্থানীয় গ্রামের প্রধানকে খবর দেন৷ পরে পুলিশ এসে বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে৷ কিন্তু এই ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় শিশুটির৷ পুলিশ জানিয়েছে, ওই বৃদ্ধা জল না নিয়েই বেরিয়ে পড়েছিলেন৷ প্রবল গরমে দেহ জলশূন্য হয়ে গিয়েই অসুস্থ হয়ে পড়েন দু' জনে৷

    স্থানীয় প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, ওই বৃদ্ধার মানসিক সমস্যাও ছিল৷ নাতনিকে নিয়ে একাই থাকতেন তিনি৷ এ দিনের ঘটনার পর প্রশাসনিক আধিকারিকরা খোঁজ নিয়ে জানতে পারে, বেশ কয়েক মাস ধরে নিজের জন্য বরাদ্দ রেশনও তোলেননি ওই বৃদ্ধা৷ ছোট্ট শিশুটিকে নিয়ে কোনওক্রমে ভিক্ষাবৃত্তি করে দিন গুজরান করতেন তিনি৷ স্থানীয় বাসিন্দারাও নাতনি এবং ঠাকুমাকে মাঝেমধ্যে খাবার দিতেন৷

    জেলাশাসক ভর্ষনে এনডিটিিভ-কে জানান, কয়েক বছর আগে শিশুটির মা দ্বিতীয় বার বিয়ে করার জন্য তাকে ছেড়ে চলে যান৷ এর পর থেকে ঠাকুমার কাছেই থাকত সে৷ ওই বৃদ্ধার এক আত্মীয়ের সঙ্গে প্রশাসনের তরফে যোগাযোগ করা হয়েছে৷

    তবে এই হৃদয় বিদারক ঘটনাতেও রাজনীতির আঁচ লেগেছে৷ কেন্দ্রীয় জল শক্তি মন্তীর গজেন্দ্র শেখাওয়াত কেন্দ্রের জল জীবন প্রকল্পে সামিল না হওয়ার জন্য রাজস্থানের অশোক গেহলট সরকারকে তীব্র আক্রমণ করেছেন৷ পানীয় জলের অভাবে পাঁচ বছরের শিশুর এই মৃত্যুর ঘটনার কথা উল্লেখ করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শেখাওয়াত একের পর এক ট্যুইট করেন৷ কংগ্রেস শাসিত রাজস্থান সরকার কেন জল জীবন প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ টাকা খরচ করছে না, সেই প্রশ্ন তোলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: