Home /News /national /

মিলল না এক বিন্দু জল, রাজস্থানের মরুভূমিতে মৃত্যুর কোলে ঢলে পাঁচ বছরের পড়ল শিশুকন্যা

মিলল না এক বিন্দু জল, রাজস্থানের মরুভূমিতে মৃত্যুর কোলে ঢলে পাঁচ বছরের পড়ল শিশুকন্যা

শিশুটির ঠাকুমাকে জল খাওয়াচ্ছেন পুলিশকর্মীরা Photo-ANI

শিশুটির ঠাকুমাকে জল খাওয়াচ্ছেন পুলিশকর্মীরা Photo-ANI

তৃষ্ণায় গলা শুকিয়ে গেলেও তাই এক বিন্দু জল পায়নি পাঁচ বছরের ওই শিশুকন্যা৷ সেই কষ্ট সহ্য করতে না পেরে মরুভূমির মাঝখানেই মৃত্যু হল তার (Rajasthan Desert Child Death)৷

  • Share this:

    #জালোর: যেদিকেই চোখ যায় শুধু বালি আর বালি৷ আর তার সঙ্গে প্রাণান্তকর গরম৷ মরুভমির মাঝখান দিয়ে চড়া রোদে দীর্ঘ পথ হেঁটে পাঁচ বছরের ছোট্ট শরীরটায় আর শক্তি ছিল না৷ সঙ্গে ছিল না একটা জলের বোতলও৷ তৃষ্ণায় গলা শুকিয়ে গেলেও তাই এক বিন্দু জল পায়নি পাঁচ বছরের ওই শিশুকন্যা৷ সেই কষ্ট সহ্য করতে না পেরে মরুভূমির মাঝখানেই মৃত্যু হল তার৷

    মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের জালোর জেলার রানিওয়ারায়৷ মরুভূমির মাঝখানে ওই শিশুকন্যার দেহের পাশেই অচৈতন্য অবস্থায় পড়েছিলেন তার ঠাকুমা৷ প্রবল গরমে শরীর জলশূন্য হয়ে যাওয়ায় নিজের নাতনির মতো তিনিও সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়ে যান৷ মরুভূমির মাঝখানে জল না পেয়ে শিশুকন্যার মৃত্যুর ঘটনায় শুধু রাজস্থান নয়, শিউরে উঠেছে গোটা দেশ৷

    এনডিটিভি-তে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, প্রায় দশ কিলোমিটার দূরে নিজের বোনের বাড়িতে যাওয়ার জন্য নিজের নাতনিকে নিয়ে রওনা দিয়েছিলেন সুখী নামে ওই বৃদ্ধা৷ কিন্তু চড়া রোদে মাঝপথেই হিট স্ট্রোকে আক্রান্ত হন তাঁরা৷ এক পশুপালকই প্রথম ওই বৃদ্ধা এবং তাঁর নাতনিকে মরুভূমির মাঝখানে পড়ে থাকতে দেখেন৷ তিনিই গিয়ে স্থানীয় গ্রামের প্রধানকে খবর দেন৷ পরে পুলিশ এসে বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে৷ কিন্তু এই ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় শিশুটির৷ পুলিশ জানিয়েছে, ওই বৃদ্ধা জল না নিয়েই বেরিয়ে পড়েছিলেন৷ প্রবল গরমে দেহ জলশূন্য হয়ে গিয়েই অসুস্থ হয়ে পড়েন দু' জনে৷

    স্থানীয় প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, ওই বৃদ্ধার মানসিক সমস্যাও ছিল৷ নাতনিকে নিয়ে একাই থাকতেন তিনি৷ এ দিনের ঘটনার পর প্রশাসনিক আধিকারিকরা খোঁজ নিয়ে জানতে পারে, বেশ কয়েক মাস ধরে নিজের জন্য বরাদ্দ রেশনও তোলেননি ওই বৃদ্ধা৷ ছোট্ট শিশুটিকে নিয়ে কোনওক্রমে ভিক্ষাবৃত্তি করে দিন গুজরান করতেন তিনি৷ স্থানীয় বাসিন্দারাও নাতনি এবং ঠাকুমাকে মাঝেমধ্যে খাবার দিতেন৷

    জেলাশাসক ভর্ষনে এনডিটিিভ-কে জানান, কয়েক বছর আগে শিশুটির মা দ্বিতীয় বার বিয়ে করার জন্য তাকে ছেড়ে চলে যান৷ এর পর থেকে ঠাকুমার কাছেই থাকত সে৷ ওই বৃদ্ধার এক আত্মীয়ের সঙ্গে প্রশাসনের তরফে যোগাযোগ করা হয়েছে৷

    তবে এই হৃদয় বিদারক ঘটনাতেও রাজনীতির আঁচ লেগেছে৷ কেন্দ্রীয় জল শক্তি মন্তীর গজেন্দ্র শেখাওয়াত কেন্দ্রের জল জীবন প্রকল্পে সামিল না হওয়ার জন্য রাজস্থানের অশোক গেহলট সরকারকে তীব্র আক্রমণ করেছেন৷ পানীয় জলের অভাবে পাঁচ বছরের শিশুর এই মৃত্যুর ঘটনার কথা উল্লেখ করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শেখাওয়াত একের পর এক ট্যুইট করেন৷ কংগ্রেস শাসিত রাজস্থান সরকার কেন জল জীবন প্রকল্পের জন্য বরাদ্দ টাকা খরচ করছে না, সেই প্রশ্ন তোলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published:

    Tags: Drinking Water, Rajasthan

    পরবর্তী খবর