যেখানে সেখানে থুতু ফেললেই ৫০০ টাকা জরিমানা! করোনা আতঙ্কে নতুন সিদ্ধান্ত নিল প্রশাসন

আমরা প্রকাশ্যে থুতু ফেলার বিষয়টি আটকাতে রোখার বিষয়ে শেষ কয়েকদিন ধরে কথাবার্তা চালাচ্ছিলাম

আমরা প্রকাশ্যে থুতু ফেলার বিষয়টি আটকাতে রোখার বিষয়ে শেষ কয়েকদিন ধরে কথাবার্তা চালাচ্ছিলাম

  • Share this:

    #আহমেদাবাদ: করোনা আতঙ্কে নতুন সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে কেন্দ্র৷ এবার প্রকাশ্যে থুতু ফেললেই হবে জরিমানা৷ গুজরাতের রাজ্য সরকার তেমনই সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ যে কোনও পাবলিক প্লেস বা প্রকাশে থুতু ফেললেই এই জরিমানা করা হবে বলে সিদ্ধান্তের কথা গুজরাত প্রশাসন জানিয়েছে৷

    এখনও গুজরাতে একজনও করোনা আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া যায়নি৷ কিন্তু তাও সাবধানী প্রশাসন৷ রোগের প্রকোপ আটকাতেই এই সিদ্ধান্ত৷ গুজরাত রাজ্য সরকারের স্বাস্থ্য সচিব জানিয়েছেন, ‘আমরা প্রকাশ্যে থুতু ফেলার বিষয়টি আটকাতে রোখার বিষয়ে শেষ কয়েকদিন ধরে কথাবার্তা চালাচ্ছিলাম৷ সেই নিয়ে জেলাশাসক, পুর প্রধানদের সঙ্গে কথাও হয়েছিল৷ সেই আলোচনা থেকেই এই সিদ্ধান্ত পৌঁছেছি আমরা৷ এবার ঠিক করা হবে কীভাবে এই জরিমানা করা হবে৷’

    তিনি জানিয়েছেন, ‘আমরা ১৮৯৭ সালের ইন্ডিয়ান এপিডেমিক অ্যাক্ট আইন অনুসারে আমরা জেলাশাসক ও পুর প্রশাসকদের হাতে একটি নির্দেশ পাঠিয়ে দিয়েছি৷ তাঁদের হাতে রোগ প্রতিরোধের জন্য বিশেষ ক্ষমতাও অর্পণ করা হয়েছে৷

    গুজরাত হাইকোর্টের নির্দেশ মেনে শুক্রবার থেকেই হাইকোর্ট ক্যাম্পাসে সুরক্ষার তাগিদে একটি নির্দেশনামা জারি করা হচ্ছে৷ সমস্ত সরকারি অনু্ষ্ঠান, যেগুলিকে পিছিয়ে দেওয়া যায়, সরকার সেগুলি পিছিয়ে দেওয়ারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ জানুয়ারির ১৫ তারিখের পর থেকে এখনও পর্যন্ত প্রায় ২৯ হাজার যাত্রীকে সর্দার বল্লবভাই প্যাটেল বিমানবন্দরে করোনা সন্দেহে পরীক্ষা করা হয়েছে৷ তার মধ্যে ৭৭ জনকে করোনা সন্দেহে কোয়েরন্টাইন করে রাখা হয়েছে৷ যার মধ্যে ৭২ জনেরই পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে৷ তবুও সুরক্ষায় কমতি রাখতে চাইছে না গুজরাত প্রশাসন৷

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: