• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • উন্নাওয়ের বিধায়কের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ, জেলে রহস্যজনক মৃত্যু নির্যাতিতার বাবা

উন্নাওয়ের বিধায়কের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ, জেলে রহস্যজনক মৃত্যু নির্যাতিতার বাবা

The woman (in orange) and her family at the police station on Sunday. (TV grab)

The woman (in orange) and her family at the police station on Sunday. (TV grab)

রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হল উত্তরপ্রদেশে বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগকারীর বাবার।

  • Share this:

    #লখনউ: মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনে মেয়েকে নিয়ে বিজেপি বিধায়কের বিরুদ্ধে ধর্ষণের প্রতিবাদ। তার চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই পুলিশ হেফাজতে নির্যাতিতার বাবার রহস্যমৃত্যু। চরম অস্বস্তিতে উত্তরপ্রদেশের যোগী অদিত্যনাথ সরকার। চাপে পড়ে খোদ মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ। ছয় পুলিশকর্মীকে সাসপেন্ড ও ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ। বেটি বাঁচাওয়ের সরকারি স্লোগান তুলে টুইটে খোঁচা রাহুল গান্ধির। ২০১৭ সালের জুন মাসে উত্তরপ্রদেশের বঙ্গারমউয়ের বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সেনগার এবং তাঁর সঙ্গী তাঁকে ধর্ষণ করেছে। কিন্তু তাঁর অভিযোগকে পাত্তাই দেয়নি প্রশাসন। প্রতিবাদ রবিবার মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের বাড়ির সামনে সপরিবারের আত্মহত্যার চেষ্টা করেন নির্যাতিতা। আত্মহত্যার চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার হন তিনি। রাতে তাঁর বাবাকেও গ্রেফতার করা হয়। সোমবার ভোররাতে পেটে ব্যথা এবং বমি শুরু হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় নির্যাতিতার বাবাকে। সকালে তিনি মারা যান। অভিযোগ, পুলিশ হেফাজতেই নির্যাতিতার বাবাকে মারধর করেন অভিযুক্ত বিধায়কের লোকজন। বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তো ছিলই। তার ওপর পুলিশ হেফাজতে নির্যাতিতার বাবার মৃত্যু। চরম অস্বস্তিতে যোগী আদিত্যনাথের সরকার। মুখ্যমন্ত্রীর আশ্বাস, এই ঘটনায় দোষী যেই হোক না কেন তাঁকে ছাড়া হবে না। মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পরই ধর্ষণের ঘটনায় এফআইআর দায়ের হয়েছে। অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে বলে জানান উত্তরপ্রদেশ পুলিশের ডিজি। যোগীর হস্তক্ষেপের পরই তাঁর দফতরে গিয়ে হাজির হন অভিযুক্ত বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সিং সেনগার। কুলদীপের পালটা দাবি, তাঁর বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ নেই। যেকোনও তদন্তের জন্য প্রস্তুত তিনি। পুলিশ হেফাজতে নির্যাতিতার বাবার মৃত্যুতে ইতিমধ্যেই দুই অফিসার ও চার কনস্টেবলকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। ম্যাজিস্ট্রেট পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। বিজেপি শাসনে রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন আগেই উঠেছে। পুলিশ হেফাজতে মৃত্যুর ঘটনা সামনে আসতেই মুখ্যমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি করেছেন সমাজবাদী পার্টি প্রধান অখিলেশ সিং যাদব। খোঁচা দিয়েছেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধিও। তাঁর টুইট, বেটি বাঁচাও, নিজে মরে যাও।

    First published: