corona virus btn
corona virus btn
Loading

ফ্যাশন সেন্স থেকে কাজের ধরন, সবেতেই অন্যরকম প্রিয়ঙ্কা গান্ধি বঢরা

ফ্যাশন সেন্স থেকে কাজের ধরন, সবেতেই অন্যরকম প্রিয়ঙ্কা গান্ধি বঢরা
Priyanka Gandhi
  • Share this:

নয়াদিল্লি: রাজনীতির ময়দানে নতুন খেলোয়াড়। কংগ্রেসের ট্রাম্প কার্ড। ফ্যাশন সেন্স থেকে ক্যারিশ্না। প্রচার থেকে আন্তরিকতা। সবেতেই নিজস্বতার ছোঁয়া। ভারতীয় রাজনীতিতে প্রিয়ঙ্কা গান্ধি বঢরা যেন এক ঝলক টাটকা হাওয়া। হালকা রঙের সুতির শাডি়। থ্রি-কোয়ার্টার হাতা ব্লাউজ। বব কাট চুল। বলিষ্ঠ চাউনি আর অমলিন হাসির এক অন্যরকম মিশেল। ভারতীয় রাজনীতি শেষ কবে প্রিয়ঙ্কা গান্ধির মত ব্যক্তিত্বকে পেয়েছে? উত্তর খুঁজলে তাঁর ঠাকুমার নামটাই প্রথম মনে আসে। তবে স্টাইল থেকে আন্তরিকতা, কোনও কোনও ক্ষেত্রে যেন ইন্দিরা গান্ধিকেও ছাপিয়ে যাচ্ছেন তাঁর নাতনি। গত পাঁচ বছর ধরে জল্পনা ছিল। তবে ভোটের আগে হঠাৎই প্রিয়ঙ্কার সক্রিয় রাজনীতিতে আসা চমক দিয়েছিল।

প্রচারে বরাবরই আত্মবিশ্বাসী কংগ্রেসের নতুন সাধারণ সম্পাদক। বারাণসীতে মোদির সঙ্গে সরাসরি সংঘাতের ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। শেষপর্যন্ত অবশ্য প্রার্থী হননি। তবে উত্তরপ্রদেশে কংগ্রেসের বড় ভরসা তিনিই। মা সনিয়ার কেন্দ্র রায়বরেলির পুরো দায়িত্ব তাঁর কাঁধেই। অমেঠিতে দাদা রাহুলেরও অন্যতম ভরসা তিনি।

দিনরাত এক করে প্রচার করছেন। মাসখানেকের মধ্যেই হয়ে উঠেছেন উত্তরপ্রদেশের দিদি। ধকল আছে। তবে চোখেমুখে ক্লান্তি নেই। প্রবল গরমেও দুটো জিনিস ইনট্যাক্ট। প্রিয়ঙ্কার হাসি, আর ফ্যাশন সেন্স। সুতি বা লিনেনের শাড়ি। মধ্যে মধ্যে গামছা শাড়িতেও দেখা যাচ্ছে তাঁকে। এক ধরনের শাড়ি পরতে পারেন, তবে এযাবৎ একই শাড়িতে তাঁকে দুবার দেখেননি কেউ।

আন্তরিকতায় অবলীলায় হার মানাচ্ছেন যেকোনও নেতাকে। রায়বরেলি, অমেঠিতে প্রিয়ঙ্কা এখন ঘরের মেয়ে। যেকোনও সময় গাড়ি থেকে নেমে পড়েন। দাঁড়িয়ে মানুষের অভিযোগ শুনছেন। শিশুদের সঙ্গে তাদের মত করে মিশছেন। তবে লক্ষ্য তাঁর স্থির। মঞ্চে উঠে বিজেপিকে কড়া বার্তা দিচ্ছেন। তাঁর কটাক্ষ থেকে বাদ পড়ছেন না মায়াবতী, অখিলেশ যাদবরাও। গান্ধি পরিবারের এই মেয়ের লড়াকু মানসিকতা চোখে পড়ছে কয়েক ঝলক দেখলেই।

পরতে পরতে নতুনত্বের ছোঁয়া। নিজস্বতার ছাপ। ১৯ এর নির্বাচনে ভারতীয় রাজনীতিতে প্রিয়ঙ্কাই সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য সংযোজন। মা-দাদার হয়ে নেট প্র্যাকটিসই বুঝিয়ে দিচ্ছে, শুধু অমেঠি বা রায়বরেলি নয়, বছর পাঁচেকের মধ্যে পুরো দলের দায়িত্বভার তাঁর কাঁধে উঠলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

First published: May 5, 2019, 3:22 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर