corona virus btn
corona virus btn
Loading

Budget 2017: বাজেটের দিকে তাকিয়ে নোট বাতিলে ক্ষতিগ্রস্থ চাষীরা

Budget 2017: বাজেটের দিকে তাকিয়ে নোট বাতিলে ক্ষতিগ্রস্থ চাষীরা
ওড়িশা ও তেলেঙ্গানা মডেলের আদলে এই প্যাকেজ প্রস্তুত করা হয়েছে। তেলেঙ্গানায় বপন মরশুমের সময় কৃষকদের একর পিছু ৪০০০ টাকা দেওয়া হয়ে থাকে । ওড়িশায় একইভাবে প্রত্যেকটি কৃষক পরিবারকে ৫০০০ টাকা দেওয়া হয়। (ছবি: সংগৃহীত)

নোট বাতিলের জেরে রাজ্যে মুখ থুবড়ে পড়েছে চাষের কাজ।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি:  নোট বাতিলের জেরে রাজ্যে মুখ থুবড়ে পড়েছে চাষের কাজ। নোটের অভাবে সার, চাষের সরঞ্জাম কেনা যায়নি। নগদের অভাবে ব্যাঙ্ক থেকে ঋণও মেলেনি। নোট বাতিলের পর আবার অন্য সমস্যা। ধান বিক্রি করতে গিয়ে দাম মিলছে না। রবিশস্য চাষে টাকা আসবে কোত্থেকে? ঋণ মকুবের আশায় তাই বাজেটের দিকে তাকিয়ে চাষীরা।

ঋণ মকুবের আশাই তাঁদের একমাত্র সম্বল। কৃষি থেকে আয় দিনদিন কমছিল। নোট বাতিলে নেমে এল আরও সংকট। নোট বাতিলের পর গোটা দেশের মতই প্রবল সংকটে রাজ্যের কৃষকরা। কমছে রবিশস্য উৎপাদন। নগদের অভাবে নতুন করে চাষ করার কথাও ভাবতে পারছেন না অনেক কৃষক।
রাজ্যের সব কৃষি নিগম গড়ে ৩৫ শতাংশ কম কৃষিঋণ দিয়েছে নাবার্ড থেকে নগদে কৃষিঋণ না মেলায় এই অবস্থা বলে অভিযোগ অনেক জেলাতেই ধান বিক্রির টাকা তুলতে পারেননি চাষিরা সহায়ক মূল্যে এককালীন ২৫ বস্তার বেশি ধান বিক্রি করাই যাচ্ছে না নগদের অভাবে খোলা বাজারেও দাম মিলছে না

ধানকে কেন্দ্র করে চলা সহায়ক শিল্পগুলিও ধুঁকছে। বর্ধমান থেকে পশ্চিম মেদিনীপুরে - বন্ধ হতে বসেছে মুড়ি, আলুর চিপস,আচার তৈরির কারখানা।

আলু ও সবজি চাষেও ছবিটা একইরকম। আলু চাষ বাড়লেও তার দাম মিলছে না। অন্যদিকে বাজারে সবজির দাম চড়লেও পরিবহণ সংকটে মাল পাঠাতেই পারছেন না চাষিরা। কৃষাণ ক্রেডিট কার্ডে পিছিয়ে রাজ্য। ছোট চাষীদের সংখ্যাই এখানে বেশি। প্রায় ৯৩ শতাংশ। তাই পঞ্জাব, হরিয়ানার থেকে নোট বাতিলের ধাক্কাটা ভালোই মালুম পেয়েছেন এরাজ্যের চাষিরা। বাজেটের কি কিছুটা হলেও প্রত্যাশা মিটবে? অনেকদিন পর আসবে সুখবর? আশায় চাষিরা।
First published: January 28, 2017, 7:54 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर