৭০০ ফেসবুক ভুয়ো পেজ ভ্যানিশ ! ফেসবুকের কড়া সিদ্ধান্তে অস্বস্তি বাড়ল কংগ্রেস ও বিজেপির IT সেলে

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Apr 01, 2019 07:28 PM IST
৭০০ ফেসবুক ভুয়ো পেজ ভ্যানিশ ! ফেসবুকের কড়া সিদ্ধান্তে অস্বস্তি বাড়ল কংগ্রেস ও বিজেপির IT সেলে
Representational Image
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Apr 01, 2019 07:28 PM IST

#নয়াদিল্লি: লোকসভা ভোটের আগে নজিরবিহীনভাবে ডিলিট করা হল প্রায় সাতশো ফেসবুক পেজ। কংগ্রেস ও বিজেপি - দুইই দল ফেসবুকে ভুয়ো প্রোফাইল তৈরি করে প্রচার চালাত বলে অভিযোগ। কার কত পেজ ডিলিট হয়েছে? তা নিয়ে অভিযোগ-পালটা অভিযোগ। ভারতের ক্ষেত্রে ভুয়ো প্রচার রুখতে এই প্রথম এত কড়া সিদ্ধান্ত ফেসবুকের।

৭০০ ফেসবুক পেজ ভ্যানিশ 

ভোটের আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারে স্বচ্ছতা আনতে বড়সড় পদক্ষেপ ফেসবুকের। রাতারাতি ডি-লিট করা হলো প্রায় ৭০০ পেজ । ভুয়ো নামে পেজ খুলে রাজনৈতিক প্রচার চালানো হত এই পেজগুলিতে। তা রুখতেই এই পদক্ষেপ।

ভোটের আগে সব রাজনৈতিক দলের নজরে সোশ্যাল মিডিয়া। বিশেষত ফেসবুক খুললেই রাজনৈতিক দলগুলোর প্রচারের ঝড়। কিন্তু কোনটা ঠিক আর কোনটা ভুয়ো বোঝা কঠিন। সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ে নতুন সেল তৈরি করতে হয়েছে নির্বাচন কমিশনকে।

যে ৬৮৭টি ফেসবুক পেজ ডিলিট করা হয়েছে, তার বড় অংশই কংগ্রেসের প্রচারে ব্যবহার করা হতো বলে অভিযোগ।

Loading...

দুটি বা তিনটি অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে এই শতাধিক পেজ খোলা হয় ৷ এই অ্যাকাউন্টগুলো কংগ্রেস আইটি সেলের সদস্যদের বলে অভিযোগ উঠেছে ৷ ফেসবুকও কংগ্রেস যোগের বিষয়টি মেনে নিয়েছে ৷

সিলভার টাচ, মাই নেশন, ইন্ডিয়ান আইয়ের ই-মেল অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করেও ফেসবুকে প্রচার চলছিল। এমন ১৫টি পেজও নেট থেকে উধাও। এই দুটি সংস্থাই বিজেপি ঘনিষ্ঠ বলে অভিযোগ। গুজরাতের সিলভার টাচ সংস্থা আবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ন্যামো অ্যাপের স্রষ্টাও।

কংগ্রেসের দাবি, দলের কোনও অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ বন্ধ হয়নি। স্বীকৃত ফেসবুক পেজগুলোও আগের মতই চলছে। কী কী পেজ বন্ধ হয়েছে, তা নিয়ে ফেসবুকের উত্তরের অপেক্ষায় রয়েছি আমরা ৷

গতবছর মার্কিন কংগ্রেসে মার্ক জুকেরবার্গ প্রতিশ্রুতি দেন,অন্য দেশের নির্বাচনে প্রভাব খাটানোর রাস্তা বন্ধ করতে উদ্যোগী হবে ফেসবুক। ঢেলে সাজানো হয় ফেসবুকের পরিচলন নীতিও। সংস্থার সাইবার সিকিউরিটি প্রধান নাথানিয়েল গ্লেইসারের দাবি, ভুয়ো পরিচয়ে ফেসবুক পেজগুলি খোলা ও ব্যবহার করা হচ্ছিল। কারা কী জন্য এই অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করছেন, তা গোপন করাই উদ্দেশ্য ছিল। এই কারণেই পেজ ডিলিট করার সিদ্ধান্ত ৷

ফেসবুকের কড়া সিদ্ধান্তের কংগ্রেস ও বিজেপির আইটি সেলে নিঃসন্দেহে ব্যস্ততা বাড়তে চলেছে। সাইবার দুনিয়ায় প্রচার কৌশলে এবার নতুন কৌশল খুঁজতে হবে দুই শিবিরকে। প্রসঙ্গত, ফেসবুকে বিজেপি ঘনিষ্ঠ মাই নেশন এবং ইন্ডিয়ান আইয়ের ফলোয়ারের সংখ্যা প্রায় ২৬ লক্ষ । সেই তুলনায় কংগ্রেসের ৬৮৭টি পেজ ফলো করতেন প্রায় ২০ হাজার নেটিজেন । ইন্সটাগ্রামেও এদিন বেশ কিছু অ্যাকাউন্ট এদিন ডিলিট করে ফেলা হয়েছে ।

First published: 03:19:44 PM Apr 01, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर