• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • নয়া ফর্মুলায় বেতনবৃদ্ধি ? সেক্ষেত্রে বেতন বৃদ্ধির পরিমাণ অনেকটাই কম ! চিন্তায় কর্মী সংগঠন

নয়া ফর্মুলায় বেতনবৃদ্ধি ? সেক্ষেত্রে বেতন বৃদ্ধির পরিমাণ অনেকটাই কম ! চিন্তায় কর্মী সংগঠন

photo source: collected

photo source: collected

  • Share this:

    #কলকাতা:  ষষ্ঠ বেতন কমিশনের মেয়াদ আরও ছ’মাস বেছেড়ে, কিন্তু তার সুপারিশ কবে আসবে, তা নিয়ে ধোঁয়াশা এখনও কাটেনি! একই সঙ্গে, কোন নিয়মে বেতন বৃদ্ধির সুপারিশ করবে বেতন কমিশন, তা নিয়েও ধন্দে সরকারি কর্মচারি সংগঠনগুলি।

    সংগঠনগুলির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, ব্যান্ড-পে (বেসিক এবং মহার্ঘভাতার যোগফল) এবং গ্রেড-পে (গত বেতন কমিশনের ফলে বেতন বৃদ্ধির পরিমাণ) মিলিয়ে এক জন সরকারি কর্মচারীর মূল বেতন নির্দিষ্ট হয়। নতুন বেতন কমিশন সেই মূল বেতনকে ২.৫৭ দিয়ে গুণ করে নতুন বেতন কাঠামো তৈরি করবে, এমনটাই প্রচলিত রীতি। এই নিয়মকেই এত দিন মান্যতা দিয়ে এসেছে কেন্দ্রীয় বা অতীতের বাম সরকার। কিন্তু সংগঠনগুলির দাবি, এ বার একটি পৃথক ফর্মুলা নিয়ে কমিশনের সঙ্গে অর্থ দফতরের প্রাথমিক আলোচনা হয়েছে!

    এই নয়া ফর্মুলায় অনুযায়ী, ব্যান্ড পে-কে ২.৩৫ এবং গ্রেড পে-কে ১.৫ দিয়ে গুণ করে বেতন কাঠামো স্থির করার বিষয়ে দু’পক্ষের আলোচনা হয়েছে। এ ব্যাপারে কোনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি ঠিকই, কিন্তু যদি শেষ পর্যন্ত নতুন ফর্মুলা প্রয়োগ করা হয়, তা হলে বেতন বৃদ্ধির পরিমাণ অনেকটাই কম হবে বলে জানাচ্ছেন সংগঠনগুলির নেতারা। ধরা যাক এখন কোনও কর্মচারীর বেসিক পে ১০০ টাকা। ২০১৯-এর জানুয়ারিতে তাঁর মহার্ঘ ভাতার পরিমাণ হবে ১২৫ শতাংশ, অর্থাৎ ১২৫ টাকা। সব মিলিয়ে তাঁর ব্যান্ড পে ২২৫ টাকা।

    এ বার চতুর্থ বেতন কমিশনের আমলে যদি তাঁর মূল বেতন ৭০ টাকা থেকে থাকে, তা হলে পঞ্চম বেতন কমিশনে তাঁর ৩০ টাকা বেতন বৃদ্ধি হয়েছিল। কাজেই তাঁর গ্রেড পে ৩০ টাকা এবং এখন তাঁর মূল বেতন (২২৫+৩০) ২৫৫ টাকা। চলতি ফর্মুলা অনুযায়ী এই বেতনকে ২.৫৭ দিয়ে গুণ করে ষষ্ঠ বেতন কমিশনে তাঁর বেসিক হওয়ার কথা ৬৫৫.৩৫ টাকা।

    কিন্তু তাঁর ব্যান্ড পে-কে ২.৩৫ দিয়ে গুণ করলে হবে ৫২৮.৭৫ টাকা এবং গ্রেড পে-কে ১.৫ দিয়ে গুণ করলে হবে ৪৫ টাকা। ফলে সব মিলিয়ে তাঁর বেসিক পে হবে ৫৭৩.৭৫ টাকা যা চলতি ফর্মুলার থেকে অনেকটাই কম।

    বিস্বস্ত সূত্রে জনা গিয়েছে, কমিশনের রফে এখনও কিছুই চূড়ান্ত হয়নি।

    First published: