দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

‌মানবতার কলঙ্ক, বাজি ভরা আনারস খেয়ে এক মাস ধরে যন্ত্রণা সয়েছিল কেরলের হাতিটি

‌মানবতার কলঙ্ক, বাজি ভরা আনারস খেয়ে এক মাস ধরে যন্ত্রণা সয়েছিল কেরলের হাতিটি
নিদারুণ যন্ত্রণা সয়ে এভাবেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছিল হাতিটি।

একদিকে গর্ভের সন্তান অন্য দিকে অস্বাভাবিক যন্ত্রণা, মুক্তি পেতে সে জলে নামে। ২৭ মে বিকেল ৪ টে নাগাদ তার মৃত্যু হয়।

  • Share this:

#তিরুঅনন্তপুরম: কয়েকজন মানুষের হিংস্রতা লজ্জিত করছে গোটা মানবজাতিকে। বাজিভরা বারুদ খাইয়ে এক গর্ভবতী হাতিকে হত্যার ঘটনায় এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলশি। লকডাউনের মধ্যেই এই ভয়াল হিংসার প্রতিবাদে সোচ্চার হয়ে উঠছেন বন্যপ্রাণপ্রেমী মানুষ। পাশাপাশি উঠে আসছে কেরলের মল্লপুরমে ওই হাতিটির যন্ত্রণার দুঃসহ কাহিনি।

তদন্তকারীদের অনুমান, এপ্রিলের শেষে বা মে মাসের শুরুতেই বাজিভর্তি আনারস খাইয়ে দেওয়া হয় হাতিটিকে। শুরু হয় মুখের ভিতর বাজি ফাটা। মুখ-পেট-সহ সারা শরীর ভয়াবহ ক্ষতিগ্রস্থ হয় হাতিটির। ওই অবস্থায় সে গ্রামের ভিতর ঘুরতে থাকে। কিন্তু মুখের গহ্বরে ফাটল ধরায় সে কিছু খেতে পারছিল না। খাওয়ার খোঁজে লোকালয়ে এসেছিল। মানুষের নৃশংতার সাক্ষ্য শরীরে নিয়ে সে আবার বনে ফিরে যায়। একদিকে গর্ভের সন্তান অন্য দিকে অস্বাভাবিক যন্ত্রণা, মুক্তি পেতে সে জলে নামে। ২৭ মে বিকেল ৪ টে নাগাদ তার মৃত্যু হয়।

বনবিভাগের এক অফিসার কেরলের ওই হাতিটির ছবি-সহ গোটা ঘটনার বিবরণ সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন। তিনি লিখেছিলেন, "যন্ত্রনায় ছফট করছিল সে। তবু কারও কোনও ক্ষতি করেনি হাতিটি। একটিও ঘরও ভাঙেনি সে। খিদের জ্বালায় ছটফট করেছে কিন্তু কিছু খেতে পারেনি ক্ষতর কারণে।"

Published by: Arka Deb
First published: June 3, 2020, 2:08 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर