Viral: খুব গরম, একটু ঠাণ্ডা হওয়া যাক! দেখুন হস্তীশাবকের গামলা-ভরা জলে স্নান!

Viral: খুব গরম, একটু ঠাণ্ডা হওয়া যাক! দেখুন হস্তীশাবকের গামলা-ভরা জলে স্নান!

অনেক গরম, একটু ঠাণ্ডা হওয়া যাক! ভাইরাল হস্তীশাবকের গামলা-ভরা জলে স্নানের ভিডিও!

ভিডিওটি ইতিমধ্যে ২৯০টিরও বেশি ReTweet হয়েছে এবং ২,০০০ এর বেশি Like পড়েছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: Twitter-এর দৌলতে কত ভিডিও আজকাল দেখা যায়, যেগুলিকে চুটিয়ে উপভোগ করেন নেটাগরিকরা। মুহূর্তে ভাইরাল হয় এই সব ভিডিও। ইতিমধ্যে এমনই একটি ভিডিও সারা ফেলেছে নেটপাড়ায়। একটি হস্তীশাবকের স্নানের দৃশ্য আনন্দ দিয়েছে নেটিজেনদের। মুহূর্তে মুহূর্তে বাড়ছে দেখার সংখ্যা, তার সঙ্গে তাল মিলিয়ে আসছে মানুষের প্রতিক্রিয়া। ৫১ সেকেন্ডের একটি ভিডিও Twitter-এ শেয়ার করেছেন ভারতীয় বন বিভাগের আধিকারিক সুশান্ত নন্দা। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, জল ভর্তি করা একটি গামলা। আর তার মধ্যেই মহানন্দে স্নানে মেতেছে একটি হস্তীশাবক। একে তীব্র গরম, তার উপরে ঠাণ্ডা জলের গামলা। আমাদের বাড়ির শিশুরাই জল দেখে শান্ত থাকতে পারে না, সেই মতো ছোট হাতিটিও ঠাণ্ডা জলের লোভ সামলাতে পারেনি। সে কী কাণ্ড, এদিক-ওদিক উল্টে-পাল্টে জল খেলায় মত্ত সে। মাঝে মাঝে শুঁড়ে করে জল তুলে গোটা গায়ে ছিটিয়েও নিচ্ছে। তবে বাচ্চাকে স্নান করতে ছেড়ে দিয়ে তার মা কিন্তু মোটেও দূরে চলে যায়নি। বরং গামলার আশেপাশেই ঘুরে বেরিয়েছে। সর্বক্ষণ তীক্ষ্ণ নজর ছিল সন্তানের দিকে, যাতে কোনও বিপদ না হয়। ভিডিওটি ইতিমধ্যে ২৯০টিরও বেশি ReTweet হয়েছে এবং ২,০০০ এর বেশি Like পড়েছে।

এই ভিডিও দেখে আনন্দিত হয়েছেন নেটাগরিকরা। আইএফএস অফিসার সুশান্ত নন্দাও ভিডিও শেয়ার করে লিখেছেন, ‘দেখুন এই তীব্র গরমে কে জলকেলিতে মেতেছে। সঙ্গে আবার রয়েছে মায়ের নজরদারিও।’ ভিডিওডিতে লাইক-কমেন্টের মাধ্যমে ওই হস্তীশাবকের জন্য ভালোবাসা জানিয়েছেন নেটাগরিকরা।

বিশেষ করে হস্তীশাবকের নানা মজার মুহূর্তের ভিডিও নেটাগরিকদের সব সময়েই পছন্দের। আর এমন ভিডিও সামনে এলে তাঁরাও চুটিয়ে প্রতিক্রিয়া দেন। ভারতীয় বন বিভাগের আধিকারিক সুশান্ত নন্দা Twitter-এ দীর্ঘ দিন ধরেই বেশ সক্রিয়। এর আগে তিনি একটি ভিডিও শেয়ার করেছিলেন, যেখানে দেখা গিয়েছিল একটি সিংহ পুকুরের জল থেকে একটি হাঁসকে ওঠাতে সাহায্য করছে। সেই ভিডিও বহু মানুষ পছন্দ করেন।

এই ভিডিও প্রমাণ করে, যে সিংহ হিংস্র হলেও ওরা ভালোবাসতে জানে না এমনটা নয়। আইএফএস অফিসারের মতে সিংহ ‘বেঁচে থাকার জন্যই হত্যা করে এবং উস্কে দিলে আক্রমণ করে’।

Published by:Raima Chakraborty
First published: