• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • দেশ
  • »
  • ELECTION FLYING SQUAD OFFICIALS SEIZED TWO CRORE RS CASH TRANSPORTED IN A VEHICLE FROM A HOUSE IN POLL BOUND PUDUCHERRY RC

উড়ছে টাকা ভোট-বাজারে, নগদ ২ কোটির সঙ্গে উদ্ধার ৩০ হাজার সেট টপ বক্স!

উড়ছে টাকা ভোট-বাজারে, নগদ ২ কোটির সঙ্গে উদ্ধার ৩০ হাজার সেট টপ বক্স!

প্রতীকী ছবি

কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে এক দফায় ভোটগ্রহণ হবে। ভোটগ্রহণ হবে ৬ এপ্রিল। এই ভোটের বাড়তি নজরদারির দায়িত্বে রয়েছেন ইলেকশন ফ্লাইং স্কোয়াডের সদস্যরা। যাঁদের কাজ ঘুরে ঘুরে বিভিন্ন ভোটমুখী এলাকায় নজর রাখা।

  • Share this:

    #পুদুচেরি: বিধানসভা নির্বাচনের মাসদেড়েক আগে পুদুচেরিতে পড়ে গিয়েছে কংগ্রেস সরকার। একের পর এক বিধায়কের ইস্তফার জেরে সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারিয়েছিলেন ভি নারায়ণস্বামীরা। পরে বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতার প্রমাণের দিন হার নিশ্চিত জেনে ওয়াক-আউট করেছিলেন সরকার পক্ষের বিধায়করা। দেড় মাসের জন্য সরকার গঠনের দাবি জানায়নি কোনও বিরোধী দল। ফলে আপাতত রাষ্ট্রপতি শাসনে আছে পুদুচেরি। সেই পরিস্থিতিতে কয়েকদিন আগেই বিধানসভা ভোটের নির্ঘণ্ট প্রকাশ করেছে নির্বাচন কমিশন।

    কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে এক দফায় ভোটগ্রহণ হবে। ভোটগ্রহণ হবে ৬ এপ্রিল। এই ভোটের বাড়তি নজরদারির দায়িত্বে রয়েছেন ইলেকশন ফ্লাইং স্কোয়াডের সদস্যরা। যাঁদের কাজ ঘুরে ঘুরে বিভিন্ন ভোটমুখী এলাকায় নজর রাখা। ভোটমুখী পুদুচেরিতে এবার সেই স্কোয়াডের হাতেই ধরা পড়ল ২ কোটি টাকা নগদ ও ২ কোটি টাকার প্রায় ৩০ হাজার সেট টপ বক্স। পুলিশ সূত্রে খবর, একটি গাড়িতে সেই নগদ টাকা পাচার করা হচ্ছিল। এবং পুদুচেরির একটি বাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে সেট টপ বক্সগুলি।

    বৃহস্পতিবার ইন্দিরা নগর বিধানসভা কেন্দ্র এবং ঠাট্টানচাভাদির কাদিরকামাম এলাকায় আচমকাই তল্লাশি চালান স্কোয়াডের সদস্যরা। সেখানেই একটি গাড়িতে টাকা পাচারের সময় ধরা পড়ে। এই ঘটনার পরই পুদুচেরির নির্বাচনি আধিকারিকের কাছে অভিযোগ জমা পড়েছে। সেখানকার মুখ্য নির্বাচনি আধিকারিক সুরবীর সিং জানিয়েছেন, ধরা পড়ার সময় গাড়ির যাত্রীরা দাবি করেন, তারা ব্যাঙ্কের কর্মী। যদিও কোনও প্রমাণপত্র হিসেবে কাগজ জমা দিতে পারেনি ধৃতরা।

    সন্দেহ করা হয় যে, ভোটের আগে ভোটারদের প্রভাবিত করার জন্যই এই টাকা ছড়ানো হতে পারে। ২ কোটি টাকায় নোট ছিল ৫০০, ২০০ ও ১০০ টাকার নোটে মিলিয়ে। এতে ভোটের মডেল আচরণবিধি ভঙ্গ হচ্ছে ভেবেই তাদেরকে গ্রেফতার করা হয় এবং টাকাগুলি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। গোটা টাকা আয়কর দফতরের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। তদন্ত শুরু করা হয়েছে। এমবালাম, নেট্টাপাক্কাম ও বাহুরের একটি বাড়ি থেকে প্রায় ২ কোটি টাকা মূল্যের ৩০ হাজার সেট টপ বক্স উদ্ধার করা হয়েছে।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published:
    0