Home /News /national /
Assembly Election 2022: ইন্ডোরে ছাড়, আউটডোরে 'না', কোভিড-কালে কঠোর নিয়মের জাঁতাকলে ভোটের প্রচার

Assembly Election 2022: ইন্ডোরে ছাড়, আউটডোরে 'না', কোভিড-কালে কঠোর নিয়মের জাঁতাকলে ভোটের প্রচার

কেমন হবে প্রচার?

কেমন হবে প্রচার?

Assembly Election 2022: নয়া নির্দেশিকায় কমিশন জানিয়েছে, ইন্ডোর সভায় সর্বাধিক ৩০০ জন জমায়েত হতে পারবেন। অথবা সভাকক্ষের ৫০ শতাংশ আসন নিয়ে সভা করা যাবে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: পাঁচ রাজ্যের বিধানসভা ভোটের প্রচারে রোড-শো এবং পদযাত্রায় নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়াল নির্বাচন কমিশন। উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, পাঞ্জাব, গোয়া এবং মণিপুরে নির্বাচন আসন্ন (Assembly Election 2022)। ওই রাজ্যগুলিতে আরও ৭ দিন বাড়ানো হলো ফিজিক্যাল জনসভার উপর নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ। তবে, ইনডোর সভার অনুমতি দেওয়া হল রাজনৈতিক দলগুলিকে। নয়া নির্দেশিকায় কমিশন জানিয়েছে, ইন্ডোর সভায় সর্বাধিক ৩০০ জন জমায়েত হতে পারবেন। অথবা সভাকক্ষের ৫০ শতাংশ আসন নিয়ে সভা করা যাবে।

আগামী ১০ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হবে পাঁচ রাজ্যের নির্বাচন পর্ব। শনিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ এবং পাঁচ রাজ্যের নির্বাচনী আধিকারিক ও মুখ্যসচিবদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠক করেন কেন্দ্রীয় মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুশীল চন্দ্র।ক্রমবর্ধমান করোনা সংক্রমণের কারণে নির্বাচনী জনসভা, জমায়েতে নিষেধাজ্ঞা জারি ছিল ১৫ই জানুয়ারি পর্যন্ত। এখন তার মেয়াদ ২২ জানুয়ারি পর্যন্ত বাড়ানো হল। গত ৮ জানুয়ারি উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, গোয়া, পাঞ্জাব এবং মণিপুরের বিধানসভা ভোটের নির্ঘণ্ট প্রকাশ করে কমিশন। সে সময়ই জানানো হয়, ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত রোড শো, পদযাত্রা অথবা বাইর মিছিল করা যাবে না। বলা হয়েছিল, ১৫ জানুয়ারির পর পরিস্থিতি পর্যালোচনা করবে নির্বাচন কমিশন। এ দিন সেই সময়সীমার শেষ দিনেই নতুন করে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়ানো হল।

আরও পড়ুন: হৃদযন্ত্রের সমস্যায় মরণাপন্ন তিন দিনের শিশু, সমস্ত দায়িত্ব নিজের কাঁধে নিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়

নির্বাচন পর্যবেক্ষণকারী দল আজ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব এবং পাঁচটি রাজ্যের মুখ্যসচিবদের সঙ্গে বৈঠক করে। বৈঠক শেষে ঘোষণা করা হয়, রাজনৈতিক দল বা প্রার্থীদের বা নির্বাচন সম্পর্কিত অন্য কোনও গোষ্ঠীর কোন সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না ২২ জানুয়ারি পর্যন্ত।

আরও পড়ুন: হঠাৎ ঝাঁকুনি, বিকট আওয়াজ, ভাঙা ফিসপ্লেট! বড় দুর্ঘটনা এড়াল ডাউন দত্তপুকুর লোকাল

তবে, রাজনৈতিক দলগুলোর কোনও ইন্ডোর সভার জন্য নিয়ম শিথিল করেছে কমিশন। কোনও প্রেক্ষাগৃহ, অডিটোরিয়াম, অনুষ্ঠান বাড়ির মতো ঘেরা জায়গায় আসনক্ষমতার ৫০ শতাংশ উপস্থিতি নিয়ে সভা করা হবে। সে ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৩০০ জন উপস্থিত থাকতে পারেন। কমিশন আরও বলেছে, রাজনৈতিক দলগুলি যথাযথ কোভিড বিধি এবং নির্দেশিকাগুলির মেনে চলা নিশ্চিত করবে। আদর্শ আচরণবিধি মেনে চলতে হবে।

Published by:Suman Biswas
First published:

Tags: Assembly Election, Election Commission

পরবর্তী খবর