প্রধানমন্ত্রীর কপ্টারে তল্লাশির নির্দেশ দিইনি, এখনও জানি না আমার অপরাধ, বিস্ফোরক দাবি IAS অফিসারের– News18 Bengali

প্রধানমন্ত্রীর কপ্টারে তল্লাশির নির্দেশ দিইনি, এখনও জানি না আমার অপরাধ, বিস্ফোরক দাবি IAS অফিসারের

এ দিন মহম্মদ মহসিন দাবি করেন, ডিউটির সময় তিনি ঠিক কোন আইন ভঙ্গ করেছেন, তা নির্বাচন কমিশন তাঁকে স্পষ্ট জানায়নি৷ একাধিক বার অনুরোধ করা সত্ত্বেও কমিশন তো দূর, জেলা প্রশাসনও তাঁকে জানায়নি, তাঁর বিরুদ্ধে ঠিক কী অভিযোগ রয়েছে৷

News18 Bangla
Updated:Apr 27, 2019 03:57 AM IST
প্রধানমন্ত্রীর কপ্টারে তল্লাশির নির্দেশ দিইনি, এখনও জানি না আমার অপরাধ, বিস্ফোরক দাবি  IAS অফিসারের
প্রধানমন্ত্রীর হেলিকপ্টার -- ফাইল ছবি
News18 Bangla
Updated:Apr 27, 2019 03:57 AM IST

#ভুবনেশ্বর: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হেলিকপ্টারে তল্লাশি চালানোর অভিযোগে মহম্মদ মহসিন নামে যে আইএএস অফিসারকে সাসপেন্ড করা হয়েছিল, শুক্রবার সেই আইএএস অফিসার দাবি করলেন, তিনি প্রধানমন্ত্রীর চপার চেক করার জন্য কোনও নির্দেশই দেননি৷ ঘটনার ১০ দিন পরেও কর্নাটকের ওই অফিসার নিজের অপরাধ সম্পর্কে কিছুই জানেন না৷

এ দিন মহম্মদ মহসিন দাবি করেন, ডিউটির সময় তিনি ঠিক কোন আইন ভঙ্গ করেছেন, তা নির্বাচন কমিশন তাঁকে স্পষ্ট জানায়নি৷ একাধিক বার অনুরোধ করা সত্ত্বেও কমিশন তো দূর, জেলা প্রশাসনও তাঁকে জানায়নি, তাঁর বিরুদ্ধে ঠিক কী অভিযোগ রয়েছে৷

News18-কে মহসিন বলেছেন, '১৬ এপ্রিলের র‌্যালির ভিডিওগ্রাফির নির্দেশ দিয়েছিলাম৷ কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর চপার তল্লাশির কোনও নির্দেশই দিইনি৷ যখন তল্লাশি হয়েছে, ওই সময় ঘটনাস্থলেও ছিলাম না৷' এমনকী তিনি এও দাবি করেছেন, প্রধানমন্ত্রী এসপিজি-র সঙ্গে আলোচনা করে, তারপরই ভিডিওগ্রাফি করা হবে৷ এসপিজি-র শ্রী উদয় নামে এক অফিসার ও সম্বলপুরের এসপি-র তাঁকে প্রধানমন্ত্রীর চপারের ভিডিওগ্রাফি করার বিষয়ে রাজি হন৷ কিন্তু একটি নির্দিষ্ট দূরত্ব থেকে৷ ওই আইএএস অফিসারের কথায়, 'আমার কাজ ছিল, নির্বাচন নিয়ে জেলা প্রশাসনের কাজের পর্যবেক্ষণ করা৷ একজন পর্যবেক্ষক হিসেবে৷ আমি কোনও নিয়ম ও নির্দেশ লঙ্ঘন করিনি৷ আমার সাসপেনশন অর্ডার বেআইনি ও ভিত্তিহীন৷ আমাকে কেউ কিছু জানায়নি৷'

প্রধানমন্ত্রীর চপারে তল্লাশিতে ওই আইএএস অফিসারের শাস্তির ওপর স্থগিতাদেশ জারি করেছে সেন্ট্রাল অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইবুনাল। অভিযোগ, গত সপ্তাহে ওড়িশা সফরের সময় প্রধানমন্ত্রীর চপারে তল্লাশি চালিয়েছিলেন আইএএস অফিসার মহম্মদ মহসিন। এসপিজি নিরাপত্তাপ্রাপ্তদের তল্লাশি চালানো যায় না, এই নিয়মকে শিখণ্ডী করে মহম্মদ মহসিনকে বরখাস্ত করে নির্বাচন কমিশন।

গত সপ্তাহে ওড়িশার সম্বলপুরে নির্বাচনী প্রচারে গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি। সেই সময় প্রধানমন্ত্রীকে দাঁড় করিয়ে রেখে হেলিকপ্টারে তল্লাশি চালানো হয়। যার জেরে গন্তব্যে পৌঁছতে ১৫ মিনিট দেরি হয় প্রধানমন্ত্রীর। এই খবর কমিশনের কাছে যেতেই, ১৯৯৬ সালের কর্নাটক ব্যাচের ক্যাডার মহম্মদ মহসিনকে সাসপেন্ড করে কমিশন। কমিশনের তরফে জানানো হয়, এসপিজি নিরাপত্তাপ্রাপ্ত ব্যক্তির তল্লাশি চালানো যায় না এ ভাবে। সেকারণেই তাঁকে সাসপেন্ড করা হয়েছিল৷

আরও ভিডিও: কলকাতা বিমানবন্দর থেকে চপারে চেপে ঠাকুরনগরে মোদি, দেখুন ভিডিও...

Loading...

First published: 09:52:09 PM Apr 26, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर