দেশ

corona virus btn
corona virus btn
Loading

৫০ রাউন্ড পর্যন্ত গণনা! বিহারে চূড়ান্ত ফল পেতে গভীর রাত, জানাল নির্বাচন কমিশন

৫০ রাউন্ড পর্যন্ত গণনা! বিহারে চূড়ান্ত ফল পেতে গভীর রাত, জানাল নির্বাচন কমিশন
বিহারে যে কোনও মুহূর্তে বদলে যেতে পারে সব সমীকরণ৷

২০১৫ সালে বিহারে বুথের সংখ্যা ছিল ৬৫ হাজারের কাছাকাছি৷ করোনার কারণে বুথে ভিড় কমাতে সেই সংখ্যা এবার বেড়ে হয়েছে ১ লক্ষ ৬ হাজার৷

  • Share this:

#পটনা: আমেরিকার ভোট গণনার চূড়ান্ত ফল জানতে লেগে গিয়েছিল তিন থেকে চার দিন৷ অতখানি না হলেও বিহারের চূড়ান্ত ফলাফল ঘোষণা হতে মঙ্গলবার গভীর রাত হয়ে যেতে পারে৷ নির্বাচন কমিশনের তরফেই এ কথা জানানো হয়েছে৷ কারণ করোনার জন্য সুরক্ষা বিধি মানতে গিয়ে ভোট গণনা প্রক্রিয়ায় বেশি সময় লাগছে৷ তার উপর করোনার কারণে বিহারে অনেকটা বেড়েছে বুথের সংখ্যা৷ ফলে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে ইভিএম-এর সংখ্যাও৷

২০১৫ সালে বিহারে বুথের সংখ্যা ছিল ৬৫ হাজারের কাছাকাছি৷ করোনার কারণে বুথে ভিড় কমাতে সেই সংখ্যা এবার বেড়ে হয়েছে ১ লক্ষ ৬ হাজার৷ অর্থাৎ ১ লক্ষ ৬ হাজার ইভিএম-এর গণনা করতে হবে৷ বিহারের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার এইচ এন শ্রীনিবাস জানিয়েছেন, সাধারণত ২৫ থেকে ২৬ রাউন্ড গণনা হয়৷ সেখানে এবার প্রতিটি বিধানসভা কেন্দ্রে ৫০ থেকে ৫১ রাউন্ড পর্যন্ত গণনা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে৷ প্রতিটি কেন্দ্রে গড়ে ৩৫ রাউন্ড করে গণনা হতে পারে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন৷ যে কারণে ভোটের চূড়ান্ত ফল জানতে রাত হয়ে যেতে পারে৷

শুধু বুথের সংখ্যা বৃদ্ধি নয়, ভোট গণনা কেন্দ্রগুলিতে ভিড় কমাতে গণনা কেন্দ্রের সংখ্যাও ৩৮ থেকে বেড়ে ৫৫ হয়েছে৷ বেড়েছে গণনা টেবলের সংখ্যাও৷ তার উপর প্রত্যেকটি ইভিএম খোলার আগে সেগুলি স্যানিটাইজ করতে হচ্ছে৷ সবমিলিয়ে ভোট গণনায় সময় লাগছে বেশি৷ তার উপরে সকাল থেকেই বিহারে এনডিএ এবং মহাজোটের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে৷

অন্যান্য বার বেলা ১২টা থেকে ১টার মধ্যে ফলের একটা আভাস পাওয়া যায়৷ কিন্তু এবার দুপুর গড়িয়ে গেলেও নিশ্চিত হতে পারছে না রাজনৈতিক দলগুলি৷ কারণ বহু আসনে সবথেকে বেশি ভোট পাওয়া প্রার্থী ৫০০ থেকে ১০০০ ভোটে এগিয়ে রয়েছেন৷ বিহারে ৪ কোটি ১০ লক্ষ ভোট পড়েছে৷ সেখানে বেলা একটা পর্যন্ত মাত্র ৯৫ লক্ষ ভোট গণনা হয়েছে৷ ফলে দীর্ঘক্ষণ ভোট গণনা চললে ফল যে কোনও মুহূর্তে বদলে যেতে পারে৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: November 10, 2020, 2:18 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर