শাবাশ দাদু! গাছের তলায় বিনা পয়সায় দিনের পর দিন পড়িয়ে চলেছেন এই বৃদ্ধ, চিনুন তাঁকে

শাবাশ দাদু! গাছের তলায় বিনা পয়সায় দিনের পর দিন পড়িয়ে চলেছেন এই বৃদ্ধ, চিনুন তাঁকে

হাজার সমস্যা, খারাপ আবহাওয়া সত্ত্বেও একদিনের জন্য তিনি বন্ধ হয়নি তাঁর পাঠশালা৷

হাজার সমস্যা, খারাপ আবহাওয়া সত্ত্বেও একদিনের জন্য তিনি বন্ধ হয়নি তাঁর পাঠশালা৷

  • Share this:

    #ভুবেনশ্বর: দীর্ঘ ৭৫ বছর ধরে চলছে এই বৃদ্ধের পাঠশালা৷ কোনও দিনই বন্ধ হয়নি তাঁর পাঠশালা৷ শুধু ছোটদের নয়, বড়দেরও পড়িয়ে চলেছেন এই বয়স্ক মানুষটি৷ নাম নন্দা প্রাস্টি৷ দিনের বেলায় ছোটদের পড়ান ও রাতে তিনি সময় করে নিয়েছেন বড়দের পড়ানোর জন্য৷

    বারতন্ডা গ্রামের বাসিন্দা এই বৃদ্ধ৷ সেখানকার গ্রামের প্রধান তাঁকে অনুরোধ করেছেন সরকারি সাহায্যের জন্য আবেদন জানাতে৷ যে সাহায্যে তিনি একটি স্কুল তৈরি করে শান্তিতে এবং সব সুবিধা সহ শিক্ষকতা করতে পারবেন৷ তবে সেই অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেছেন নন্দা প্রাস্টি৷ গাছের তলায় বসেই তিনি চালিয়ে যেতে চান তাঁর এই 'শান্তির' কাজ!

    'আমি চাষবাষের কাজ করতাম৷ তখন দেখতাম যে গ্রামের প্রচুর মানুষ অশিক্ষিত৷ তাঁরা নিজের নাম পর্যন্ত লিখতে পারেন না৷ আঙুলের ছাপ দিয়েই চলে তাঁদের কাজ৷ তাঁরা যাতে অন্তত পক্ষে নিজের নামটুকু লিখতে পারেন, তাই পড়াশোনা শেখাতে শুরু করেছিলাম৷ তারপর ধীরেধীরে গীতা পড়তে শুরু করি তাঁদের সামনে৷ তাঁদের পড়ার ইচ্ছে জাগে৷ সেখান থেকে শুরু আমার শিক্ষকতা৷ এখন আমি তাঁদের নাতি-নাতনিদের পড়াই৷ গর্বের সঙ্গে বলছেন শিক্ষক প্রাস্টি৷ তবে ক্লাস ফোরের পর সব শিশুকে প্রাইমারি স্কুলে যাওয়ার বিষয়ে জোর দেন বৃদ্ধ শিক্ষক৷ ওই গ্রামের সরপঞ্চ জানান, 'গত ৭৫ বছর ধরে সকলকে পড়িয়ে চলেছেন তিনি৷ তবে কোনও রকম সাহায্য নিতে চান না এমনকি সরকারি সাহায্যও নয়৷ তবে আমরা সকলে মিলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি পড়ানোর জন্য একটি পরিকাঠামো তৈরি করে দেব৷ যেখানে তিনি নিশ্চিন্তে পড়াতে পারবেন৷' হাজার সমস্যা, খারাপ আবহাওয়া সত্ত্বেও একদিনের জন্য বন্ধ হয়নি তাঁর পাঠশালা৷ জানান গ্রামের বাসিন্দারা৷
    Published by:Pooja Basu
    First published: