তুলসির মালা গলায় দিয়ে সাইকেল চেপে এলেন বর, দম্পতির বিয়ে যেন সবুজের সমারোহ

তুলসির মালা গলায় দিয়ে সাইকেল চেপে এলেন বর, দম্পতির বিয়ে যেন সবুজের সমারোহ

তুলসির মালা গলায় দিয়ে সাইকেল চেপে এলেন বর, দিল্লির ইকো ফ্রেন্ডলি দম্পতির বিয়ে যেন সবুজের সমারোহ!

সকলেই যে খবরের পাতা উল্টে পাশ ফিরে শুয়ে পড়েন না, সেটাই প্রমাণ করলেন এই প্রকৃতিপ্রেমী স্বামী-স্ত্রী।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: হোক না অতিমারী, নিমন্ত্রিত অতিথি আসতে পারবেন মাত্র ৫০ জন। তবু এই পরিস্থিতিতেও কোটি টাকা খরচ করে বিয়ে হওয়ার কমতি নেই। তবু তার মধ্যেই অনন্য নজির গড়লেন দিল্লির এক দম্পতি। পাত্র-পাত্রী দু'জনেই অত্যন্ত পরিবেশ সচেতন। তাই তাঁরা এমনভাবে গাঁটছড়া বাঁধতে চাননি যেটা পরিবেশের ক্ষতি হতে পারে। দিল্লিতে দূষণের মাত্রা লাগামছাড়া, তাছাড়া এমনিতেও বিশ্ব জুড়ে পরিবেশ সংক্রান্ত সমস্যার শেষ নেই। সেক্ষেত্রে এই গ্রিন ওয়েডিং এক অন্য রকম মাত্রা যোগ করল। সকলেই যে খবরের পাতা উল্টে পাশ ফিরে শুয়ে পড়েন না, সেটাই প্রমাণ করলেন এই প্রকৃতিপ্রেমী স্বামী-স্ত্রী।

কনে মাধুরী বালোডি আর বর আদিত্য আগরওয়াল আগেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যে তাঁদের বিয়ে হবে ইকো ফ্রেন্ডলি। সেখানে এমন কিছু করা হবে না যাতে পরিবেশের ক্ষতি হয়। যেমন ভাবা, তেমন কাজ। তাই মস্ত গাড়ি নয়, ৩২ বছরের বর বেছে নিলেন ইউলু বাইক। এটি একটি বিদ্যুৎ চালিত বাইক। ফলে দূষণ হওয়ার প্রশ্ন নেই।

কনে নিজে একজন সমাজকর্মী। মূলত তাঁর অনুপ্রেরণাতেই এই ইকো ফ্রেন্ডলি বিয়ের ভাবনার জন্ম হয়। বিয়েবাড়ির সাজগোজেও কোনও প্লাস্টিকের ফুল ব্যবহার করা হয়নি। বিয়েবাড়ি সাজানো হয়েছে রিসাইকেল করা পরিবেশবান্ধব জিনিসপত্র দিয়েই।

View this post on Instagram

A post shared by आदि (@aadityaagg)

বিয়ের আনন্দে ভেসে বর্তমান সঙ্কটজনক পরিস্থিতির কথা ভুলে যাননি বর-কনে। তাই সামাজিক দূরত্ব বিধি মাথায় রেখে খুব কম সংখ্যক অতিথিকে নিমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। মালা বদলের সময়ে পরস্পরকে তুলসির মালা পরিয়ে দিয়েছেন আদিত্য ও মাধুরী। বিয়ের কার্ড মানেও পরিবেশের ক্ষতি। কারণ যত কাগজ, তত গাছের মৃত্যু। ফলে কবে কোথায় বিয়ে হচ্ছে এই সংক্ষিপ্ত বার্তা WhatsApp-এ ছড়িয়ে দিয়েই দায়িত্ব সেরেছেন তাঁরা।

সবচেয়ে আকর্ষণীয় বিষয় হল এই বিয়েতে অথিতিদের রিটার্ন গিফট হিসাবে দেওয়া হয়েছে একটি করে গাছ। যাঁরা উপহার এনেছেন তাঁরাও দম্পতির মনোভাবের কথা মাথায় রেখে উপহার এনেছেন খবরের কাগজে মুড়ে। কোনও প্লাস্টিক বা কৃত্রিম র‍্যাপার ব্যবহার করা হয়নি। কোটি টাকার ঝলমলে বিয়ের প্রচলনের মধ্যে মাত্র ২ লক্ষ টাকাতেই সব সেরেছেন তাঁরা।

View this post on Instagram

A post shared by आदि (@aadityaagg)

মাধুরীর কাছে বিয়ে মানে নির্মল আনন্দ। আর তার জন্য বেশি টাকার প্রয়োজন হয় না বলেই তিনি মনে করছেন। পাত্র যদিও একটু নার্ভাস ছিলেন এই ভেবে যে লোকে এই নিয়ে ঠাট্টা না করে! তবে সকলেই এই গ্রিন ওয়েডিংকে স্বাগত জানিয়েছেন।

Written By: Doyel

Published by:Swaralipi Dasgupta
First published:

লেটেস্ট খবর