স্কুলে বসে দেদার মদ্যপান, পড়ুয়াকে নির্দেশ পোশাক খুলে দাঁড়ানোর, ‘শিক্ষকের’ Viral Video

At least one student said he was asked by the teacher to strip as punishment.-Photo- Video grab

স্কুলের মধ্যেই অশ্লীল ব্যবহার করত এ কেমন শিক্ষক!!!

  • Share this:

    #বিশাখাপত্তনম: অন্ধ্রপ্রদেশের সরকারি স্কুলের শিক্ষক ক্লাসের মধ্যেই কেলেঙ্কারি কাণ্ড ঘটিয়ে ফেললেন৷ ক্লাস বসেই মদ্যপান এবং পড়ুয়ার সঙ্গে অসভ্যতার ঘটনা ঘটিয়ে ফেললেন সেই অভিযুক্ত৷ তার এই লজ্জার কাজের ভিডিও সম্প্রতি নানা মহলে ভাইরাল হয় , তা পৌঁছয় প্রশাসনিক দফতর অবধি ৷ তারপরেই নেমে আসে শাস্তির খাঁড়া৷ সাসপেন্ড করে দেওয়া হল শিক্ষককে৷ এক পড়ুয়া অভিযোগ করেছে মদ্যপ শিক্ষক তাকে শাস্তি হিসেবে পোশাক খুলে ফেলতে নির্দেশ দিয়েছিলেন৷

    কৃষ্ণা জেলার পালক মন্ডলের কৃষ্ণপুরমে স্কুলের শিক্ষক কে কোটেশ্বর রাওকে মন্ডল পরিষদ সাসপেন্ড করেছে৷ শিক্ষক মদ্যপ অবস্থায় স্কুলে এসেছিল তারওপর আবার ক্লাসের মধ্যে বসেই মদ খাচ্ছিল অভিযুক্ত শিক্ষক৷

    সম্প্রতি যে ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় (social media) ও মেসেজিং অ্যাপে ভাইরাল হয়েছে সেখানে দেখা যাচ্ছে মিস্টার রাও স্কুলের স্টাফরুমে বসে খাবার খাচ্ছে পাশে টেবলে রাখা হয়েছে একটি মদের বোতল৷ সেই অবস্থায় ওই শিক্ষক একজন অভিভাবককে যা তা কথা বলছেন কারণ সেই অভিভাবক তাকে কোনও একটা প্রশ্ন এসেছিল৷

    সেই অভিভাবক যখন তাকে বলেন যে তিনি এই ঘটনার ভিডিও রেকর্ডিং করবেন তখনও হম্বিতম্বি জারি থাকে তাঁর৷ সেই মহিলার সামনে নিজের পোশাক খুলে ফেলার প্রস্তাব দিয়েছিল ওই শিক্ষক৷ এটাই একমাত্র ঘটনা নয়৷ এর আগে নিজের পড়ুয়াকে পোশাক খুলে ফেলার কু প্রস্তাব দিয়েছিল৷

    পড়ুয়ারা জানিয়েছে ওই শিক্ষক নিয়মিত মদের বোতল অফিসের টয়লেটে কিম্বা আলমারিতে লুকিয়ে রাখত৷ আর মদ থেকে যখন মত্ত হয়ে যেত তখন স্কুলের মধ্যেই অশ্লীল ব্যবহার করত৷

    শিক্ষকের এই ব্যবহারে অভিভাবকদের একটা বড় অংশ অসহিষ্ণু হয়ে এই ভিডিও তৈরির ব্যবস্থা করে৷ তারপর সেই ভিডিও শিক্ষা দক্ষতরের কাছে পাঠিয়ে দেওয়া হয়৷ পরিবারের মতে এই সব চোখের সামনে দেখায় পড়ুয়াদের মধ্যে অত্যন্ত কুপ্রভাব পড়েছে৷ অভিযুক্ত শিক্ষকের কাছ থেকে পুরো বিষয়টির কারণ দর্শাতে বলা হয়েছ৷

    Published by:Debalina Datta
    First published: