আহত যাত্রীর প্রাণ বাঁচাতে ১ কিলোমিটার পথ ট্রেন পিছোলেন চালক

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Apr 29, 2019 03:48 PM IST
আহত যাত্রীর প্রাণ বাঁচাতে ১ কিলোমিটার পথ ট্রেন পিছোলেন চালক
File Photo
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Apr 29, 2019 03:48 PM IST

#জয়পুর: গত শুক্রবার মানসিক ভারসাম্যহীন দাদা রাজেন্দ্রকে সঙ্গে নিয়ে কোটা-বীনা এক্সপ্রেসে চেপেছিলেন বিনোদ ৷ আর সেখানেই ঘটে বিপদ ৷ মাধপথেই ট্রেন থেকে ঝাঁপ দেন রাজেন্দ্র ৷ দাদাকে বাঁচাতে ট্রেন থেকে ঝাঁপ দেন ভাই বিনোদও ৷ তাঁদের সঙ্গে ছিলেন সুরেশ বর্মা নামে এক তুতো ভাই। তিনি জানিয়েছেন রাজেন্দ্র বর্মা মধ্যপ্রদেশে শ্রমিকের কাজ করতেন। গত পাঁচ দিন ধরে তাঁর মানসিক অবস্থা ভাল ছিল না। গত ২৪ এপ্রিল দাদাকে নিতে সুরেশ এবং বিনোদ মধ্য প্রদেশের শিকার জেলায় গিয়েছিলেন।

সেখান থেকে জয়পুরগামী ট্রেন ধরেন তাঁরা। ২৫ এপ্রিল ভোর সাড়ে তিনটে নাগাদ রাজেন্দ্র অশোক নগর স্টেশনে চলন্ত ট্রেন থেকে ঝাঁপ দেন। দাদাকে ধরতে চেন টেনে ট্রেন থামান তাঁরা। তার জন্য রেলপুলিস তাঁদের জরিমানাও করে। দাদাকে নিয়ে যেখান থেকে আবার জয়পুরের ট্রেন ধরেন তাঁরা। সেই ট্রেন যখন সলপুরা এলাকা দিয়ে যাচ্ছিল তখন আচমকা রাজেন্দ্র আপার বার্থ থেকে নেমে ঝাঁপ দেন।

তাঁকে ধরতে বিনোদও ট্রেন থেকে ঝাঁপ দেন। চলন্ত ট্রেন থেকে পড়ে দুজনেই আহত হন। রাজেন্দ্রকে ঝাঁপ দিতে দেখে ট্রেনের এক যাত্রী চেন টেনে ট্রেন থামান। তাঁদের অ্যাম্বুলেন্সে পৌঁছে দিতে প্রায় এক কিলোমিটার পর্যন্ত রাস্তা পিছোয় ট্রেন। আহতদের নিয়ে নিকটবর্তী স্টেশনে পৌঁছে দেওয়া হয়। সেখান থেকে অ্যাম্বুলেন্সে করে দুই ভাইকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এমন নজির অতি বিরল বলে জানা গিয়েছে ৷

First published: 03:43:25 PM Apr 29, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर