Home /News /national /
শব্দের চেয়েও ছ'গুণ জোরে আঘাত হানবে মিসাইল!সফল হাইপারসনিক পরীক্ষা, বিশ্বের প্রথম চারে ভারত

শব্দের চেয়েও ছ'গুণ জোরে আঘাত হানবে মিসাইল!সফল হাইপারসনিক পরীক্ষা, বিশ্বের প্রথম চারে ভারত

এই হাইপারসনিক মিসাইলের বিশেষত্ব কী? বিজ্ঞানীরা জানান দিচ্ছেন শব্দের চেয়েও ছয়গুণ জোরে যেতে পারে এই হাইপারসোনিক প্রযুক্তির মিসাইল।

  • Last Updated :
  • Share this:

সোমবার সফল ভাবে হাইপারসোনিক টেকনোলজি ডেমোনস্ট্রেটার ভেহিক্যাল (HSTDV) উৎক্ষেপণ করল ডিআরডিও। প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহের কথায় ভারতের এই পদক্ষেপ মাইলফলক। কারণ এই যান উৎক্ষেপণরে মধ্যে দিয়ে ভারত জায়গা করে নিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়া ও চিন এই ত্রয়ীর পাশে। হ্যাঁ দূরপাল্লার মিসাইল বহনকারী এই যান উৎক্ষপেন নজির আর কোনও দেশের নেই।

সোমবার সকালে বালাসোরের এপিজে আব্দুল কালাম টেস্টিং রেঞ্জ থেকে অগ্নি মিসাইল বুস্টারের সহযোগিতায় এই যানটিকে উৎক্ষপণ করা হয়। দেখা যায় অগ্নি থেকে বিচ্ছন্ন হয়ে সফল ভাবেই স্ক্র্যামজেট ইঞ্জিন চালু করা সম্ভব হচ্ছে।

রাজনাথ সিং ঘটনার বিবৃতি দিয়ে বলেন, আমি ডিআরডিও-এর গোটা টিমকে এই যুগান্তকারী পরিকল্পনার জন্য অভিনন্দন জানাই। প্রধানমন্ত্রীর আত্মনির্ভরতার স্বপ্নের দিকে আরও অগ্রসর হতে পারলাম এই সাফল্যের মধ্যে দিয়েই। এই অভাবনীয় কাজের সঙ্গে জড়িত সমস্ত বিজ্ঞানীদের আমি অভিনন্দন জানিয়েছি। ভারত তাঁদের নিয়ে গর্বিত।"

উল্লেখ্য দেশি পদ্ধতিতে তৈরি এই হাইপারসনিক যানই বহন করবে হাইপারসনিক মিসাইলটি যা আগামী পাঁচ বছর তৈরি হয়ে যাবে।

প্রশ্ন হল, এই হাইপারসনিক মিসাইলের বিশেষত্ব কী? বিজ্ঞানীরা জানান দিচ্ছেন শব্দের চেয়েও ছয়গুণ জোরে যেতে পারে এই হাইপারসোনিক প্রযুক্তির মিসাইল। উল্লেখ্য সুপারসনিক অস্ত্র যেমন ব্রহ্মসও শব্দের চেয়ে জোরে ছোটে। কিন্তু এ ক্ষেত্রে এই মিসাইল প্রতি সেকেন্ডে এক মাইলেরও বেশি গতিতে ছুটবে অর্থাৎ শব্দের চেয়ে ছয়গুণ জোরে ছুটতে সক্ষম হবে এই অস্ত্র।

ভারতীয় কূটনীতিবিদরা বলছেন, বেজিংয়ের সঙ্গে চোখে চোখ রেখে লড়াইয়ের দিনে এই নেক্সট জেন অস্ত্রের দিকে আরও এক পা এগিয়ে যাওয়া ভারতের শক্তি সম্পর্কে বিশেষ বার্তা দেবে। ড্রাগনের চোখরাঙানি রুখতে তাই উঠেপড়ে লেগেছে ভারত।

Published by:Arka Deb
First published:

Tags: DRDO