কিশোরীর দেহ খুবলে খাচ্ছে কুকুর, উত্তর প্রদেশের সরকারি হাসপাতালের ভিডিও ভাইরাল!

দেহ খুবলে খাচ্ছে কুকুর৷ Photo-Twitter

বৃহস্পতিবারই সম্ভল জেলার একটি হাসপাতালে এই ঘটনা ঘটেছে৷ জানা গিয়েছে, পথ দুর্ঘটনায় আহত ওই কিশোরীকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়৷

  • Share this:

    #সম্ভল: ট্রলিতে সাদা চাদরে ঢাকা রয়েছে এক কিশোরীর দেহ৷ আর তা খুবলে খাচ্ছে একটি কুকুর৷ উত্তর প্রদেশের সম্ভলের একটি সরকারি হাসপাতালের এমন ভিডিও ভাইরাল হতেই গোটা রাজ্য জুড়ে ক্ষোভ ছড়িেয়ছে৷ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও৷ সমাজবাদী পার্টির পক্ষ থেকেও এই ঘটনার ভিডিও ট্যুইট করা হয়েছে৷ তবে ভিডিও-টির সত্যতা যাচাই করেনি নিউজ ১৮ বাংলা৷

    জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবারই সম্ভল জেলার একটি হাসপাতালে এই ঘটনা ঘটেছে৷ জানা গিয়েছে, পথ দুর্ঘটনায় আহত ওই কিশোরীকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়৷ তবে হাসপাতালে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে কি না, তা স্পষ্ট নয়৷ কুড়ি সেকেন্ডের ভিডিও-তে দেখা যাচ্ছে, ট্রলির উপরে উঠে চাদরের নীচ থেকে দেহ খুবলে খাচ্ছে এক পথ কুকুর৷

    হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, হাসপাতাল চত্বরে কুকুরের উপদ্রবের কথা স্থানীয় পুরসভাকে জানানো হলেও কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি৷ হাসপাতালের সুপার জানিয়েছেন, ওই কিশোরীর পরিবার ময়নাতদন্ত করাতে রাজি হয়নি৷ তাই তাঁদের হাতে দেহ তুলে দেওয়া হয়৷ সম্ভবত পরিবারের লোকজন দেহ কিছুক্ষণ ফেলে কোথাও চলে যাওয়াতেই সেই সুযোগে কুকুরটি দেহ খুবলে খেয়েছে বলে অজুহাত দেওয়ার চেষ্টা করেছেন হাসপাতালের কর্তারা৷ তবে এই ঘটনায় একজন সাফাইকর্মী এবং ওয়ার্ড বয়কে সাসপেন্ড করা হয়েছে৷ তদন্ত কমিটিও গঠিত হয়েছে৷ পাশাপাশি এমার্জেন্সি বিভাহে কর্তব্যরত চিকিৎসক ও ফার্মাসিস্ট-এর ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে৷

    যদিও মৃত কিশোরীর বাবা চরণ সিং-এর অভিযোগ, প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে তাঁর মেয়ের দেহ ফেলে রাখা হয়েছিল৷ হাসপাতালের কোনও কর্মী সেদিকে নজর দেননি৷ ঘটনায় অভিযুক্তদের কড়া শাস্তির দাবি জানিয়েছে সমাজবাদী পার্টি৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: