'বিষক্রিয়া'য় অসুস্থ নাভালনির রুশ চিকিৎসকের আচমকা মৃত্যুতে বিতর্ক!

'বিষক্রিয়া'য় অসুস্থ নাভালনির রুশ চিকিৎসকের আচমকা মৃত্যুতে বিতর্ক!
নাভালনি

সার্জেই ম্যাক্সিমিশিন নামের ওই ডাক্তার ওমস্ক এমারজেন্সি হাসপাতালের চিফ ফিজিশিয়ান হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন৷ মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৫ বছর৷

  • Share this:

    #রাশিয়া: রাশিয়ার বিরোধী রাজনীতির অন্যতম মুখ বলে পরিচিত অ্যালেক্সেই নাভালনি৷ গত অগস্টে আচমকা অসুস্থ হয়ে পড়ায় নাভালনিকে চিকিৎসার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। তাঁর উপরে বিষপ্রয়োগের অভিযোগ ওঠে ভ্লাদিমির পুতিন প্রশাসনের বিরুদ্ধে। যে ডাক্তার নাভালনিকে সেই সময় চিকিৎসা করেছিলেন, আচমকাই বৃহস্পতিবার তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে খবর৷ এদিন হাসপাতালের তরফেই এই খবর ঘোষণা করা হয়েছে৷ আর এই মৃত্যু নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক৷ আচমকা একজন সুস্থ মানুষ কী ভাবে মরেই গেলেন, তার কোনও সদুত্তর দিতে পারেনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷

    সার্জেই ম্যাক্সিমিশিন নামের ওই ডাক্তার ওমস্ক এমারজেন্সি হাসপাতালের চিফ ফিজিশিয়ান হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন৷ মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৫ বছর৷ হাসপাতালের বিবৃতিতে এমনই ঘোষণা করা হয়েছে৷ মৃত্যুর কারণ না জানিয়েই একটি বিবৃতি জারি করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷ সেখানে বলা হয়েছে, 'দুঃখের সঙ্গে জানানো হচ্ছে যে, অ্যানেস্থেশিওলজি এবং রিসাসিটেশন বিভাগের ডেপুটি চিফ ফিজিশিয়ান, ওমস্ক স্টেট ম্যাডিকাল ইউনিভার্সিটির অ্যাসিস্টেন্ট, মেডিক্যাল সায়েন্সের এ পিএইচডি সার্জেই ম্যাক্সিমিশিন আচমকাই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন৷'

    গত ২০ অগস্টে ওমস্ক এমারজেন্সি হাসপাতালের বিষক্রিয়া বিভাগে দায়িত্বে ছিলেন তিনি৷ সেই সময়ই সাইবেরিয়ার তোমাস্ক শহর থেকে বিমানে মস্কো আসছিলেন নাভালনি। বিমানবন্দরে তিনি এক কাপ চা খান। তার পরেই বিমানে উঠে মাঝআকাশে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। ঘামতে শুরু করেন। তাঁর সহকারী বলেছেন, 'উনি আমায় কথা বলতে বলেছিলেন। যাতে উনি বুঝতে পারেন, উনি সব শব্দ ঠিকঠাক শুনতে আর বুঝতে পারছেন কি না। তার পরেই বিমানের শৌচাগারে যান আর সেখানে অচেতন হয়ে পড়েন।' নাভালনিকে হাসপাতালে ভর্তি করার সময় ম্যাক্সিমিশিনই দায়িত্বে ছিলেন৷ যদিও সেই সময় কোনও প্রেস বিবৃতি তিনি দেননি৷


    নাভালনির উপরে বিষপ্রয়োগের অভিযোগ ওঠে ভ্লাদিমির পুতিন প্রশাসনের বিরুদ্ধে। কিছুদিন আগে এই পুতিন-বিরোধী নেতা ঘোষণা করেছিলেন, রুশ প্রশাসনের গ্রেফতারির হুমকি সত্ত্বেও, তিনি রাশিয়া ফিরবেন। এর পর রাশিয়ার কারা বিভাগ (এফএসআইএন)-এর তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, নাভালনি বার্লিন থেকে মস্কো ফিরলেই তাঁকে গ্রেফতার করা হবে। সেই মতো মস্কোর যে বিমানবন্দরে নাভালনির বিমানটির নামার কথা ছিল, সেখানে সকাল থেকে কড়া পুলিশি নিরাপত্তায় ঘিরে ফেলা হয়। বড় বড় ধাতব প্রাচীর বসানো হয় বিমানবন্দরের ভিতরে। বিমানবন্দরে যাতায়াতও নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছিল। তবে বিমানবন্দরের বাইরে নাভালনির সমর্থকেরা ভিড় করতে শুরু করলে ঝুঁকি নেয়নি প্রশাসন। নাভালনির বিমানটিকে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়, সেরেমেটিয়েভো বিমানবন্দরে। সেখানে অবতরণের পরেই পুলিশ আটক করে পুতিন-বিরোধী এই নেতাকে। আটকের আগে সমর্থকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, 'জানি, আমি ঠিক পথেই আছি। আমি কোনও কিছুকেই ভয় পাই না।'

    ম্যাক্সিমিশিন নাভালনির পরস্থিতি সবচেয়ে কাছ থেকে সেই সময় দেখেছিলেন৷ ডাক্তারের মৃত্যুর পরই রাশিয়ার স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে৷ ওমস্ক হাসপাতালে প্রায় ২৮ বছর ধরে চিকিৎসা করেছেন ম্যাক্সিমিশিন৷ যদিও এই মৃত্যু নিয়ে কোনও তদন্ত হবে কিনা তা জানা যায়নি৷

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: