‘দুর্গাপুজোয় চিটফাণ্ডের টাকা খাটে, কিন্তু তাতে এত চিৎকারের কি আছে?’ আয়কর নিয়ে তৃণমূলের প্রতিবাদে দিলীপের কটাক্ষ

পুজোয় আয়কর নোটিসের প্রতিবাদে ধর্ণায় বসেছে তৃণমূলের বঙ্গজননী। সেই কর্মসূচি নিয়ে পাল্টা কটাক্ষ গেরুয়া শিবিরের।

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 13, 2019 07:14 PM IST
‘দুর্গাপুজোয় চিটফাণ্ডের টাকা খাটে, কিন্তু তাতে এত চিৎকারের কি আছে?’ আয়কর নিয়ে তৃণমূলের প্রতিবাদে দিলীপের কটাক্ষ
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Aug 13, 2019 07:14 PM IST

#কলকাতা: দুর্গাপুজোর চালচিত্রে রাজনীতির লড়াই। দিলীপ ঘোষের নিশানায় তৃণমূল। পুজোয় আয়কর নোটিসের প্রতিবাদে ধর্ণায় বসেছে তৃণমূলের বঙ্গজননী। সেই কর্মসূচি নিয়ে পাল্টা কটাক্ষ গেরুয়া শিবিরের।

দুর্গাপুজোয় আয়কর নোটিস ধরানো প্রসঙ্গে দিলীপ এদিন বলেন, 'দুর্গাপুজোয় চিটফান্ডের টাকা ছিল। তাই, সেই সব ক্লাবকে আয়কর নোটিস ধরানো হয়েছে। কিন্তু পুজোয় কোনও বাধা দেওয়া হবে না। আয়কর নোটিস নিয়ে এত ভয়ের কি আছে? আয়কর নোটিস নিয়ে সব চেয়ে বেশি চিৎকার করছেন ‘উনি’। তার অর্থ ডাল মে কুছ কি কালা হ্যায়?' মঙ্গলবার বারাসতে সদস্য সংগ্রহ কর্মসূচিতে এসে এমনই মন্তব্য করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

২০২১ এর আগে রাজ্যের তৃণমূল সরকারকে বিজেপি ফেলতে পারবে কি না, সে প্রশ্নে নিরুত্তর দিলীপ। তার পালটা দাবি, 'শাসক দল ভয় পেয়েছে। তাই পুরসভা ও কলেজের ছাত্র সংসদ ভোট করাচ্ছে না। যেখানেই ভোট হচ্ছে, সেখানেই বিজেপি জিতছে। আমাদের শেখানো পদ্ধতি প্রশান্ত কিশোর ওদের শেখাচ্ছে। তাতে কোনও লাভ হবে না। এক গাছের ছাল আরেক গাছে লাগে না।'

এদিন দিলীপ ঘোষের সদস্য সংগ্রহ কর্মসূচিতে হাজির ছিলেন বাগদার বিধায়ক দুলাল বর, বিজেপির বারাসত সাংগঠনিক জেলার সভাপতি শঙ্কর চট্টোপাধ্যায়-সহ অন্যরা। সেখানে কর্মীদের সঙ্গে দিলীপ একটি রুদ্ধদ্বার বৈঠকও করেন।

First published: 07:14:01 PM Aug 13, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर