• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • DG NDRF CLAIMS THAT MANY LIVES HAVE BEEN SAVED IN AIR INDIA FLIGHT CRASH BY THE PILOT DMG

পাইলটের চেষ্টাতেই কোঝিকোড়ে বেঁচেছে বহু প্রাণ, দাবি এনডিআরএফ প্রধানের

এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমান৷

ভারতীয় বাযুসেনার অবসরপ্রাপ্ত উইং কমান্ডার ছিলেন ক্যাপ্টেন সাঠে৷ এয়ার ইন্ডিয়ায় যোগ দেওয়ার আগে তিনি আইএএফ-এর এক্সপেরিমেন্টাল টেস্ট পাইলট ছিলেন তিনি৷

  • Share this:

    #কোঝিকোড়:  ভুল নয়, বরং পাইলটের চেষ্টাতেই কোঝিকোড়ের দুর্ঘটনায় আরও বেশি প্রাণহানি এড়ানো সম্ভব হয়েছে৷ এমনই দাবি করলেন এনডিআরএফ-এর ডিজি এস এন প্রধান৷ তাঁর দাবি, দুর্ঘটনার আগের মুহূর্ত পর্যন্ত বিমানের গতি কমানোর একাধিক চেষ্টা করেন পাইলট দীপক বসন্ত সাঠে৷ শেষ পর্যন্ত দুর্ঘটনা এড়ানো না গেলেও বিমানের গতি কমে যাওয়ায় আরও বেশ ক্ষয়ক্ষতি এড়ানো সম্ভব হয়েছে৷ এই দুর্ঘটনায় অবশ্য পাইলট এবং কো- পাইলট দু' জনেরই মৃত্যু হয়েছে৷

    এনডিআরএফ-এর ডিজি বলেন, 'আপাত দৃষ্টিতে মনে হচ্ছে পাইলট বিমানের গতি কমানোর একাধিক চেষ্টা করেছিলেন, যে কারণে অনেক প্রাণ বেঁচেছে৷' এর পাশাপাশি এনডিআরএফ-এর ডিজি জানিয়েছেন, বিমান দুর্ঘটনার খবর যখন এসে পৌঁছয় তখন জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যরা মাল্লাপ্পুরমে হওয়া বন্যা উদ্ধারকাজ চালাচ্ছিলেন৷ ফলে সেখান থেকে লোকবল এবং যন্ত্রপাতি কোঝিকোড়ে এনে উদ্ধারকাজ শুরু করা যথেষ্ট কঠিন ছিল৷ তিনি আরও বলেন, 'আমাদের ভাগ্য ভাল যে বিমানটিতে আগুন ধরে যায়নি৷ উদ্ধারকাজের শেষ পর্যায়েও আমরা সংজ্ঞাহীন অবস্থায় দুই যাত্রীকে উদ্ধার করি৷'

    শুক্রবার রাতে কোঝিকোড়ের কারুইপুর বিমানবন্দরে অবতরণের সময় দুবাই থেকে আসা এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের বিমানটি রানওয়ে থেকে পিছলে খাদে গিয়ে পড়ে৷ ভয়াবহ এই বিমান দুর্ঘটনায় এখনও পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৯৷

    দুর্ঘটনায় মৃত পাইলট দীপক বসন্ত সাঠে ভারতীয় বায়ুসেনার প্রাক্তন কম্যান্ডার ছিলেন৷ বিমান চালানোর অভিজ্ঞতা ছিল যথেষ্ট৷ ভারতীয় বায়ুসেনার প্রাক্তন এই উইং কম্যান্ডারে ‘সোর্ড অফ অনার’ পুরস্কারও পেয়েছিলেন৷ এয়ার ফোর্স অ্যাকাডেমি থেকে পাশ করার সময়েই এই অ্যাওয়ার্ড জিতেছিলেন তিনি৷

    ভারতীয় বাযুসেনার অবসরপ্রাপ্ত উইং কমান্ডার ছিলেন ক্যাপ্টেন সাঠে৷ এয়ার ইন্ডিয়ায় যোগ দেওয়ার আগে তিনি আইএএফ-এর এক্সপেরিমেন্টাল টেস্ট পাইলট ছিলেন৷ ১৯৯১ সালের এপ্রিল মাসে ভারতীয় বায়ুসেনায় যোগ দিয়েছিলেন সাঠে৷ ২০০৩ সাল পর্যন্ত এক্সপেরিমেন্টাল টেস্ট পাইলট হিসেবে কাজ করেছিলেন৷ তারপর থেকে মুম্বইয়ের বাসিন্দা ক্যাপ্টেন দীপক সাঠে এয়ার ইন্ডিয়ার যাত্রীবাহী বিমানে পাইলট হিসেবে কাজ করতেন৷ শনিবারও এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের যে বোয়িং-৭৩৭ বিমান নিয়ে তিনি কালিকটে ফিরছিলেন, সেই বিমান চালানোর যথেষ্ট অভিজ্ঞতা ছিল তাঁর৷ এর পাশাপাশি এয়ারবাস ৩১০-ও উড়িয়েছেন সাঠে৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: