corona virus btn
corona virus btn
Loading

তীব্র ধোঁয়াশায় বিপর্যস্ত রাজধানী, দৃশ্যমান্যতা কমে যাওয়ায় বাড়ছে দুর্ঘটনা !

তীব্র ধোঁয়াশায় বিপর্যস্ত রাজধানী, দৃশ্যমান্যতা কমে যাওয়ায় বাড়ছে দুর্ঘটনা !
Photo: PTI

যমুনা এক্সপ্রেসওয়ের উপর পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় একজনের।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: কয়েকদিন ধরেই রাজধানীর আকাশ মুড়ে রয়েছে ধোঁয়াশায়। কিন্তু এবার শীত পড়তে না পড়তেই তা মাত্রা ছাড়িয়েছে। দূষণের মাত্রা এতটাই তীব্র আকার ধারণ করেছে দিল্লির সমস্ত প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ১২ তারিখ পর্যন্ত। এদিন যমুনা এক্সপ্রেসওয়ের উপর পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় একজনের। পুলিশের অনুমান, দূষণের জেরেই দৃশ্যমানতা কমে যাওয়ায় মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় দুটি গাড়ির।

প্রতি বছরের এই সময়ে দূষণের মাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে অনেকটা বেশি থাকে দিল্লি ও সংলগ্ন এলাকায়। এ বছরও তার ব্যতিক্রম হয়নি। তবে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা দিল্লিতে। অবস্থা সামাল দিতে ১২ নভেম্বর পর্যন্ত রাজধানীর সমস্ত প্রাথমিক স্কুল বন্ধ রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। দরকার না থাকলে পূর্ণবয়স্কদের ঘর থেকে না বেরনোরও পরামর্শ দিয়েছে দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ। এছাড়া দিল্লিতে জোড় ও বিজোড় সংখ্যার গাড়ি চালানো নিয়ে বৃহস্পতিবার ফের বৈঠকের ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। পাশাপাশি অত্যাবশকীয় পণ্য ছাড়া কোনও ট্রাক ঢুকতে পারবে না দিল্লিতে। পঞ্জাব, হরিয়ানা রাজস্থান এলাকায় ফসল তোলার পরে, গোড়া ও আগাছা পুড়িয়ে দেওয়ার ফলে তীব্র বায়ু দূষণের শিকার হয় রাজধানী। পরিবেশবিদদের মতে, দিল্লি সংলগ্ন এলাকায় নির্মাণের কাজে কোনও নিয়ম না মানাও বায়ূ দূষণের অন্যতম কারণ। দূষণ কমাতে এখন কোনও নির্মাণকাজ করা যাবে না বলেও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে সরকারের তরফে।

PTI11_8_2017_000092B

দূষণ ধোঁয়ায় দৃশ্যমানতাও কমে গিয়েছে অনেকটা। বুধবার সকাল সাড়ে ছ’টা নাগাদ যমুনা এক্সপ্রেসওয়ের উপর দুটি গাড়ির মুখোমুখি ধাক্কা লাগে। দুর্ঘটনার জেরে মৃত্যু হয় একজনের, গুরুতর আহত হন আরও ৬ জন। দৃশ্যমানতা কম থাকার কারণেই এই দুর্ঘটনা বলে মনে করছে পুলিশ। কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ জানিয়েছে, বেলা তিনটে নাগাদ দিল্লির এয়ার কোয়ালিটির সূচক ছিল ৪৪৬। যে সূচক দীপাবলির সন্ধ্যের থেকেও খারাপ বলে মনে করছে পরিবেশবিদরা।

PTI11_8_2017_000158B

First published: November 8, 2017, 8:08 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर