Home /News /national /
Delhi: আরও বেশ কিছু এলাকায় অবৈধ নির্মাণ ভেঙে ফেলার পরিকল্পনা দিল্লি পুরনিগমের, চড়ছে পারদ

Delhi: আরও বেশ কিছু এলাকায় অবৈধ নির্মাণ ভেঙে ফেলার পরিকল্পনা দিল্লি পুরনিগমের, চড়ছে পারদ

People watch the demolition of small illegal retail shops in a communally sensitive area of Jahangirpuri, in New Delhi, on April 20, 2022. (REUTERS/ Anushree Fadnavis)

People watch the demolition of small illegal retail shops in a communally sensitive area of Jahangirpuri, in New Delhi, on April 20, 2022. (REUTERS/ Anushree Fadnavis)

Delhi: প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, শাহীনবাগ, ওখলা, তিলকনগর, মদনপুর খাদের, জৈতপুর থেকে শুরু করে বদরপুর সীমানা সংলগ্ন এলাকায় এই অভিযান চালানো হবে বলে জানান মুকেশ সুরিয়ান।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: দু-বছর আগে নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনের পর ফের উত্তপ্ত হতে চলেছে নয়াদিল্লির শাহীনবাগ। জাহাঙ্গীরপুরীর পর এবার শাহীনবাগে বুলডোজার অভিযান করার পরিকল্পনা রয়েছে বিজেপি পরিচালিত দক্ষিণ দিল্লি পুরনিগমের। আজ, বুধবার দক্ষিণ দিল্লির সরিতা বিহার, জৈতপুর এবং মদনপুর খেদার এলাকা পরিদর্শনে যান দক্ষিণ দিল্লি পুরগিনমের মেয়র। তিনি বলেছেন, "অবৈধ নির্মাণ ভাঙতে অভিযান চালাবে পুরনিগম।" দিল্লিতে রোহিঙ্গা এবং বাংলাদেশী অনুপ্রবেশকারীদের ও আপের মদতেই দিল্লির বিভিন্ন জায়গায় অবৈধ নির্মাণ এবং বসতি গড়ে উঠেছে বলে অভিযোগ করেন দক্ষিণ দিল্লির পুরনিগমের মেয়র মুকেশ সুরিয়ান। তাঁর দাবি, বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, দক্ষিণ দিল্লির যে সমস্ত এলাকায় অবৈধ নির্মাণ রয়েছে সেগুলি অবিলম্বে ভেঙে ফেলা। ইতিমধ্যেই এ ব্যাপারে বৈঠক হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন: বাড়ছে করোনা সংক্রমণ, মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে স্কুল নিয়ে বড় নির্দেশ মোদির

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, শাহীনবাগ, ওখলা, তিলকনগর, মদনপুর খাদের, জৈতপুর থেকে শুরু করে বদরপুর সীমানা সংলগ্ন এলাকায় এই অভিযান চালানো হবে বলে জানান মুকেশ সুরিয়ান। গত সপ্তাহে জাহাঙ্গীর পুরীতে বুলডোজার চালিয়ে ঘরবাড়ি দোকান ঘর ভেঙে ফেলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে জাতীয় রাজনীতি। বিরোধীদের অভিযোগ একটি নির্দিষ্ট সম্প্রদায়কে টার্গেট করতেই বুলডোজার অভিযান চালানো হয়েছে। হনুমান জয়ন্তী শোভাযাত্রা কে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে জাহাঙ্গিরপুরী। তারপরেই উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। ঘটনাস্থলে গিয়ে গ্রামবাসীদের সঙ্গে কথা বলে বিস্তারিত রিপোর্ট দেয় তৃণমূলের তথ্যানুসন্ধান কমিটি। এই কমিটির নেতৃত্বে ছিলেন কাকলি ঘোষ দস্তিদার। এছাড়াও শতাব্দী রায়, অপরূপা পোদ্দার, সাজদা আহমেদ এবং অর্পিতা ঘোষ ছিলেন তথ্যানুসন্ধান কমিটিতে।

আরও পড়ুন: দেগঙ্গার স্কুলে প্রার্থনার লাইনে মারাত্মক ঘটনা, তিন ছাত্রকে নিয়ে হাসপাতালে ছুটলেন শিক্ষকরা!

কাকলি ঘোষ দস্তিদার বলেন, "মানুষকে মানুষ মনে করছে না পুলিশ। চারিদিক ব্যারিকেড দিয়ে ঘিরে বন্ধ করে রেখেছে পুলিশ। আমরা নেত্রী মমতা ব্যানার্জির নির্দেশে গিয়েছিলাম। কয়েকজন মহিলা এবং বাচ্চাদের সহযোগিতায় ভিতর রাস্তা পর্যন্ত পৌঁছতে পেরেছিলাম। এলাকার মানুষের সঙ্গে কথা বলেছি। সেদিনের অত্যাচার, বাড়ি ভাঙা, সবকিছুই আমরা শুনেছি, ছবি সংগ্রহ করেছি।"

RAJIB CHAKRABORTY

Published by:Uddalak B
First published:

Tags: Delhi

পরবর্তী খবর