হিংসায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ৪২, এখনও থমথমে দিল্লি

হিংসায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ৪২, এখনও থমথমে দিল্লি
Representative image

দিল্লির হিংসায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ৪২৷ আজ সকাল থেকে কোনও কোনও এলাকায় ১৪৪ ধারা তুলে নেওয়া হয়৷

  • Share this:

#নয়া দিল্লি: দিল্লির হিংসায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ৪২৷ আজ সকাল থেকে কোনও কোনও এলাকায় ১৪৪ ধারা তুলে নেওয়া হয়৷ ১০ ঘণ্টা পরে স্বাভাবিক হওয়ার পথে একটু একটু করে এগতে থাকে৷ কিন্তু মৃতের সংখ্যা বাড়তে থাকে আজও৷ সকালে প্রথমে ৩৮ থেকে সংখ্যা পৌঁছে যায় ৩৯-এ৷ তারপর দুপুরের পর খবর আসে, মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪২৷ এদিকে দাযিত্ব নিয়েই দিল্লির নতুন পুলিশ কমিশনার জানিয়েছেন, অভিযুক্তদের দ্রুত চিহ্নিত করা হবে৷ তাঁদের শাস্তি দেওয়ারও ব্যবস্থা করা হবে৷

এদিকে আজ সকালেই দিল্লির যুগ্ম পুলিশ কমিশনার ওপি মিশ্র চাঁদবাগ এলাকা ঘুরে দেখেন৷ সেখানে শান্তি ফেরাতে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলেন তিনি৷ পুলিশের উচ্চ আধিকারির, আইপিএস অফিসার এসএন শ্রীবাস্তব সীলমপুরে উপস্থিত হন৷ রবিবার সেখানেই হিংসা তীব্র আকার ধারণ করেছিল৷ সেখানেই এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক৷ আজ বিকেল চারটে পর্যন্ত যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকে, তাহলে পরিস্থিতি সম্পূর্ণ স্বাভাবিক বলেও ঘোষণা করা হবে বলে জানান তিনি৷

এদিকে এদিন সকালে জাফরাবাদে উপস্থিত হন দিল্লি মহিলা কমিশনের চেয়ারপার্সন রেখা শর্মা৷ তিনি জাফররাবাদের আক্রান্ত মহিলাদের সঙ্গে এদিন কথা বলেন৷ পরে সাংবাদিকদের জানান, এই এলাকায় এখনও চাপা উত্তেজনা রয়েছে৷ কিন্তু মোটের ওপর পরিস্থিতি শান্ত৷ কাল আবারও জাতীয় মহিলা কমিশনের দল এখানে আসবে, সেকথাও জানান তিনি৷

এদিকে এদিন বহিস্কৃত আপ নেতা তাহির হুসেনের বাড়িতে উপস্থিত হন ফরেন্সিক বিশেষজ্ঞ দলের সদস্যরা৷ চাঁদবাগে তার বাড়িতে বেশ কিছুক্ষণ ছিলেন তাঁরা৷ গোয়েন্দা অফিসার অঙ্কিত শর্মার মৃত্যুর জন্য এই তাহির হুসেনকেই দায়ী করেছেন স্থানীয় মানুষেরা৷ অভিযোগ, তাহিরের বাড়ি থেকে পেট্রল বোমা, পাথর ও অ্যাসিডের প্যাকেটও ওই বাড়িতে ছিল৷ এদিকে জানা গিয়েছে, খেজুরি খাসে এক বিএসএফ জওয়ানের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে৷ গত রবিবার এই ঘটনা ঘটেছে৷

First published: February 28, 2020, 3:01 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर