• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • DEHRADUN RISHIKESH BRIDGE COLLAPSES ROAD CAVES IN AS HEAVY RAINFALL LASHES UTTARAKHAND RC

Uttarakhand Heavy Rain: উত্তরাখণ্ডে তুমুল বৃষ্টিতে ভাঙল ব্রিজ! ভেসে গেল গাড়ি, দেখুন

উত্তরাখণ্ডে তুমুল বৃষ্টিতে ভাঙল ব্রিজ!

উত্তরাখণ্ডের পাঁচ জেলায় প্রবল বর্ষণের আগাম সর্তকতা ছিল। গত ৪৮ ঘণ্টায় নৈনিতাল, চম্পাবত, বাগেশ্বর, উধমসিং নগর এবং পিথোরাগড় জেলায় (Uttarakhand Heavy Rain) বিপুল বৃষ্টি হয়েছে।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি : উত্তরাখণ্ড পুলিশ আবহাওয়া স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত সাধারণ মানুষকে এইসব এলাকায় যাতায়াত না করার অনুরোধ করেছে। গত দু'দিনের বৃষ্টিতে (Uttarakhand Heavy Rain) দেরাদুন জেলায় বিভিন্ন জায়গায় ধ্বংসের ছবি দেখা গিয়েছে। এরইমধ্যে চিন্তা বাড়াচ্ছে আবহাওয়া দপ্তরের আগামী কয়েকদিনে উত্তরাখণ্ডে প্রবল বর্ষণের সতর্কবার্তা ঘিরে। গত দু'দিনেপ্রবল বৃষ্টির কারণে রানী পোখরির কাছাকাছি দেরাদুন ও ঋষিকেশের মধ্যে সংযোগকারী সেতুটি ভেঙে গিয়েছে। যার ফলে বহু গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

কয়েকটি গাড়ি ভেসে গিয়েছে বলে ও স্থানীয় সূত্রে খবর। হতাহতের এখনও কোনও খবর নেই। যদিও কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছে। ওদিকে, প্রবল বর্ষণের কারণে মালদেবতা-সহস্রধারা লিংক রোডের বেশ কিছুটা অংশ ধসে গিয়েছে। হেরি গ্রামে কয়েকশো মিটার রাস্তা নদীগর্ভে তলিয়ে গিয়েছে। এই গ্রামে দুটি গাড়ি নদীগর্ভে তলিয়ে গিয়েছে বলে খবর। উদ্ধারকার্য চলছে।অন্য একটি ঘটনায় উত্তরাখণ্ডের পৌড়ি জেলায় জয়হরিখাল ও ল্যান্সডাউনের মাঝে একটি খালে গাড়ি উল্টে দুই পর্যটক এর মৃত্যু হয়েছে একজন গুরুতর জখম হয়েছেন। দিল্লি থেকে উত্তরাখণ্ডে বেড়াতে গিয়েছিলেন ওই পর্যটকরা।‌ উল্লেখ্য, আবহাওয়া দপ্তর উত্তরাখণ্ডের আগেই ভারী বর্ষণের সর্তকতা জারি করেছিল। কয়েকটি জেলায় রেড এলার্ট জারি করা হয়েছিল।

আরও পড়ুন: 'প্রকৃতিকে ছাড়া জীবন অচল', হিমাচলে ভয়াবহ ধসের ২৫ মিনিট আগে পর্যটকের শেষ ট্যুইট ভাইরাল!

এর আগে গত বুধবার উত্তরাখণ্ডে শহর এলাকার বাইরে খাড়বালা গ্রামে সাতনা দেবীর মন্দিরের কাছে মেঘ ফেটে বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছিল। রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তর জানিয়েছে, মঙ্গলবার মধ্যরাতে মেঘ ফাটার পর বেশ কয়েকটি গ্রামে গাছ, বিদ্যুতের খুঁটি পড়ে যায়। ঘরে জল ঢুকে নষ্ট হয় আসবাবপত্র। যদিও এই ঘটনায় কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।পিথোরাগড় জেলার বালুবা কোর্টের জুসি গ্রামে মেঘ ফাটার পর কার্যত ধ্বংসলীলা চলেছে।

মেঘ ফাটার কারণে পাহাড়ের ওপর থেকে বৃষ্টির জলের সঙ্গে জঞ্জাল ভেসে এসে চাপা পড়েছেন এক মহিলা। স্থানীয় মানুষকে সঙ্গে নিয়ে রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের কর্মীরা ওই মহিলার সন্ধান চালাচ্ছেন। ওই গ্রামের একশটি পরিবারকে অন্যত্র সরিয়ে নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।তেহরি-গাড়োয়াল জেলা প্রশাসন সূত্রে খবর, ভারী বর্ষণের কারণে ৫৮ নম্বর জাতীয় সড়ক বন্ধ হয়ে গিয়েছে। বিশেষত তপোবন থেকে মালেঠা যাওয়ার রাস্তা সম্পূর্ণ বন্ধ।

Published by:Raima Chakraborty
First published: