‘জওয়ানের মৃত্যুকে উদযাপন করে JNU ‘টুকরে টুকরে’ গ্যাঙ, তাদের সমর্থন দীপিকার নিজস্ব রাজনৈতিক মত’, কটাক্ষ স্মৃতি ইরানির

‘জওয়ানের মৃত্যুকে উদযাপন করে JNU ‘টুকরে টুকরে’ গ্যাঙ, তাদের সমর্থন দীপিকার নিজস্ব রাজনৈতিক মত’, কটাক্ষ স্মৃতি ইরানির

jNU পড়ুয়াদের সমর্থনে এগিয়ে আসার পর থেকেই একের পর এক বিজেপি নেতা নেত্রীর আক্রমণের মুখে ‘ছপক’ অভিনেত্রী ৷ এবার সেই তালিকায় স্মৃতিও

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: JNU কাণ্ডে আহত ও প্রতিবাদে পড়ুয়াদের পাশে দাঁড়ানোয় এবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানির নিশানায় অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন ৷ JNU পড়ুয়াদের সমর্থনে এগিয়ে আসার পর থেকেই একের পর এক বিজেপি নেতা নেত্রীর আক্রমণের মুখে ‘ছপক’ অভিনেত্রী ৷ এবার সেই পথে মহিলা ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রকের মন্ত্রী ও বিজেপি নেত্রী স্মৃতি ইরানিও ৷ দীপিকাকে কটাক্ষ করে স্মৃতি ইরানি বলেন,‘উনি জানেন যাদের সমর্থনে তিনি দাঁড়াচ্ছেন, যারা সিআরপিএফ জওয়ানদের মৃত্যুর খবর এলে উৎসবে মাতেন ৷ যারা ‘ভারত তেরে টুকরে হোঙ্গে'' স্লোগান দেন, গণতান্ত্রিক দেশে তাদের পাশে দাঁড়ানোর অধিকার অবশ্যই রয়েছে দীপিকার ৷’

চেন্নাইয়ে ‘নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস' আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে JNU কাণ্ড প্রসঙ্গে স্মৃতি ইরানির আক্রমণের লক্ষ্যে অভিনেত্রী ৷ তিনি বলেন, ‘আমি জানতে চাই ওনার রাজনৈতিক মতাদর্শ কী ৷ এই খবর যারা পড়ছেন তারা প্রত্যেকেই জানেন দীপিকা কেন সেদিন ওখানে গিয়েছিলেন ৷ আমাদের কাছে তাঁর এই পদক্ষেপ অবশ্য অপ্রত্যাশিত নয় ৷ উনি সেদিন যাদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন, তাদের লাঠি বাড়ি মারার জন্য টার্গেট করে মহিলাদের প্রাইভেট পার্টস ৷’

এখানেই শেষ নয় স্মৃতি ইরানি দীপিকার কংগ্রেস যোগ থাকার অভিযোগ করেন ৷ বলেন, ‘ ২০১১ সালে দীপিকা জানিয়েছিল যে তিনি কংগ্রেসকে সমর্থন করেন এবং রাহুল গান্ধিকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান ৷ অনেকে তাঁর এই মতাদর্শের কথা জানতেন না তাই তারা অবাক হয়েছিলেন ৷ ওনার মুখে অনেক মুখোশ আছে, যা আস্তে আস্তে সবার কাছে স্পষ্ট হচ্ছে ৷ ’

৭ জানুয়ারি JNU কাণ্ডে প্রতিবাদী পড়ুয়াদের পাশে দাঁড়াতে সোজা ক্যাম্পাসে পৌঁছে গিয়েছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন ৷ কোনও লম্বা চওড়া ডায়লগ নয়, পড়ুয়াদের পাশে তাঁর সদর্প উপস্থিতিতেই সেদিন ছিল সমর্থনের বার্তা ৷ আহত-আক্রান্ত ছাত্র সংসদের সভানেত্রী ঐশী ঘোষের সঙ্গেও দেখা করেন তিনি ৷ তারপর থেকেই শাসক দলের নেতা-মন্ত্রী ও অনুগামীদের আক্রমণের টার্গেটে রণবীর ঘরণী দীপিকা পাড়ুকোন ৷

First published: 03:52:40 PM Jan 10, 2020
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर