• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • সন্তানকে মারের বিচার চেয়েছিলেন, যোগীরাজ্যে প্রস্রাব খাওয়ানো হল ৬৫ বছরের দলিত বৃদ্ধকে

সন্তানকে মারের বিচার চেয়েছিলেন, যোগীরাজ্যে প্রস্রাব খাওয়ানো হল ৬৫ বছরের দলিত বৃদ্ধকে

৬৫ বছরের বৃদ্ধ অমর।

৬৫ বছরের বৃদ্ধ অমর।

বেধড়ক মারধর করে প্রস্রাব খেতে বাধ্য করা হল ৬৫ বছর বয়সি এক দলিত বৃদ্ধকে। ঘটনাস্থল যোগীরাজ্যের রদা গ্রাম।

  • Share this:

    #লখনউ: সন্তানকে উচ্চবর্ণের লোকেরা মারধর করার বিচার চাইতে গিয়েছিলেন থানায়। এটাই তাঁর 'অপরাধ'। সেই ঘটনা চাউর হতেই শুরু হল অত্যাচার। বেধড়ক মারধর করে প্রস্রাব খেতে বাধ্য করা হল ৬৫ বছর বয়সি এক দলিত বৃদ্ধকে। ঘটনাস্থল যোগীরাজ্যের রদা গ্রাম।

    দিনকয়েক আগের ঘটনা। ঘটনাস্থল যোগীরাজ্যের ললিতপুরের রদা গ্রাম। কথাকাটাতাটি হওয়ায় সোনু যাদব নামক স্থানীয় প্রতিপত্তিশালী এক যুবক ব্যাপক মারধর করে অমর নামক ওই বৃ্দ্ধের ছেলেকে। ঘটনার কথা শুনে থানায় যান ওই বৃদ্ধ, অভিযোগ করেন সোনুর বিরুদ্ধে। বাড়ি ফেরার পরেই সোনু তাঁর সঙ্গে দেখা করে। বলে অভিযোগ তুলে নিতে। অমর অস্বীকার করতেই শুরু হয় অত্যাচার।

    সংবাদসংস্থা ANI-কে অমর বলেন, আমি ওর প্রস্তাব ফিরিয়ে দিতেই আমাকে লাঠি দিয়ে মারে। কুড়ুল নিয়ে আমার ছেলেক আঘাত করেছিল ও, আমি সেই কারণেই থানায় গিয়েছিলাম।

    ললিতপুর থানার পুলিশ সুপার মির্জা মঞ্জর বেগ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নেন। তিনি বলেন, "ওরা ওই গ্রামে শক্তিশালী। সেই প্রভাব খাটিয়েই অত্যাচার চালিয়েছে এক বৃদ্ধ ও তাঁর সন্তানের উপর। মূল অভিযুক্ত ঘটনার পরেই গা ঢাকা দিয়েছে। আমরা এই ধরনের অত্যাচার বরদাস্ত করব না। অপরাধীর খোঁজে তল্লাশি চলছে।"

    Published by:Arka Deb
    First published: