corona virus btn
corona virus btn
Loading

‌আরব সাগরে তৈরি হওয়া ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়বে ৩ জুন!‌ সতর্ক করল আবহাওয়া দফতর

‌আরব সাগরে তৈরি হওয়া ঘূর্ণিঝড় আছড়ে পড়বে ৩ জুন!‌ সতর্ক করল আবহাওয়া দফতর
প্রতীকী ছবি

আরব সাগর ও লাক্ষাদ্বীপের পাশে দক্ষিণপূর্ব ও পার্শ্ববর্তী আরব সাগরে একটি নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে‌। আগামী ২৪ ঘণ্টায় সেটি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে।

  • Share this:

#‌নয়াদিল্লি:‌ এবার আর পূর্ব উপকূলে নয়, পশ্চিম উপকূলে। আরব সাগরে তৈরি হওয়া ঘূর্ণিঝড় ধেয়ে আসছে ভারতের পশ্চিম উপকূলের দিকে। আর সেই ঝড় গুজরাত থেকে মহারাষ্ট্রের মধ্যে আছড়ে পড়তে পারে ৩ জুন। রবিবার সতর্কবার্তায় জানিয়ে দিল Indian Meteorological Department (IMD)। এর ফলে দেশের পশ্চিম উপকূলে ঝড়ের তাণ্ডবের সম্ভবনা দেখছে হাওয়া অফিস।

সুনীতা দেবী, আইএমডির পক্ষ থেকে জানিয়েছেন, আরব সাগর ও লাক্ষাদ্বীপের পাশে দক্ষিণপূর্ব ও পার্শ্ববর্তী আরব সাগরে একটি নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে‌। আগামী ২৪ ঘণ্টায় সেটি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে। তারপরের ২৪ ঘণ্টায় এটি ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে চলেছে। মনে করা হচ্ছে, মহারাষ্ট্র ও গুজরাতের উপকূলে এটি ৩ জুন নাগাদ পৌঁছে যাবে। ’‌ঝড়ের তীব্রতা কতটা হচ্ছে, তা দু’‌দিনের মধ্যেই স্পষ্ট হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। সেই কারণেই মৎসজীবীদের সাগরে মাছ ধরতে যেতে নিষেধ করেছে হাওয়া অফিস। আগামী ৪ জুন পর্যন্ত সাগরে যাওয়া থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে। মহারাষ্ট্রের দক্ষিণ উপকূলে আগামী ২–৪ জুন, উত্তর উপকূলে ২–৩ জুন, এছাড়া, গুজরাত, দমন ও দিউ অংশে ৩–৫ জুন বৃষ্টি হতে পারে।

এই একই কারণে কেরলে ১ জুন বর্ষা ঢুকে পড়ার সম্ভাবনা আরও তীব্রতর হয়েছে। মহারাষ্ট্রে বর্ষা ঢুকবে আগামী ১০ জুন। যদিও শনিবার একটি বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা দাবি করে, কেরলে ইতিমধ্যে বর্ষা পৌঁছে গিয়েছে। আবহাওয়া অফিস সেটি নাকচ করে জানিয়েছে, খবরটি সত্যি নয়। আর আরব সাগরে এক্ষেত্রে মোট দু’‌টি ঘূর্ণিঝড় তৈরি হয়েছে। একটি অন্যদিকে চলে গেলেও, অন্যটি ভারতে আসবে। এই কারণে দিল্লি ও রাজধানী এলাকায় প্রচুর জলীয় বাস্প ঢুকে পড়তে পারে। যার জন্য বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: May 31, 2020, 2:39 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर