corona virus btn
corona virus btn
Loading

১৩০ বছরে প্রথমবার! জুন মাসে মুম্বই উপকূলে আছড়ে পড়তে চলেছে কোনও ঘূর্ণিঝড়

১৩০ বছরে প্রথমবার! জুন মাসে মুম্বই উপকূলে আছড়ে পড়তে চলেছে কোনও ঘূর্ণিঝড়
প্রতীকী চিত্র৷

মহারাষ্ট্রের উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে বিপর্যয় মোকাবিলার যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও পরামর্শ দিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা৷

  • Share this:

#মুম্বই: ১৩০ বছরে এই প্রথমবার৷ মুম্বই উপকূলে ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ আছড়ে পড়লে তা এতটাই বিরল ঘটনা হবে বলে দাবি করছে আবহাওয়া দফতর৷ কারণ ভারতীয় আবহ বিজ্ঞান দফতরের তথ্য বলছে, ১৮৯১ সালের পর নাকি জুন মাসে মুম্বইয়ের আশেপাশে আছড়ে পড়েনি৷ আবহাওয়া দফতরের সতর্কতা অনুযায়ী, ৩ অথবা ৪ জুনের মধ্যে মহারাষ্ট্র অথবা গুজরাত উপকূলে আঘাত হানতে পারে নিসর্গ৷ তার আগে ২ এবং ৩ জুন মহারাষ্ট্রের উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে৷ মহারাষ্ট্রের উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে বিপর্যয় মোকাবিলার যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও পরামর্শ দিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা৷

যুক্তরাজ্যের রিডিং বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক এবং আবহ বিজ্ঞানী অক্ষয় দেওরস জানিয়েছেন, ১৯৪৮ এবং ১৯৮০ সালে জুন মাসে দু'টি নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়ে মহারাষ্ট্র উপকূলে আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা ছিল৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হয়নি৷' নিসর্গ কোথায় আছড়ে পড়তে পারে, সে বিষয়ে এখনও আবহ দফতরের পক্ষ থেকে নিশ্চিত ভাবে কিছু বলা হয়নি৷ তবে বেসরকারি আবহাওয়ার পূর্বাভাস প্রদানকারী এজেন্সি SKYMET জানিয়েছে, উত্তর মহারাষ্ট্র অথবা দক্ষিণ গুজরাতের সীমান্ত লাগোয়া উপকূল এলাকায় আছড়ে পড়তে পারে নিসর্গ৷

SKYMET-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট মহেশ পালাওয়াট একটি সর্বভারতীয় ইংরেজি দৈনিককে জানিয়েছেন, 'ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ এই এলাকাগুলির উপর দিয়ে দ্রুত গতিতে বয়ে যাবে৷ তবে তা অতি শক্তিশালী বা শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হওয়ার সম্ভাবনা কম৷ যে এলাকার উপর দিয়ে এই ঘূর্ণিঝড় বয়ে যাবে, সেখানে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে৷ দক্ষিণ গুজরাত এবং মুম্বই সহ উত্তর কোঙ্কান অঞ্চলে ৩ জুন সর্বাধিক বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে৷ তার পরে পরিস্থিতির উন্নতি হবে৷'

তবে এই ভারী বর্ষণে মুম্বই জলমগ্ন হয়ে পড়তে পারে বলেও সতর্ক করেছে SKYMET৷ এমনিতেই করোনার দাপটে দিশেহারা অবস্থা মুম্বইয়ের৷ তার মধ্যে ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে আরও বিপর্যস্ত হয়ে পড়তে পারে দেশের বাণিজ্যনগরীর জনজীবন৷

 
Published by: Debamoy Ghosh
First published: June 1, 2020, 9:56 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर