Home /News /national /
সংক্রমণ বাড়ছে পাহাড়ে, সৌজন্যে চূড়ান্ত অসাবধানতা! কার্শিয়ংয়ে মৃত ১!

সংক্রমণ বাড়ছে পাহাড়ে, সৌজন্যে চূড়ান্ত অসাবধানতা! কার্শিয়ংয়ে মৃত ১!

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: গ্রাফ অপরিবর্তিত। গতকালের চাইতে সামান্য বেড়েছে গ্রাফ। প্রায় ১০০ ছুঁই ছুঁই আক্রান্ত। পাহাড়ে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে আক্রান্তের সংখ্যা। আনলক ফোরে যখন পর্যটকদের বরণে প্রস্তুত শৈলশহর, সেইসময় প্রতিদিনই সংক্রমণ ছড়াচ্ছে পাহাড়ী এলাকায়। দার্জিলিং পুরসভা তো বটেই, সঙ্গে সুখিয়াপোখরি, তাগদা, পুলবাজারের মতো এলাকাতেও ছড়াচ্ছে সংক্রমণ। অথচ পাহাড় কিছু দিন আগে পর্যন্তও কোভিড ফ্রি হয়ে গিয়েছিল। টানা ১৪ দিন লকডাউনও করে জিটিএ। তারপরও প্রতিদিন সংক্রমণ বাড়ায় উদ্বেগ বাড়ছে।

এদিন কার্শিয়ংয়ের বাসিন্দা এক আক্রান্তের মৃত্যুও হয়েছে। এর আগেও কার্শিয়ং মহকুমায় করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছিল।  পাহাড়েও সেই অসাবধানতার ছবিটাই ধরা পড়ছে। সোশ্যাল ডিস্টেনশিং দূরে থাক, মাস্ক বা ফেস কভারে মুখ ও নাক ঢাকছে না অনেকেরই। জেলায় সাবধানতার দিক দিয়ে শুরুতে পাহাড় পথ দেখাচ্ছিল, আজ সেই পাহাড়ে ক্রমেই জাল ছড়াচ্ছে মারণ করোনা। সৌজন্যে চূড়ান্ত অসাবধানতা! তবুও আনলক ফোরে পর্যটকদের জন্যে তৈরী পাহাড়!

পর্যটন ব্যবসায়ীদের দাবী, করোনাকে সঙ্গী করেই চলতে হবে। পর্যটকদের জন্যে কোভিড প্রোটোকল মানা হবে। গত ২৪ ঘন্টায় পাহাড়ে আক্রান্ত ২২ জন! গত কয়েক সপ্তাহ ধরে আক্রান্তের গ্রাফ কার্যত অপরিবর্তিত। এর মধ্যে দার্জিলিং পুর এলাকায় ৬ জন, কার্শিয়ংয়ের পুর ও গ্রামীন এলাকা মিলিয়ে ৮ জন, সুখিয়াপোখরিতে ৬ জন এবং পুলবাজারে ২ জন নতুন করে আক্রান্ত। জেলার গ্রামীন চার ব্লকে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৭ জন। এই সংখ্যাটাও অপরিবর্তিত। যার মধ্যে নকশালবাড়িতে ১৭ জন, মাটিগাড়ায় ১১ জন, ফাঁসিদেওয়ায় ৬ জন এবং খড়িবাড়িতে ৩ জন আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। আর শিলিগুড়ি পুরসভার ৪৭টি ওয়ার্ডে আক্রান্ত ৩৭ জন। সবমিলিয়ে জেলাবাসী সাবধানতা মেনে না চললে সমূহ বিপদ আসন্ন! অন্যদিকে সুস্থতার হার ভালোই। এদিনও দুই কোভিড হাসপাতাল এবং হোম আইশোলেশনে থেকে কোভিড জয় করেছেন ৭৬ জন! যা অন্তত দিনের শেষে খুশীর খবর!

Partha Pratim Sarkar

Published by:Elina Datta
First published:

Tags: Coronavirus

পরবর্তী খবর