• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • COVID 19 AFFECTED DEAD BODIES CARRIED FOR CREAMATION IN ONE VAN IN MAHARASHTRA DD

কোভিডে ভয়াবহ মৃত্যুর আরও এক মর্মান্তিক ছবি, একটি অ্যাম্বুলেন্সে বস্তা বন্দী ২২ টি শবদেহ পৌঁছল দাহ হতে!

Photo of the bodies of Covid victims crammed in one van in Maharashtra's Beed. Photo- News 18

এ কী হননকাল , যখন চিতার পর চিতা জ্বলছে ,শবদেহ আসছে বস্তাবন্দী হয়ে...এ দৃশ্য দেখতেও হৃদয়ে শক্তি লাগে...

  • Share this:

    #মুম্বই: যে কোনও মৃত্যুই শোকের আর করোনা কাল বুঝিয়ে মৃত্যুদৃশ্য কতটা ভয়াবহতা ছাড়িয়ে দিচ্ছে৷ সারা দেশেই করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ একেবারে নাড়িয়ে দিচ্ছে৷ এই অবস্থায় একাধিক দিন পাশাপাশি চিতা জ্বলতে দেখে শিহরিত হয়ে যাচ্ছে গোটা দেশ৷ এরকম পরিস্থিতিতে মহারাষ্ট্রের বিডের ছবি  দেখে ফের একবার শিহরিত হয়ে গেলেন মানুষজন৷

    মহারাষ্ট্রের বিডে (Beed district ) কোভিড ১৯ মৃত ২২ টি শবদেহ একসঙ্গে প্লাস্টিকের বস্তা বন্দী অবস্থায় অ্যাম্বুলেন্সে করে পৌঁছে গেল শেষকৃত্যের জন্য৷ কী করে প্রশাসন এরকম নক্কারজনক অমানবিক আচরণ করতে পারেন তাই ভেবে মানুষের মধ্যে তৈরি হয়েছে জনরোষ৷ সাধারণ মানুষ রেগে যেতে কী ঘটনা ঘটেছে তা জানতে চেয়ে প্রশাসনিক অধিকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছয়৷

    অভিযোগ মৃতদের পরিবার যখন এই ঘটনার ছবি তুলছিল তখন পুলিশ তাদের হাত থেকে ফোন ছিনিয়ে নেয়৷ এই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে এই খবর জানান৷ এতটাই অভব্য পুলিশ তাঁরা শেষকৃত্য শেষ হওয়ার পর আত্মীয়দের হাতে ফোন ফেরত দেওয়া হয়৷

    দেখে নিন শেষকৃত্যের সেই করুণ ভিডিও

    আধিকারিকরা জানিয়েছে ব্যাগবন্দী অবস্থায় ছিল ২২ টি শবদেহ৷ এই শবদেহগুলি স্বামী রামানন্দ তীর্থ মারাঠাওয়াড়া গভর্নমেন্ট মেডিক্যাল কলেজ আম্বাজগাই থেকে এসেছিল৷

    বিডের ডিস্ট্রিক্ট কালেক্টর রবীন্দর জগতাপ জানিয়েছেন, ‘‘আম্বাজগাইয়ের অতিরিক্তি কালেক্টরকে নির্দেশ দিয়েছি এই বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করতে,  যারা অভিযুক্ত হবেন তাদের বিরুদ্ধে কার্যকরী ব্যবস্থা নেওয়া হবে৷ ’’

    ‘‘ওখানে মাত্র ২ টি অ্যাম্বুলেন্স ছিল শবদেহ  শশ্মানে বয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য৷ আমরা অ্যাম্বুলেন্স চেয়েছিলাম৷ সিভিক বডি যা সিদ্ধান্ত নিয়েছিল আমাদের সিদ্ধান্ত নেওয়ায় কিছু হয়নি৷ ’’ এটা জানিয়েছেন SRTMGMC -র ডিন ডক্টর শিবাজি সুক্রে৷

    Published by:Debalina Datta
    First published: