সেনায় ভর্তির পরীক্ষায় বড়সড় দুর্নীতি! সর্ষের মধ্যে থাকা ভূত খুঁজতে নামল সিবিআই

সেনা আধিকারিকদের সন্দেহ, ফৌজের বেশ কয়েকজন অফিসার এই দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত।

সেনা আধিকারিকদের সন্দেহ, ফৌজের বেশ কয়েকজন অফিসার এই দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত।

  • Share this:
    #নয়াদিল্লি: ভারতীয় সেনা। দেশ ও দেশবাসীর গর্ব। এবার সেই গর্বেও কালির ছিটে। এতদিন পর্যন্ত দেশবাসীর গর্ব ছিল, আর সব জায়গায় দুর্নীতির ছাপ পড়লেও সেনার উর্দিতে তার ছিটেফোঁটা লাগতে পারে না। তবে এবার সেই বিশ্বাসেও ফাটল ধরল। ভারতীয় সেনার ভর্তির পরীক্ষায় বড়সড় দুর্নীতি। সেনা আধিকারিকদের সন্দেহ, ফৌজের বেশ কয়েকজন অফিসার এই দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত। এমনকী বেশ কিছু অসাধু এজেন্সি এই দুর্নীতিতে মদত দিয়েছে বলে সন্দেহ করছেন সেনা আধিকারিকরা। ফলে আপাতত সর্ষের মধ্যে ভূত খুঁজতে নেমে পড়ল সিবিআই। সেনা আধিকারিকরা সিবিআইকে তদন্তের দায়িত্ব নেওয়ার আর্জি জানিয়েছিলেন। সিবিআই রাজি। জানা গিয়েছে, সেনার অফিসার স্তরের নিয়োগ পরীক্ষায় বড়সড় দুর্নীতি হয়েছে। সেনার গোয়েন্দারা সবার প্রথমে এই দুর্নীতির গন্ধ পেয়েছিলেন। তদন্তের পর তাঁরা নিশ্চিত, অফিসার নিয়োগের পরীক্ষায় দুর্নীতি হয়েছে। আর এই দুর্নীতিতে বেশ কিছু সেনা অফিসার জড়িত বলে সন্দেহ করছেন তাঁরা। সেনার সার্ভিস সিলেকসন বোর্ড অফিসার নিয়োগ করে। তার জন্য সার্ভিস সিলেকসন সেন্টারে পরীক্ষা হয়। আর সেই পরীক্ষাতেইই দুর্নীতি হয়েছে বলে প্রমাণ পেয়েছেন সেনার গোয়েন্দারা। পাঞ্জাবের কাপুরথালা জেলার একটি সার্ভিস সিলেকশন সেন্টার সন্দেহের তালিকায় রয়েছে। ভারতীয় সেনার তরফে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সেনার ইনটেলিজেন্স এজেন্সি নিয়োগ পরীক্ষায় দুর্নীতির প্রমাণ পেয়েছে। এই দুর্নীতিতে বেশ কিছু বেসরকারি এজেন্সি জড়িত। তাই সেনার পক্ষ থেকে তদন্তের ভার দেওয়া হয়েছে সিবিআইকে। আমরা পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবি জানিয়েছি। যে বা যারা এই দুর্নীতিতে জড়িত তাঁদের কঠোর শাস্তি হবে। সেনাপ্রধান মনোজ মুকুন্দ নারাভানে জানিয়েছেন, দুর্নীতির ব্যাপারে সেনা কোনও আপোস করবে না। এমনকী এক্ষেত্রে সেনা অফিসারর দুর্নীতিতে জড়িত থাকলে তাঁদেরও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।
    Published by:Suman Majumder
    First published: