Coronavirus: ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২২৩, মৃত ৫

Coronavirus: ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২২৩, মৃত ৫

এর মধ্যে ১৯১ জন ভারতীয় ৩২ জন বিদেশি।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বিশ্বজুড়ে করোনা-কাঁপুনি। গোটা বিশ্বজুড়ে বেড়েই চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৷ আর তার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে গোটা বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ১০ হাজারের বেশি ৷ গোটা বিশ্বে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ২ লক্ষ ৫০ হাজার জন মানুষ ৷ করোনায় মৃত্যুতে চিনকে ছাপিয়ে গেল ইতালি। গত ২৪ ঘণ্টায় ইতালিতে ৪২৭ জনের মৃত্যু। মৃত সংখ্যা বেড়ে ৩,৪০৫ জন। ইরান, স্পেনেও মৃত্যুমিছিল।

আতঙ্ক রোজ বেড়েই চলেছে করোনা নিয়ে ৷ গোটা বিশ্বই প্রায় স্তব্দ হয়ে পড়েছে ৷ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে ৷ অন্যদিকে ভারতে এই মুহূর্তে আক্রান্তের সংখ্যা ২২৩ জন ৷ এর মধ্যে ১৯১ জন ভারতীয় ৩২ জন বিদেশি। কর্নাটক, দিল্লি, মুম্বই, পঞ্জাবের পর এবার রাজস্থান। জয়পুর হাসপাতালে ৬৯ বছরের ইতালীয় বৃদ্ধার মৃত্যু। ভারতে করোনায় মৃত বেড়ে ৫। ইতিমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিলেছেন ২০ জন।

অন্যদিকে কলকাতায় দ্বিতীয় করোনা আক্রান্তের হদিশ। রাজ্যে করোনা আক্রান্ত বেড়ে ২। আক্রান্ত যুবক দক্ষিণ কলকাতার বাসিন্দা। লন্ডনে পড়াশোনা করেন যুবক। ১৩ মার্চ লন্ডন থেকে কলকাতায় ফেরেন তিনি । কোনও উপসর্গ না থাকায় বিদেশ থেকে ফেরার কারণে তাঁকে গৃহ পর্যবেক্ষণে রাখা হয়। তবে বুধবার কাশি শুরু হলে তাঁকে বেলেঘাটা আইডিতে ভরতি করা হয়। বেলেঘাটা নাইসেডে নমুনা পরীক্ষায় ধরা পড়ে যুবক করোনা পজেটিভ।

দেশের প্রায় সব রাজ্যেই বন্ধ করা হয়েছে স্কুল, কলেজ, সিনেমাহল, শপিং মল ৷ সামাজিক কোনও অনুষ্ঠান বা জমায়েতে অংশ নেওয়া থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে ৷ বহু রাজ্যেই বাতিল করা হয়েছে সামাজিক অনুষ্ঠান ৷ দেশের মধ্যে ও দেশের বাইরে ট্র্যাভেলের ক্ষেত্রেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে ৷ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভারতের পরিস্থিতি যাতে চিন বা ইতালির মতো না হয় তার জন্য আগামী ৩০ দিন খুব গুরুত্বপূর্ণ ৷ চতুর্থ বা পঞ্চম সপ্তাহেই ভয়াবহ ভাবে এই ভাইরাস সংক্রমণের নজির রয়েছে। ভারতে যাতে তা না হয় সেই লক্ষ্যেই দেশজুড়ে চরম সতর্কতা।

ভারত এখন করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ধাপে ৷ অর্থাৎ চিন, ইতালি, ইরানের মতো আক্রান্ত দেশ থেকে যাঁরা সংক্রমিত হয়ে ফিরেছেন তাঁদের থেকে এ দেশে সংক্রমণ ছড়িয়েছে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা একশো ছাড়ালেও পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণের বাইরে যায়নি বলেই দাবি ৷ কিন্তু সংক্রমণের হার যাতে এখানেই আটকানো যায় তার জন্য ব্যাপক সতর্কতা জরুরি ৷ বিশেষজ্ঞরা যাকে বলেন ‘ফ্ল্যাটনিং দ্য কার্ভ’।

First published: March 20, 2020, 8:30 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर