Delhi Airport Terminal 2: করোনার জেরে যাত্রী সংখ্যা অত্যন্ত কম, দিল্লি বিমানবন্দরের টার্মিনাল ২ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত

File Photo

বিমান সংখ্যা দিন দিন কমার জন্যই, পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত আপাতত দিল্লি বিমানবন্দরের টার্মিনাল-২ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ৷

  • Share this:

    নয়াদিল্লি: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় অত্যন্ত খারাপ অবস্থায় বিমান শিল্প ৷ যাত্রীর সংখ্যা দিন দিন কমছে ৷ অধিকাংশ রাজ্যেই বিমানে চড়তে গেলে কোভিড পরীক্ষার নেগেটিভ সার্টিফিকেট দেখাতে হচ্ছে ৷ যার জেরে যাত্রী সংখ্যা এখন ভালমতোই কমেছে ৷ ঝুঁকি নিয়ে অধিকাংশ মানুষই এখন বিমানে যাত্রা করতে চাইছেন না ৷ যাত্রী না থাকায় অধিকাংশ রুটেই ফ্লাইট সংখ্যা এখন অনেকটা কম ৷ এয়ার-বাবল চুক্তিতে চলা আন্তর্জাতিক বিমানও হাতে গোনা ৷ এই অবস্থায় দিল্লি বিমানবন্দরের টার্মিনাল ২ আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ৷ আগামী ১৭ মে মধ্যরাত থেকেই বন্ধ হচ্ছে টার্মিনাল-২ ৷ দিল্লিতে সব বিমানগুলিই এবার ওঠানামা করবে টার্মিনাল-৩ থেকে ৷ বিমান সংখ্যা দিন দিন কমার জন্যই পরিস্থিতির উন্নতি না হওয়া পর্যন্ত আপাতত দিল্লি বিমানবন্দরের টার্মিনাল-২ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ৷

    এখন প্রতিদিন দিল্লিতে মাত্র ৩২৫টি বিমান ওঠানামা করে ৷ যেখানে করোনা মহামারীর আগে দিল্লিতে প্রায় ১৫০০ ফ্লাইট ওঠানামা করত প্রতিদিন ৷ কেন্দ্রীয় অসামরিক বিমান পরিবহণ মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, গত বছর থেকেই করোনার ব্যাপক প্রভাব পড়েছে বিমান শিল্পে ৷ মাঝের সময়টা যখন ধীরে ধীরে পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হচ্ছিল, তারপরেই ফের করোনার দ্বিতীয় ঢেউইয়ের ধাক্কায় জর্জরিত বিমান শিল্প ৷ আগে দেশে প্রতিদিন ডোমেস্টিক রুটে বিমানযাত্রী হত প্রায় ২২ লক্ষ ৷ সেটা কমতে কমতে এখন ৭৫ হাজারে দাঁড়িয়েছে ৷ যা যথেষ্ট চিন্তার কারণ ৷

    ভারতে ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করেছে করোনাভাইরাস। দৈনিক মৃত্যুতে বিশ্বে ফের সর্বকালীন রেকর্ড গড়ল ভারত। একদিনে মৃত্যুর সংখ্যা আবারও চার হাজার ছাড়িয়েছে। বাড়ল দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যাও। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ১২ মে, বুধবার পর্যন্ত ভারতে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ৩৩ লক্ষ ৪০ হাজার ৯৩৮ জন। এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ২ লক্ষ ৫৪ হাজার ১৯৭ জনের।

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: