• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • অমানবিক! গুজরাতের হাসপাতালে ময়লা ফেলার জায়গায় সার দিয়ে রাখা করোনায় মৃতদের দেহ

অমানবিক! গুজরাতের হাসপাতালে ময়লা ফেলার জায়গায় সার দিয়ে রাখা করোনায় মৃতদের দেহ

রাজকোট সিভিল হাসপাতালের ছবি দেখলে গায়ে কাঁটা দেয়! হাসপাতালের আবর্জনা ফেলার জায়গায় একের পর এক স্ট্রেচার লাইন দিয়ে রাখা, তার উপরে প্লাস্টিকে মোড়া করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের দেহ

রাজকোট সিভিল হাসপাতালের ছবি দেখলে গায়ে কাঁটা দেয়! হাসপাতালের আবর্জনা ফেলার জায়গায় একের পর এক স্ট্রেচার লাইন দিয়ে রাখা, তার উপরে প্লাস্টিকে মোড়া করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের দেহ

রাজকোট সিভিল হাসপাতালের ছবি দেখলে গায়ে কাঁটা দেয়! হাসপাতালের আবর্জনা ফেলার জায়গায় একের পর এক স্ট্রেচার লাইন দিয়ে রাখা, তার উপরে প্লাস্টিকে মোড়া করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের দেহ

  • Share this:

    #রাজকোট: করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ছাড়িয়েছে গুজরাতে। প্রতিদিনই মিলছে নয়া আক্রান্তের খোঁজ! এরমধ্যেই সামনে এল হড়হিম করা এক ছবি যা প্রশ্ন তুলছে গুজরাতের স্বাস্থ্য কর্মীদের ভূমিকা নিয়ে! রাজকোট কোভিড হাসপাতালে নোংরা-আবর্জনার মধ্যেই সার দিয়ে রাখা করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের মৃতদেহ।

    রাজকোট সিভিল হাসপাতালের ছবি দেখলে গায়ে কাঁটা দেয়! হাসপাতালের আবর্জনা ফেলার জায়গায় একের পর এক স্ট্রেচার লাইন দিয়ে রাখা, তার উপরে প্লাস্টিকে মোড়া করোনায় আক্রান্ত ব্যক্তিদের দেহ। চারপাশে আবর্জনার স্তূপ! দেহের উপরেই অবলীলায় রাখা রয়েছে ব্যাগ, কখনও বা পলিথিনের প্যাকেট! মনে হচ্ছে, যেন সেগুলি 'বডি' নয়, জিনিস রাখার টেবিল!

    রাজকোট সিভিল হাসপাতালের অমানবিক ছবি সামনে আসতেই শোরগোল পড়ে যায়। মৃতদের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ করোনায় মৃত ব্যক্তিদের দেহর সঙ্গে অমানবিক আচরণ করছে। কখনও কখনও একইসঙ্গে অনেক করোনা রোগীর মৃতদেহ স্তুপাকারে রাখা হচ্ছে। হাসপাতাল থেকে একটি ট্রলিতে দুটি করে মৃতদেহও নিয়ে যাওয়া হচ্ছে শ্মশানে।

    রাজকোটের রমানাথপুরা শ্মশানে কর্মরত দীনেশ ভাই জানান, গত ১৫-২০ দিন ধরে শ্মশানের বৈদ্যুতিক চুল্লি একবারের জন্য বন্ধ করার অবকাশ মেলেনি, লাগাতর মৃতের ভিড়!

    Published by:Rukmini Mazumder
    First published: