corona virus btn
corona virus btn
Loading

জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর ঘটনা মনে পড়াচ্ছে যোধপুর!‌ হাঁটু দিয়ে অপরাধীকে চেপে ধরেছে পুলিশ

জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর ঘটনা মনে পড়াচ্ছে যোধপুর!‌ হাঁটু দিয়ে অপরাধীকে চেপে ধরেছে পুলিশ

কিন্তু কেন এমন কাণ্ড ঘটেছে?‌ পুলিশের দাবি, এই মানুষটি রাস্তায় মাস্ক না পরে ঘুরছিলেন। সেই কারণে পুলিশ তাঁকে ধরতে যায়। কিন্ত ধরতে গেলেই তিনি হঠাৎ হিংসাত্মক হয়ে ওঠেন।

  • Share this:

#‌যোধপুর:‌ যে একটি ঘটনা থেকে আমেরিকার রাজনৈতিক মানচিত্র বদলে যেতে বসেছে, সেই জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যু হয়েছিল যে কারণে, ঠিক সেই ছবিই যেন দেখা গেল ভারতে। রাজস্থানের যোধপুরের এক‌টি ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে, সেখানে দেখা যাচ্ছে এক অপরাধীকে রাস্তায় ফেলে হাঁটু দিয়ে ঘাড় চেপে ধরেছে পুলিশ। ঠিক যেমনটা আমেরিকায় কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের ক্ষেত্রে হয়েছিল। ইন্টারনেটে এই ছবি ভাইরাল হতেই অনেকেই নিন্দায় সরব হয়েছেন।

কিন্তু যোধপুরের ঘটনা মিনিয়াপোলিসের ঘটনার থেকে বেশ কিছুটা আলাদা। জানা গিয়েছে, যোধপুরের ঘটনার ব্যক্তির নাম মুকেশ কুমার প্রজাপত। পুলিশ কোনও কারণে তাঁকে ধরতে গেলে তিনি পুলিশের ওপর চড়াও হয়েছিলেন। বিশেষভাবে সক্ষম এই মানুষটিকে তাই রাস্তায় ফেলে দিতে বাধ্য হয়েছিল পুলিশ। ঘটনায় সামান্য আহত হলেও মুকেশ কুমারের প্রাণ সংশয় হয়নি। পুলিশ এই ভিডিওর সত্যতা স্বীকার করেছে। জানিয়েছে, বৃহস্পতিবারই এই ভিডিওটি তোলা হয়েছে।

কিন্তু কেন এমন কাণ্ড ঘটেছে?‌ পুলিশের দাবি, এই মানুষটি রাস্তায় মাস্ক না পরে ঘুরছিলেন। সেই কারণে পুলিশ তাঁকে ধরতে যায়। কিন্ত ধরতে গেলেই তিনি হঠাৎ হিংসাত্মক হয়ে ওঠেন। ভিডিওতে দেখা যাছে, একজন পুলিশ আধিকারিক হাঁটু দিয়ে চেপে ধরে আছেন ওই ব্যক্তিকে আর বাকি দু’‌জন পুলিশ ওই ব্যক্তির পা ধরে আছেন। আশেপাশে বহু লোক ঘটনায় জড়ো হয়ে গিয়েছেন।

দেবনগর থানার পুলিশ আধিকারিক সোমাকরণ জানিয়েছেন, পুলিশ যখন মাস্ক না পরার জন্য জরিমানা করতে চালান কাটছিল, তখনই মুকেশ পুলিশের ওপর চড়াও হন। পুলিশের উর্দি ছিঁড়ে দেন। এই নিয়ে প্রতাপনগর থানায় একটি এফআইএর রুজু করেছে পুলিশ। ওই দিনই পরে আদালতে ওঠে গোটা বিষয়টি। পুলিশ জানিয়েছে, এর আগেও মুকেশ হিংসাত্মক হয়ে গিয়ে নিজের বাবার চোখ নষ্ট করেছে। তখনও তাঁর বিরুদ্ধে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল। মহামারি আইনে মুকেশের বিরুদ্ধে মামলা চালাচ্ছে পুলিশ।

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: June 5, 2020, 4:35 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर