corona virus btn
corona virus btn
Loading

সচিন পাইলটের সঙ্গে অন্তত ৩০ বিধায়কের সমর্থনের দাবি, রাজস্থান রক্ষায় মরিয়া কংগ্রেস

সচিন পাইলটের সঙ্গে অন্তত ৩০ বিধায়কের সমর্থনের দাবি, রাজস্থান রক্ষায় মরিয়া কংগ্রেস
সচিন পাইলট৷

সংবাদসংস্থা এএনআই-এর তরফে অবশ্য এ দিনও দাবি করা হয়েছে, সচিন পাইলটের পক্ষে দলের অন্তত তিরিশ জন বিধায়ক রয়েছেন৷

  • Share this:

#জয়পুর: রাজস্থানে সচিন পাইলট শিবিরের ক্ষোভ সামাল দিয়েই ড্যামেজ কন্ট্রোলে তৎপর হল কংগ্রেস৷ তড়িঘড়ি দিল্লি থেকে জয়পুর পাঠানো হল দুই সিনিয়র নেতা অজয় মাকেন এবং রণদীপ সুরজেওয়ালাকে৷ অন্য দিকে যে বিক্ষুব্দ বিধায়করা সচিন পাইলটের সঙ্গে দিল্লি গিয়েছিলেন বলে দাবি, তাঁদের কয়েকজন সাংবাদিক সম্মেলন করে বিজেপি-র সঙ্গে যোগাযোগের কথা অস্বীকার করেছেন৷ এই পরিস্থিতিতে এ দিন রাতেই দলের সব বিধায়ককে নিয়ে বৈঠকে বসার কথা রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের৷

রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রীর উপরে ক্ষুব্ধ উপমুখ্যমন্ত্রী সচিন পাইলট বেশ কয়েকজন বিধায়ককে নিয়ে দিল্লি গিয়ে সনিয়া গান্ধি এবং আহমেদ পটেলের সঙ্গে দেখা করেন বলে খবর৷ এর পর থেকেই রাজস্থানে কংগ্রেস সরকারের ভবিষ্যৎ নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে ওঠে৷ মধ্যপ্রদেশের জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়ার পথে হেঁটেই সচিন পাইলটও বিজেপি-র দিকে ঝুঁকছেন কিনা, সেই জল্পনাও শুরু হয়৷ সেই জল্পনা বাড়িয়ে কংগ্রেসকে খোঁচা দিয়ে জ্যোতিরাদিত্য ট্যুইট করে বলেন, তাঁর মতোই সচিন পাইলটকেও কংগ্রেসে কোণঠাসা করেই রাখা হয়েছে৷

বিধায়কদের সমর্থন তাঁর দিকে কতটা রয়েছে তা বুঝতে ময়দানে নামেন রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রীও৷ এ দিন রাতেই সব বিধায়ককে নিয়ে বৈঠক ডাকেন তিনি৷ তাঁর আগেই দুই সিনিয়র নেতাকে জয়পুর পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয় হাইকম্যান্ড৷

সংবাদসংস্থা এএনআই-এর তরফে অবশ্য এ দিনও দাবি করা হয়েছে, সচিন পাইলটের পক্ষে দলের অন্তত তিরিশ জন বিধায়ক রয়েছেন৷ সচিন পাইলট ভবিষ্যতে যে সিদ্ধান্তই নিন না কেন, তাঁরা তার সঙ্গে থাকবেন বলেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ওই বিক্ষুব্ধ বিধায়করা৷ যদিও সচিন ঘনিষ্ঠ কয়েকজন বিধায়ক এ দিন সাংবাদিক সম্মেলন করে দাবি করেছেন, তাঁরা দলের অনুগত সৈনিক৷ বিজেপি-র সঙ্গে তাঁদের কোনও যোগাযোগ নেই৷ তাঁদের মধ্যে কেউ কেউ দাবি করেছেন, তাঁরা ব্যক্তিগত কাজে দিল্লি গিয়েছিলেন৷

রাজ্যে কংগ্রেসের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা অবিনাশ পান্ডে অভিযোগ করেছেন, গত এক বছর ধরে রাজস্থানে সরকার ফেলে দেওয়ার চক্রান্ত করছে বিজেপি৷ ইচ্ছাকৃত ভাবে বিজেপি বিষয়টি অন্যদিকে ঘোরানোর চেষ্টা করছে বলেও তাঁর অভিযোগ৷ তাঁর আরও দাবি, মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের প্রতি সব বিধায়কের সমর্থন রয়েছে৷ শুধু তাই নয়, রাজস্থানে কংগ্রেস সরকার পাঁচ বছরের মেয়াদ পূর্ণ করবে বলেও দাবি করেছেন তিনি৷ রাজস্থানের মন্ত্রী হরিশ চৌধুরীও একই দাবি করেছেন৷ তাঁর অভিযোগ, সবাই যখন করোনার সঙ্গে লড়াই করছে তখন বিজেপি ক্ষমতা দখলের খেলায় মত্ত৷ তবে যাঁকে নিয়ে ধোঁয়াশা, সেই সচিন পাইলট এখনও চুপ৷ ফলে কংগ্রেসের অস্বস্তি কাটছে না৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: July 12, 2020, 8:33 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर