বিরোধী দলনেতার পদ থেকে অধীরকে সরিয়ে দিল কংগ্রেস, বাংলার ভোটই কারণ?

বিরোধী দলনেতার পদ থেকে অধীরকে সরিয়ে দিল কংগ্রেস, বাংলার ভোটই কারণ?

অধীররঞ্জন চৌধুরী।

অধীরের জায়গায় আপাতত যাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, সেই রভনীত সিং বিট্টু পঞ্জাবের লুধিয়ানার সাংসদ৷

  • Share this:

    #দিল্লি: লোকসভায় কংগ্রেসের বিরোধী দলনেতার পদ থেকে অধীররঞ্জন চৌধুরীকে সরিয়ে দিল কংগ্রেস৷ তাঁর জায়গায় অন্তর্বর্তী দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে পঞ্জাবের সাংসদ রভনীত সিং বিট্টুূকে৷ কংগ্রেসের তরফে অবশ্য দাবি করা হয়েছে, যেহেতু অধীর বাংলার নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত, সেই কারণেই লোকসভার দলনেতার পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হল অধীরকে৷

    যদিও এই গুরুত্বপূর্ণ পদ থেকে অধীরকে সরিয়ে দেওয়ার পরই রাজনৈতিক মহলে জোর জল্পনা শুরু হয়েছে৷ কারণ বাংলায় আইএসএফ-এর সঙ্গে জোট নিয়ে বেশ খানিকটা জটিলতা তৈরি হয়েছিল প্রদেশ কংগ্রেস নেতৃত্বের৷ আইএসএফ এবং তাদের প্রধান আব্বাস সিদ্দিকিকে নিয়েও প্রকাশ্যেই অসন্তোষও প্রকাশ করতে দেখা গিয়েছিল প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতিকে৷ সেই কারণেই অধীরকে পদ থেকে সরানো হল কি না, তা নিয়েও জল্পনা চলছে৷

    অধীরের জায়গায় আপাতত যাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, সেই রভনীত সিং বিট্টু পঞ্জাবের লুধিয়ানার সাংসদ৷ ৪৫ বছর বয়সি বিট্টু পঞ্জাবের প্রয়াত প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিয়ন্ত সিং-এর নাতি৷ ২০০৯ সালে প্রথমবার পঞ্জাবের আনন্দপুর সাহিব কেন্দ্র থেকে জয়ী হন৷ এর পর ২০০১৪ এবং ২০১৯-এ লুধিয়ানা থেকে সাংসদ নির্বাচিত হন তিনি৷

    গত অগাস্ট মাসে পঞ্জাবের এই সাংসদকে লোকসভার মুখ্য সচেতকের দায়িত্ব দিয়েছিল কংগ্রেস৷ কৃষি আইন বিরোধী বিক্ষোভেও অন্যতম প্রধান মুখ ছিলেন তিনি৷ সিংঘু সীমান্তে কৃষক বিক্ষোভ চলাকালীন বিট্টুর উপরে আক্রমণও হয়৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: